Inqilab Logo

রোববার, ২৬ জুন ২০২২, ১২ আষাঢ় ১৪২৯, ২৫ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

৫ দিনের ছুটি নিয়ে ২ বছর লাপাত্তা

সৈয়দপুর (নীলফামারী) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৬ এপ্রিল, ২০২২, ১২:০২ এএম

নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সিনিয়র নার্স শাহিনুর পারভীন ওরফে রোজী পাঁচদিনের ছুটি নিয়ে দুই বছর লাপাত্তা। অনিয়মতান্ত্রিকভাবে অনুপস্থিতির ওই অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তাকে বরখান্তের সিদ্ধান্ত নিয়েছে নার্সিং ও মিডওয়াইফারি অধিদপ্তর। গত সপ্তাহে তাকে এ সংক্রান্ত চিঠি দেয়া হয়েছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ওই নার্স গত ২০১৭ সালের ৭ ফেরুয়ারি সৈয়দপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে পাঁচদিনের ছুটি গ্রহণ করেন। এরপর দুই বছরের বেশি সময় কর্মস্থলে অনুপস্থিত ছিলেন। মাঝে কর্তৃপক্ষ অঅনুমোদিত অনুপস্থির কারণ জানতে চেয়ে একই বছর ২ এপ্রিল তার ঠিকানায় একটি দাপ্তরিকপত্র দেয়। ওই পত্রের কোনো জবাব দেয়া হয়নি। এরপর হঠাৎ ২০১৯ সালে ৭ জুলাই কর্মস্থলে যোগদানের জন্য একটি পত্র দেন তিনি (নার্স)।

এদিকে কর্মস্থলে অঅনুমোদিত কর্মস্থলে অনুপস্থিতির জন্য ওই নার্সের বিরুদ্ধে ২০১৯ সালের ১৩ অক্টোবর একটি বিভাগীয় মামলা হয়। ওই মামলায় ব্যক্তিগত শুনানিতে তিনি উপস্থিত হন ২৭ অক্টোবরে। তার জবাব সন্তোষজনক ছিল না। এতে প্রমাণিত হয় ওই সরকারি কর্মচারী অবৈধভাবে কর্মস্থলে অনুপস্থিত ছিলেন। ফলে তাকে বরখাস্তের (ডিসমিস) করার সিদ্ধান্ত নেয় কর্তৃপক্ষ। নার্সিং ও মিডওয়াইফারি অধিদপ্তর থেকে দেওয়া চিঠিতে স্বাক্ষর করেন সংশ্লিষ্ট অধিদপ্তরের অতিরিক্ত সচিব সিদ্দিকা আকতার। এনিয়ে ওই নার্স রোজীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি কোনো মন্তব্য করেননি।

সৈয়দপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আবু মো. আলেমুল বাসার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। সূত্র জানায়, ওই নার্স পাঁচদিনের ছুটি নিয়ে চীনে যান। সেখানে তিনি উচ্চশিক্ষা গ্রহণ করেনে এবং একটি প্রতিষ্ঠানে চাকরিও করেছেন। কিন্ত এদিকে নার্সের সকল সুযোগ-সুবিধাও নেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন