Inqilab Logo

বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২, ২২ আষাঢ় ১৪২৯, ০৬ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

পাকিস্তান সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে জাতীয় পরিষদ পুনর্বহাল

অনাস্থা ভোট কাল

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৯ এপ্রিল, ২০২২, ১২:১২ এএম

পাকিস্তানের সুপ্রিম কোর্ট প্রধানমন্ত্রী ইমরানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব খারিজ করা সংক্রান্ত ডেপুটি স্পিকারের রায় এবং পরবর্তীতে প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শে প্রেসিডেন্টের জাতীয় পরিষদ ভেঙে দেওয়ার সিদ্ধান্ত বাতিল করে দিয়েছেন। বেঞ্চের পাঁচ বিচারক সর্বসম্মতভাবে এর বিরুদ্ধে ৫-০ ভোট দিয়েছেন। আদালত তার সংক্ষিপ্ত রায়ে বলেছেন যে, ডেপুটি স্পিকারের সিদ্ধান্ত ‘অসাংবিধানিক এবং এর কোনো আইনি প্রভাব নেই এবং তা বাতিল করা হয়েছে’।
সুপ্রিম কোর্ট তার রায়ে বলেছে যে প্রেসিডেন্ট ড. আরিফ আলভির জাতীয় পরিষদ ভেঙে দেওয়ার সিদ্ধান্ত ‘অসাংবিধানিক এবং এর কোনো আইনি প্রভাব নেই’ এবং উল্লেখ করেছেন যে, প্রধানমন্ত্রী প্রেসিডেন্টকে জাতীয় পরিষদ ভেঙে দেওয়ার পরামর্শ দেননি। চলমান আছে সংবিধানের ৫৮ (১) অনুচ্ছেদের অধীনে আরোপিত বিধিনিষেধ মেনে চলা। সুপ্রিম কোর্ট আরো ঘোষণা করেছে যে, জাতীয় পরিষদ সর্বদা বিদ্যমান ছিল এবং বিদ্যমান ও অব্যাহত থাকবে’।
আগামীকাল শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় জাতীয় পরিষদের অধিবেশন পুনরায় আহবানের নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাবের সমাপ্তি ছাড়া অধিবেশন মুলতবি করা যাবে না।
বিচারপতি বন্দিয়াল ঘোষণা করেন, ‘ডেপুটি স্পিকার ৩ এপ্রিল একটি রায় দেন। ২৮ মার্চ অনাস্থা প্রস্তাবে আবেদন মঞ্জুর করা হয়। স্পিকারের রায়কে অসাংবিধানিক ঘোষণা করা হয়েছে’।
প্রধান বিচারপতি বলেন, বিচারপতিরা একে অপরের সঙ্গে পরামর্শ করার পর ৫-০ ভোটে সর্বসম্মতিক্রমে রায় ঘোষণা করা হয়। ‘বর্তমান সমস্যাগুলো দূর করা হয়েছে’ তিনি বলেন। রায়ে বলা হয়েছে, বিধানসভা অধিবেশনে কোনো এমএনএর অংশগ্রহণে সরকার হস্তক্ষেপ করতে পারবে না।
রায়ের পর গণমাধ্যমের সাথে কথা বলার সময় জাতীয় পরিষদের বিরোধী দলীয় নেতা শাহবাজ শরীফ বলেছেন যে, আদালত ‘অবশ্যই জনগণের প্রত্যাশা পূরণ করেছে’।
সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় রায় ঘোষণার কথা থাকলেও এক ঘণ্টা দেরি হয়। রায়ের প্রত্যাশায়, সুপ্রিম কোর্টের বাইরে দাঙ্গা পুলিশ মোতায়েন, দেখানো টেলিভিশন ফুটেজসহ সুপ্রিমকোর্ট প্রাঙ্গনে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছিল।
রায়ের আগে, সুপ্রিম কোর্ট প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) সিকান্দার সুলতান রাজাকে তলব করেন, যিনি ওয়াচডগের আইনি দল নিয়ে আদালতে এসেছিলেন।
রায়ের আগে পিএমএল-এন-এর শেহবাজ শরীফ এবং পিপিপি-র বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারিসহ বিপুল সংখ্যক আইনজীবী, মিডিয়া কর্মী এবং রাজনীতিবিদরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন।
এই মামলায় পিপিপি-র প্রতিনিধিত্বকারী অ্যাডভোকেট ফারুক এইচ নায়েককে তিনি কী রায় আশা করছেন তা নিয়ে মিডিয়া প্রশ্ন করেছিল। তিনি বলেন যে, তিনি আশা করেন ডেপুটি স্পিকারের রুল বাতিল করা হবে। ‘একইভাবে, [জাতীয় গুরুত্বের ভিত্তিতে], মনে হচ্ছে তারা (বিচারকরা) পরামর্শ দেবেন যে নির্বাচন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে [তাই তাদের চলতে দেওয়া উচিত]’ নায়েক যোগ করেছেন।
সিজেপি বন্দিয়ালের নেতৃত্বে বিচারপতি ইজাজুল আহসান, বিচারপতি মাজহার আলম মিয়াঁখেল, বিচারপতি মুনিব আখতার ও বিচারপতি জামাল খান মান্দোখাইলের সমন্বয়ে গঠিত পাঁচ সদস্যের বেঞ্চ আগের দিন এ মামলার শুনানি শেষ করেন।
এর আগে, শুনানির সময়, সিজেপি বন্দিয়াল বলেছিলেন যে, এটি স্পষ্ট যে, জাতীয় পরিষদের ডেপুটি স্পিকার কাসিম খান সুরির ৩ এপ্রিলের রায়, যা প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব খারিজ করেছিল, ভুল ছিল।
তিনি বলেন, ‘আসল প্রশ্ন হল সামনে কী ঘটবে’, তিনি বলেন, এখন পিএমএল-এন কৌঁসুলি এবং পাকিস্তানের অ্যাটর্নি জেনারেল (এজিপি) খালিদ জাভেদ খান কীভাবে এগিয়ে যেতে হবে সে বিষয়ে আদালতকে নির্দেশনা দেবেন। তিনি বলেন, ‘আমাদের জাতীয় স্বার্থ দেখতে হবে’। সূত্র : ডন অনলাইন।



 

Show all comments
  • Rafiul ৮ এপ্রিল, ২০২২, ৫:৪০ এএম says : 0
    আপনারা আমেরিকান রায় copy paste করেছেন।
    Total Reply(0) Reply
  • Md. Masud Rana ৮ এপ্রিল, ২০২২, ৪:২৪ এএম says : 0
    আল্লাহ ইমরান খান ও তার সরকারকে কবুল করুন। আমিন।
    Total Reply(0) Reply
  • Salman Ahmad Elias ৮ এপ্রিল, ২০২২, ৪:২৪ এএম says : 0
    ক্ষমতা থাকতে হলে একমাত্র আমাদের দেশ থেকে ইমরান খানের পরামর্শ নেওয়া উচিত?
    Total Reply(0) Reply
  • বোরহান উদ্দীন আব্দুর রব ৮ এপ্রিল, ২০২২, ৪:২৩ এএম says : 0
    ইমরান খানের দোষ একটাই সেটা হলো রাশিয়া - ইউক্রেন যুদ্ধে তিনি ইউক্রেনের পক্ষে ভোট দিতে বিরত থেকেছে।
    Total Reply(0) Reply
  • Alam Shahin ৮ এপ্রিল, ২০২২, ৪:১৭ এএম says : 0
    পাকিস্তানের জনগণের কাছে ইমরান খান আশীর্বাদ স্বরূপ। কিন্ত তাদের মীরজাফর মার্কা রাজনৈতিক গোলামীপ্রবণ রাজনীতিজীবিদের কারনে তারা হয়তো এর সুফল থেকে বঞ্চিত হতে চলেছে।
    Total Reply(0) Reply
  • মুহাম্মাদ বিজয় খান ৮ এপ্রিল, ২০২২, ৪:১৭ এএম says : 0
    ইমরান খান থাকবে কিনা তা মূল কথা নয় সমস্যা হচ্ছে যে কারণে তিনি ক্ষমতা হারাবেন ঠিক সেই কাজটা সঠিকভাবে কে করবে কিভাবে করবে তার কোনো রুপরেখা নাই তাই দিন শেষে পাকিস্তানের সাধারণ জনগনই ঠকবে
    Total Reply(0) Reply
  • MD Nazim ৮ এপ্রিল, ২০২২, ৪:১৮ এএম says : 0
    যারা পশ্চিমাদের পা চাটে তারাই নির্বাচিত সরকার নিয়ে ষড়যন্ত্র করতেছে
    Total Reply(0) Reply
  • Fazail Hosen ৮ এপ্রিল, ২০২২, ৪:১৮ এএম says : 0
    মীর জাফরদের কারণে, মুসলিম বিশ্বে, পশ্চিমাদের গোলাম মুক্ত, স্বাধীন, শক্তিশালী কোন নেতা টিকে থাকতে পারছে না, সাদ্দাম, গাদ্দাফি, মুরসি, মাহাথির এর পর এখন তাদের টার্গেট ইমরান & এরদোগান।
    Total Reply(0) Reply
  • রায়হান ইসলাম ৮ এপ্রিল, ২০২২, ৩:৫১ এএম says : 0
    পাকিস্তানীদের উচিত ইমরানের পক্ষে অবস্থান নেয়া
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পাকিস্তান সুপ্রিম কোর্ট
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ