Inqilab Logo

বুধবার, ১৭ আগস্ট ২০২২, ০২ ভাদ্র ১৪২৯, ১৮ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

‘গাঁটছড়া’র নকল ‘উড়ন তুবড়ি’? মুখ খুললেন লাবণী সরকার

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩১ মার্চ, ২০২২, ১২:০৪ এএম

বিদায় নিয়েছে ‘অপরাজিতা অপু’। তার জায়গায় এসেছে ‘উড়ন তুবড়ি’। গত ২৮ মার্চ, সোমবার থেকে শুরু হয়েছে জি বাংলার এই নতুন সিরিয়াল। তিন বোন ও মায়ের সংসারের গল্প নিয়ে প্রযোজক ফিরদৌস হাসানের এই সিরিয়াল শুরুর অনেক আগে থেকেই আলোচনার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছিল। কারণ এই সিরিয়ালের গল্পের সঙ্গে স্টার জলসার বাংলা সেরা সিরিয়াল ‘গাঁটছড়া’র গল্পের বেশ সাদৃশ্য লক্ষ্য করা গিয়েছিল। প্রথম পর্বে দেখা গেল, কচুরির দোকান চালাচ্ছেন সাবিত্রী ওরফে লাবণি সরকার। তিন মেয়েকে নিয়ে এভাবেই সংসার চলে তাঁর। বড় মেয়ে তোড়া, মেজ মেয়ে তুবড়ি আর ছোট তিন্নি। স্বামীকে সাবিত্রীরই ছোট বোন লোপা ছিনিয়ে নিয়েছেন। বড় বোনকে যেভাবে সম্ভব টেক্কা দেওয়াই তার একমাত্র লক্ষ্য। গাঁটছড়ায়ও তিন বোনের গল্প থাকায় সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেকেই দাবি করেছিলেন, গাঁটছড়াকে টেক্কা দিতেই ফের তিন বোনের গল্প এনেছে জি বাংলা। এমনকি বাংলা সেরা সিরিয়ালকে নকল করার অভিযোগও উঠেছিল। এ বিষয়ে লাবণি বলেন, সাবিত্রী চরিত্রটি মধ্যবিত্ত। এই ধরনের সব চরিত্র একই রকমের হয়। পার্থক্যটা গড়ে তোলার দায়িত্ব অভিনেতা অভিনেত্রীদের। লাবণি অনুরোধ করেন, দুটো চ্যানেল বা দুটো সিরিয়ালে কী মিল আছে না আছে সেগুলোর তুলনা না করে বরং গঠনমূলক সমালোচনা করা হোক। অনেক নতুন মুখ রয়েছে উড়ন তুবড়িতে। তাঁরা সকলেই প্রাণপণে খাটছেন। তাই প্রশংসা করতে না পারলেও নিন্দা না করার আর্জি জানান লাবণি। প্রোমোতেই তুখোর সংলাপ বলতে দেখা গিয়েছিল তুবড়িকে। ‘আমি ফুলঝুড়িও নই, কালিপটকাও নই। আমি তুবড়ি। একবার জ্বললে সহজে নিভি না’, এমনি হুঁশিয়ারিতে সহজেই নজর কেড়ে নিয়েছিল সিরিয়ালটি। এবার দেখা যাক দর্শকদের ভালবাসা পেতে কতটা সক্ষম হয় তুবড়ি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ‘গাঁটছড়া’র নকল ‘উড়ন তুবড়ি’? মুখ খুললেন লাবণী সরকার
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ