Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১ আশ্বিন ১৪২৫, ১৫ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

ঈমান ও ইসলাম বিধ্বংসী সিলেবাস বাতিল না করলে আন্দোলন -ইসলামী আন্দোলন

প্রকাশের সময় : ১৩ নভেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : জাতীয় শিক্ষক ফোরামের কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের যুগ্ম মহাসচিব অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান বলেছেন, বর্তমান সিলেবাস থেকে নবী রাসূল সা. ও সাহাবায়ে কেরামগণের জীবনরচিত বাদ দিয়ে রামকৃঞ্চ ও রামায়ণের ইতিহাস সংযোজন করা হয়েছে যা ৯৫% মুসলমানের ঈমান ও আমলে চরম আঘাত। তিনি বলেন, গরুকে মা সম্বোধন করে কোমলমতি শিশুদের হিন্দুত্ববাদ শিখানো হচ্ছে। দেব-দেবির নামে বলি দেয়া গরু বা পাঠা হালাল বলে শিখানো হচ্ছে। এভাবে মুসলমানিত্ব ধ্বংস করে হিন্দুত্ববাদ প্রতিষ্ঠার ষড়যন্ত্র চলছে। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী বলে থাকেন ধর্মের উপর আঘাত করলে আমারও গায়ে লাগে। কাজেই ধর্ম ও ইসলাম নিয়ে কটুক্তি করলে ছাড় দেয়া হবে না। অপরদিকে শিক্ষাআইন, শিক্ষানীতির মাধ্যমে আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে হিন্দুত্ববাদের দিকে নিয়ে যাওয়া ইসলামের উপর বড় আঘাত। এসব অবিলম্বে বাতিল না করলে কঠোর আন্দোলন গড়ে উঠবে।
গতকাল বিকাল ৩টায় রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জাতীয় শিক্ষক ফোরাম ঢাকা জেলা আয়োজিত মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। ঢাকা জেলা আহ্বায়ক অধ্যাপক ডা. কামরুজ্জামানের সভাপতিত্বে ও মাওলানা নূর হোসাইনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন শিক্ষক ফোরামের সদস্য সচিব মাওলানা এবিএম জাকারিয়া, যুগ্ম আহ্বায়ক অধ্যাপক ফজলুল হক মৃধা, মাওলানা বাছির উদ্দিন মাহমুদ, মুহাম্মদ হুমায়ূন কবীর প্রমুখ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।