Inqilab Logo

শুক্রবার, ১৯ আগস্ট ২০২২, ০৪ ভাদ্র ১৪২৯, ২০ মুহাররম ১৪৪৪

মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসের নামে মিথ্যা তথ্য ছড়ানো হচ্ছে : ভিপি নুর

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২ এপ্রিল, ২০২২, ১২:১৪ পিএম

গণঅধিকার পরিষদের সদস্য সচিব নুরুল হক নুর অভিযোগ করেছেন, মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসের নামে মিথ্যা তথ্য ছড়ানো হচ্ছে। তিনি বলেছেন, আওয়ামী লীগ বঙ্গবন্ধু ছাড়া আর কারও অবদান স্বীকার করতে চায় না। ইতিহাসের নামে তারা সব জায়গায় একজনের নাম প্রচার করে। মুক্তিযুদ্ধে জাতীয় চার নেতা, প্রবাসী সরকার, মেজর জিয়া, আসম রবদের অবদান লুকানো হচ্ছে। তারা বঙ্গবন্ধুর দোহাই দিয়ে নিজেদের অপকর্ম জায়েজ করার চেষ্টা করছে।

শুক্রবার (১ এপ্রিল) সন্ধ্যায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বাংলাদেশ শ্রমিক অধিকার পরিষদ আয়োজিত দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদে শ্রমিক সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। নুর বলেন, এ সংসদে যারা অধিবেশনের নামে জনগণের টাকায় তামাশা করে, তারা অপচয়কারী, আর অপচয়কারী শয়তানের ভাই ছাড়া আর কি হবে। এর বড় কারণ, তারা জনগণের ভোটে নির্বাচিত নয়।

সরকার মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে দাবি করে তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের সময় আমাদের ঘোষণা নির্ভেজাল গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করা হবে। অথচ সরকার দেশে মাফিয়াতন্ত্র কায়েম করেছে। পুলিশের কর্তাদের দিয়ে রাজনৈতিক ব্যক্তিদের মতো বক্তব্য দেওয়াচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী আর রাষ্ট্রপতি চেকআপ করাতে সিঙ্গাপুর যায়, আর গরিব মানুষ ঢাকা মেডিকেলের বারান্দায় কাতরায়। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন দেশের প্রয়োজনে তিনি জীবন দিতে চান। আমি বলব জীবন দিতে হবে না, আপনার জীবন আমরা রক্ষা করব। আমাদের ভোটাধিকার ফিরিয়ে দেন। না হয় মানুষ ভুলে যাবে আপনি বঙ্গবন্ধুর কন্যা।

এক এগারোর সংস্কারবাদীদের ধন্যবাদ জানিয়ে ডাকসুর সাবেক ভিপি বলেন, আওয়ামী লীগে ও বিএনপি পরিবারতন্ত্রকে প্রতিষ্ঠিত করতে দেশের মানুষকে বোকা বানাচ্ছে। নিজের ছেলেদের প্রতিষ্ঠিত করতে শেখ হাসিনা এবং খালেদা জিয়া ৩০ বছর ধরে দলের ক্ষমতা ধরে রেখেছেন। তিনি বলেন, এ সময় যারা সংস্কার করতে চেয়েছিলেন তাদের ধন্যবাদ জানাই। আপনারা গণঅধিকারের সঙ্গে আসুন। আমরা তৃতীয় শক্তির জাগরণ ঘটাতে চাই।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভিপি নুর


আরও
আরও পড়ুন