Inqilab Logo

রোববার, ২৬ জুন ২০২২, ১২ আষাঢ় ১৪২৯, ২৫ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

রাজশাহীতে ইফতারে কাঁচা আমের জিলাপী

রাজশাহী ব্যুরো : | প্রকাশের সময় : ১০ এপ্রিল, ২০২২, ১২:০৪ এএম

ইফতারীর অন্যতম অনুষঙ্গ জিলাপী। ঝাল, ভাজা পোড়ার মধ্যে একটু মিষ্টি মানেই জিলাপী। রাজশাহীতে ক্রেতাদের স্বাদের দিকে লক্ষ্য রেখে এবার প্রচলিত জিলাপীর সাথে যোগ হয়েছে আমের জিলাপী। আমের গুটির রস আর গুড় দিয়ে তৈরী হচ্ছে আমের জিলাপী। এর সাথে মাস কালাইয়ের আটা দিয়েও তৈরী হচ্ছে জিলাপী। এসব জিলাপী ইতোমধ্যে ক্রেতার পছন্দের তালিকায় চলে এসেছে। মিষ্টি ও মিষ্টিজাত পণ্যে কাঁচা আমের জিলাপি এনে তাক লাগিয়ে দিয়েছে রাজশাহীর ‘রসগোল্লা’। প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, গতকাল প্রথমবারের মতো তারা কাঁচা আমের জিলাপি ক্রেতাদের সামনে এনেছেন। আর তাতেই পড়েছে হুলুস্থুল। যদিও প্রথম রোজা থেকেই রসগোল্লার দুটি বিক্রিয় কেন্দ্রে মিলছে মাসকলাইয়ের জিলাপি।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, নগরীর উপশহর নিউমার্কেট এলাকার রসগোল্লার বিক্রয় কেন্দ্রে ক্রেতাদের ভিড়। তবুও ইফতার অনুসঙ্গ হিসেবে কাঁচা আমের জিলাপি নিতে দাঁড়িয়ে আছেন ক্রেতারা। বিক্রয় কেন্দ্রের সামনেই বসানো হয়েছে অস্থায়ি চুলা। সেখানেই জিলাপি ভাজছেন কারিগর মাসুম আলী। রস থেকে তুলে রাখার ফুসরত নেই। সঙ্গে সঙ্গে শেষ। বিরাম নেই কারিগর-বিক্রয়কর্মীর।
দোকানি জানান, প্রায় পনেরো বছর ধরে জিলাপি তৈরি করেন। কিন্তু কখনোই কাঁচা আমের জিলাপি তৈরি করেননি। জিলাপি তৈরির মূল উপকরণের সঙ্গে কাঁচা আম ব্লেন্ড করে যুক্ত করছেন। সেই সাথে দিচ্ছেন ফ্লেভার।
এছাড়াও এখানে মিলছে মাষকলাইয়ে আটার জিলাপি। বিশেষ এই জিলাপি চিনির রসের পরিবর্তে ডোবানো হচ্ছে খেজুর গুড়ের রসে। তাদের এই দুই ধরনের জিলাপি পুরোপুরি স্বাস্থ্যকর। নগরীর ভদ্রা এবং উপশহর নিউমার্কেটে রসগোল্লার বিক্রয় কেন্দ্রে ২৫০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে কাঁচা আমের জিলাপি। মাষকলাইয়ের জিলাপি বিক্রি হচ্ছে ২০০ টাকায়।
রসগোল্লার বিক্রয়কর্মী জানান, তারা বেলা ২টার পর থেকে ইফতারের পসরা নিয়ে হাজির হন। তাদের প্রধান আকর্ষণ মাষকলাইয়ের জিলাপি। নতুন করে যুক্ত হলো কাঁচা আমের জিলাপি। সাথে রেশমি জিলাপিও আছে। ক্রেতারা সামনে দাঁড়িয়ে থাকছেন। গরম গরম জিলাপি তারা ক্রেতাদের হাতে তুলে দিচ্ছেন।
রসগোল্লার উদ্যোক্তা আরাফাত রুবেল জানান, রোজায় তারা দুটি ভিন্ন ইফতার সামগ্রী যুক্ত করেছেন। এর মধ্যে একটি মাসকলাইয়ের জিলাপি। অন্যটি কাঁচা আমের জিলাপি। মৌসুমের শুরুতে প্রচুর পরিমাণে গুটি আম ঝরে যায়। আমরা সেগুলো জিলাপিতে ব্যবহার করেছি। ফলে জিলাপি খেতেও বেশ সুস্বাদু হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রাজশাহীতে ইফতারে কাঁচা আমের জিলাপী
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ