Inqilab Logo

শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ১৭ আষাঢ় ১৪২৯, ০১ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

রোজা অবস্থায় প্রক্টোস্কপি করানো প্রসঙ্গে।

হাফিজ চৌধুরী
ইমেইল থেকে

প্রকাশের সময় : ১০ এপ্রিল, ২০২২, ৬:০০ পিএম

প্রশ্নের বিবরণ : ডাক্তার আমার বাবাকে প্রক্টোস্কপি পরীক্ষা দিয়েছে। এখন প্রক্টোস্কপির কারণে কি রোজার কোনো ক্ষতি হতে পারে?

উত্তর : পাইলস, ফিসার ও ফিস্টুলা ইত্যাদি রোগের পরীক্ষাকে প্রক্টোস্কপি বলে। মলদ্বার দিয়ে নল প্রবেশ করিয়ে পরীক্ষাটি করা হয়। রোগী যাতে ব্যথা না পায় সেজন্য নলের মধ্যে গ্লিসারিন-জাতীয় কোনো পিচ্ছিল বস্তু ব্যবহার করা হয়। নলটি পুরোপুরি ভেতরে প্রবেশ করে না। চিকিৎসকদের মতানুসারে ওই পিচ্ছিল বস্তুটি নলের সাথে মিশে থাকে এবং নলের সাথেই বেরিয়ে আসে, ভেতরে থাকে না। আর থাকলেও তা পরবর্তীতে বেরিয়ে আসে। শরীর তা শুষে না। এতসব কারণ সত্ত্বেও ওই বস্তুটি ভিজা হওয়ার কারণে রোজা ভেঙে যাবে।
উত্তর দিয়েছেন : আল্লামা মুফতি উবায়দুর রহমান খান নদভী
সূত্র : জামেউল ফাতাওয়া, ইসলামী ফিক্হ ও ফাতওয়া বিশ্বকোষ।
প্রশ্ন পাঠাতে নিচের ইমেইল ব্যবহার করুন।
[email protected]

 

ইসলামিক প্রশ্নোত্তর বিভাগে প্রশ্ন পাঠানোর ঠিকানা
[email protected]



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রোজা অবস্থায় প্রক্টোস্কপি করানো
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ