Inqilab Logo

বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ১৫ আষাঢ় ১৪২৯, ২৮ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

ইস্টার্ন ব্যাংককে ৫ লাখ টাকা জরিমানা

নিজ প্রতিষ্ঠানকে সীমার অতিরিক্ত ঋণ অনুমোদিত মূলধন বাড়াবে ব্যাংকটি

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৫ এপ্রিল, ২০২২, ১২:০১ এএম

সীমার অতিরিক্ত ঋণ দেয়ায় বেসরকারি ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেডকে (ইবিএল) পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। গত রোববার এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে ইস্টার্ন ব্যাংককে চিঠি পাঠানো হয়। চিঠিতে বলা হয়েছে, ১৪ দিনের মধ্যে জরিমানার টাকা জমা দিতে হবে। অন্যথায় প্রাপ্য টাকা ব্যাংকের হিসাব থেকে কেটে নেয়া হবে। বাংলাদেশ ব্যাংকের চিঠিতে বলা হয়, ইবিএল তার সহযোগী প্রতিষ্ঠান ইবিএল ফাইন্যান্স (এইচকে) লিমিটেড ও ইবিএল সিকিউরিটিজকে সীমা অতিক্রম করে ঋণ দিয়েছে।

এ ছাড়া একক গ্রাহকের ঋণসীমা অতিক্রম করে ঋণ দেয়া হলেও কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে কোনো অনাপত্তি নেয়া হয়নি। এটা ব্যাংক কোম্পানি আইনের ২৬(খ) ধারার লঙ্ঘন। এই অভিযোগটির বিষয়ে ইস্টার্ন ব্যাংক গত বছরের ১৯ ডিসেম্বর ও গত ৩ ফেব্রুয়ারি ব্যাখ্যা দিলেও তা গ্রহণ করেনি বাংলাদেশ ব্যাংক।
ব্যাংক কোম্পানি আইনের ২৬(খ) অনুযায়ী, কোনো ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান বা গ্রুপকে দেয়া ঋণসুবিধার পরিমাণ ওই ব্যাংকের রক্ষিত মূলধনের ২৫ শতাংশের বেশি হবে না।
এদিকে অনুমোদিত মূলধন বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেডের (ইবিএল) পরিচালনা পরিষদ। ব্যাংকটির বর্তমান অনুমোদিত মূলধন ১ হাজার ২০০ কোটি টাকা। এটি বাড়িয়ে ২ হাজার ৫০০ কোটি টাকা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ব্যাংকটির পরিষদ। এজন্য ব্যাংকটির মেমোরেন্ডাম অব অ্যাসোসিয়েশন ও আর্টিকেল অব অ্যাসোসিয়েশনে সংশোধনী আনতে হবে। নিয়ন্ত্রক সংস্থা ও শেয়ারহোল্ডারদের অনুমোদনের পর মূলধন বাড়ানোর এ সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হবে। স্টক এক্সচেঞ্জ সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। এছাড়া ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত ২০২১ হিসাব বছরের জন্য শেয়ারহোল্ডারদের মোট ২৫ শতাংশ লভ্যাংশ দেয়ার সুপারিশ করেছে ইবিএলের পরিষদ। এর মধ্যে ১২ দশমিক ৫০ শতাংশ নগদ ও ১২ দশমিক ৫০ শতাংশ স্টক বা বোনাস। সমাপ্ত হিসাব বছরে ব্যাংকটির শেয়ারপ্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫ টাকা ৩ পয়সা, আগের হিসাব বছর শেষে যা ছিল ৪ টাকা ৩৮ পয়সা। ৩১ ডিসেম্বর ব্যাংকটির শেয়ারপ্রতি সমন্বিত নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ৩৩ টাকা ১৭ পয়সায়। আগের হিসাব বছর শেষে যা ছিল ৩০ টাকা ৮৭ পয়সা।
সমাপ্ত হিসাব বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন, লভ্যাংশসহ অন্যান্য এজেন্ডা পর্যালোচনা ও অনুমোদনের জন্য আগামী ১৯ মে ভার্চুয়াল মাধ্যমে ব্যাংকটির বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) আহ্বান করা হয়েছে। এ-সংক্রান্ত রেকর্ড ডেট ২৫ এপ্রিল।
১৯৯৩ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ইস্টার্ন ব্যাংকের পরিশোধিত মূলধন ৯৫৩ কোটি ৮৬ লাখ ৪০ হাজার টাকা। ব্যাংকের মোট শেয়ার সংখ্যা ৯৫ কোটি ৩৮ লাখ ৬৪ হাজার ৪৬৮। এর মধ্যে উদ্যোক্তা পরিচালকদের হাতে রয়েছে ৩০ দশমিক ১৮ শতাংশ শেয়ার। এছাড়া প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের কাছে ৪৭ দশমিক ৬১ শতাংশ, বিদেশী বিনিয়োগকারীদের কাছে দশমিক ৩৩ ও সাধারণ বিনিয়োগকারীদের হাতে বাকি ২১ দশমিক ৮৮ শতাংশ শেয়ার রয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইস্টার্ন ব্যাংককে ৫ লাখ টাকা জরিমানা
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ