Inqilab Logo

শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২, ১৮ আষাঢ় ১৪২৯, ০২ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

দুর্দান্ত দিল্লি অভিষেক ম্লান মুস্তাফিজের

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৪ এপ্রিল, ২০২২, ১২:০০ এএম

খেলাটা যখন দিল্লি ক্যাপিটালসের, বাংলাদেশি সমর্থকদের সব আগ্রহ যে মুস্তাফিজুর রহমানকে ঘিরেই ছিল, তা বোধ হয় না বললেও চলে। পুনের এমসিএ স্টেডিয়ামে গুজরাট টাইটানসের বিপক্ষে মুস্তাফিজকে রেখেই একাদশ সাজিয়েছিল ঋষভ পন্তের দিল্লি। দিল্লির হয়ে অভিষেক ম্যাচে দলের সেরা বোলারও মুস্তাফিজ। পাওয়ার-প্লেতে ১ উইকেট, ডেথ ওভারে ২- নতুন দলের হয়ে আইপিএলের প্রথম ম্যাচে এমন স্বপ্নময় শুরুর ছবিই হয়তো এঁকেছিলেন মুস্তাফিজ। ৪ ওভারে মাত্র ২৩ রান দিয়ে মুস্তাফিজের শিকার ৩ উইকেট। মুস্তাফিজের বৈচিত্র্যময় বোলিং অবশ্য স্বচ্ছন্দেই সামলেছেন গুজরাটের উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান শুবমান গিল। ৪৬ বলে খেলেছেন ৮৪ রানের দারুণ এক ইনিংস, যাতে ছিল ৬টি চার ও ৪টি ছক্কা। তাতে গুজরাটও পেয়ে যায় ৬ উইকেটে ১৭১ রানের লড়াকু পুঁজি। গুজরাটের ১৪ রানের জয়ের নায়ক অবশ্য অন্য একজন।
গুজরাটের ফাস্ট বোলার লকি ফার্গুসন এই রানকেই জয়ের জন্য যথেষ্ট বলে প্রমাণ করেছেন। এই কিউই ফাস্ট বোলারের সঙ্গে গুজরাটের বোলিং আক্রমণে রশিদ খান, মোহাম্মদ শামির মতো তারকারা। দিল্লির ব্যাটসম্যানদের জন্য পরীক্ষাটা তাই কঠিনই ছিল। সেই পরীক্ষায় তারা পাস করতে পারেননি। বিশেষ করে ফার্গুসনের বাউন্সের সামনে রীতিমতো অসহায় মনে হয়েছে দিল্লির ব্যাটসম্যানদের। ৪ উইকেট নিয়েছেন কিউই ফাস্ট বোলার। উইকেট পেয়েছেন শামি, রশিদ ও হার্দিক পান্ডিয়াও।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: দুর্দান্ত দিল্লি অভিষেক ম্লান মুস্তাফিজের
আরও পড়ুন