Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ১৬ আগস্ট ২০২২, ০১ ভাদ্র ১৪২৯, ১৭ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

ধর্মীয় স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ অসাংবিধানিক আচরণ

ইসলামী ছাত্র আন্দোলন বাংলাদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১২ এপ্রিল, ২০২২, ১২:০২ এএম

দেশের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে নারী অধিকার ক্ষুন্ন, হিজাব পরিহিতাদের হেনস্তা, ব্যক্তি ও ধর্মীয় স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করে একটি দুষ্টচক্র সাংবিধানিক অধিকার ক্ষুন্ন করছে। ধর্মীয় অনুভূতির মতো স্পর্শকাতর বিষয়কে পুঁজি করে চক্রটি দেশে ধর্মীয় সম্প্রীতি নস্যাতের অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে। দেশের হাজার বছর ধরে চর্চিত সংস্কৃতি বাদ দিয়ে পশ্চিমা ও ব্রাহ্মণ্যবাদী সংস্কৃতি বাজারজাত করতে মহলটি আদাজল খেয়ে মাঠে নেমেছে। ধর্মীয় সম্প্রীতি বিনষ্টে তৎপর দুষ্কৃতকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে।
গতকাল সোমবার বেলা ১২ টায় জাতীয় প্রেসক্লাব সম্মুখে দেশের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে নারী অধিকার ক্ষুন্ন, হিজাব ও ব্যক্তি স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ, ধর্মীয় সম্প্রীতি বিনষ্টের প্রতিবাদ ও দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে ইসলামী ছাত্র আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগর পূর্ব শাখার সভাপতি সাব্বির আহমাদের সভাপতিত্বে ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমানের সঞ্চালনায় ঢাকা মহানগর আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিল কর্মসূচিতে ইসলামী ছাত্র আন্দোলন বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি শরিফুল ইসলাম রিয়াদ এসব কথা বলেন।
তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে মুক্ত চিন্তার উন্মুক্ত প্রাঙ্গন দাবী করে বলেন, কোন আদর্শ ও মতকে দমিয়ে রাখা বিশ্ববিদ্যালয়ের নীতি বহির্ভূত। যে বিশ্ববিদ্যালয়ে কালমার্কস, লেনিন, মাও সেতুং চর্চা হতে পারে সে বিশ্ববিদ্যালয় মুহাম্মদ সা. ও ইসলামও চর্চা হবে। তা কেউ বাঁধাগ্রস্ত করতে পারবেনা। এ সময় তিনি সাম্প্রতিক ঘটনাসমূহের সুষ্ঠু তদন্ত ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টে তৎপর দুষ্কৃতকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।
সভাপতির বক্তব্যে সাব্বির বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ইসলামী ছাত্র আন্দোলন বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মুহাম্মদ ইবরাহীম হুসাইন মৃধা বলেন, আমরা বাংলাদেশে ধর্মীয় সম্প্রীতি দেখতে চাই। ইসলামী ছাত্র আন্দোলন বাংলাদেশ সকল মত ও দর্শনকে সম্মান করে। তাই সকল মত ও দর্শন চর্চার সমান সুযোগ সৃষ্টি করতে প্রশাসন ও সরকারকে পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ধর্মীয় স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ অসাংবিধানিক আচরণ
আরও পড়ুন