Inqilab Logo

রোববার, ২৬ জুন ২০২২, ১২ আষাঢ় ১৪২৯, ২৫ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

ছেলে হত্যার বিচার চাইলেন দুর্বৃত্তের হাতে নিহত ডা. বুলবুলের মা

রংপুর থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৮ মার্চ, ২০২২, ৬:৫৮ পিএম

ছেলে হত্যার সঙ্গে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার ও সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানিয়েছেন ঢাকায় দুর্বৃত্তদের হামলায় নিহত ডাক্তার বুলবুলের মা বুলবুলি বেগম। একই সঙ্গে তিনি বুলবুলের সন্তানের পড়ালেখার দায়িত্ব সরকারকে নেয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন। আজ সোমবার দুপুরে নিজ বাড়ি ভগিবালাপাড়ায় নিহত ডা. বুলবুলের হত্যাকারীদের শাস্তি ও রাষ্ট্রীয়ভাবে পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেয়ার দাবিতে এসএসসি-৯৭ ব্যাচের বন্ধুদের আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানান তার মা।

সংবাদ সম্মেলনে ডা. বুলবুলের সহপাঠী ও এসএসসি-৯৭ ব্যাচের বন্ধুরা বলেন, দন্ত চিকিৎসক আহমেদ মাহি বুলবুল একজন সামাজিক ও মানবিক মানুষ ছিলেন। শিশুদের নিয়ে কাজ করতেন। ডা. বুলবুল দেশের প্রথম শ্রেণির একজন নাগরিক। তার এই নৃশংস হত্যাকাণ্ডের পিছনে কোনও উদ্দেশ্য আছে কিনা সেটা গুরুত্বসহকারে খতিয়ে দেখা উচিত। তার মৃত্যুতে দুই সন্তান, স্ত্রী-মাসহ পরিবারটি এখন অসহায়। তার পরিবারকে রাষ্ট্রীয়ভাবে ক্ষতিপূরণ দেয়ার জন্য সরকারের কাছে দাবি জানিয়েছেন তার বন্ধুরা।

সহপাঠী ডা. মোস্তফা আলম বলেন, আমরা অকালে একজন ভালো মানুষকে হারালাম। আমাদের এসএসসি-৯৭ ব্যাচের বন্ধুদের দাবি হচ্ছে, যেভাবে আওয়ামী লীগ নেতা টিপু হত্যাকারীকে দ্রুত গ্রেফতার করা হয়েছে, সেইভাবে ডা. বুলবুলের হত্যাকারীদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। সেই সাথে তার পরিবারকে রাষ্ট্রীয়ভাবে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার দাবি জানাচ্ছি।

উল্লেখ্য, রোববার (২৭ মার্চ) ভোরে রাজধানীর শেওড়াপাড়ায় নির্মাণাধীন মেট্রো রেলস্টেশন এলাকায় ছুরিকাঘাতে নিহত হন ডা. আহমেদ মাহী বুলবুল।

পুলিশ ও স্বজনরা বলছেন, বুলবুল ঠিকাদারি কাজের প্রয়োজনে নোয়াখালী যাচ্ছিলেন। তার কাছে থাকা ১২ হাজার টাকা ও মোবাইল ফোন নেয়নি দুর্বৃত্তরা। তবে একটি মোবাইল ফোন খোয়া গেছে। ঘটনাটি ছিনতাই বলে ধারণা করা হলেও মৃত্যুর ধরন দেখে ভিন্ন সন্দেহ হচ্ছে। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী শাম্মী আখতার শান্তি বাদী হয়ে মিরপুর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রংপুর


আরও
আরও পড়ুন