Inqilab Logo

রোববার, ২৬ জুন ২০২২, ১২ আষাঢ় ১৪২৯, ২৫ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

নতুন ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা পর্যবেক্ষণ কিমের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ এপ্রিল, ২০২২, ১২:০৩ এএম

উত্তর কোরিয়ার সামরিক বাহিনী নতুন করে একটি ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে। দেশটির সর্বোচ্চ নেতা কিং জং উনের তত্ত্বাবধানে এই পরীক্ষা চালানো হয়। উত্তর কোরিয়ার পরমাণু অস্ত্রের সক্ষমতা বাড়ানোর লক্ষ্য নিয়ে দেশটি নতুন এই ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করলো। উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা কোরিয়ান সেন্ট্রাল নিউজ এজেন্সি বা কেসিএনএ রোববার এ সম্পর্কে বলেছে, নতুন এই ট্যাকটিক্যাল গাইডেড ক্ষেপণাস্ত্রের বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে এবং দীর্ঘ পাল্লার যুদ্ধের ক্ষেত্রে এই ক্ষেপণাস্ত্র নাটকীয়ভাবে উত্তর কোরিয়ার সামরিক শক্তি বাড়িয়ে তুলবে। কেসিএন-এর রিপোর্টে বলা হয়েছে, উত্তর কোরিয়ার নেতা দেশের সামরিক বাহিনীকে প্রতিরক্ষা সক্ষমতা আরো জোরদার করার ব্যাপারে গুরুত্বপূর্ণ দিক নির্দেশনা দেয়ার পর এই পরীক্ষা চালানো হলো। কেসিএনএ আরো বলেছে, ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা সফল হয়েছে তবে কখন এবং কোথায় এই পরীক্ষা চালানো হয় সে সম্পর্কে বার্তা সংস্থাটি সুনির্দিষ্ট কোনো তথ্য দেয়নি। আমেরিকা এবং পশ্চিমা দেশগুলো যখন পরমাণু কর্মসূচির বিরোধিতা করে উত্তর কোরিয়ার ওপর দফায় দফায় কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করছে তখন তার বিপরীতে অবস্থান নিয়ে পিয়ংইয়ং সরকার ক্ষেপণাস্ত্র ও পরমাণু কর্মসূচি জোরদার করেছে। তারই অংশ হিসেবে গত কয়েক মাসে গুরুত্বপূর্ণ কিছু অস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে উত্তর কোরিয়া। দক্ষিণ কোরিয়ার সামরিক বাহিনীর প্রধান বলেছেন, তারা দুটো উড়ন্ত বস্তু শনাক্ত করেছেন যা ২৫ কিলোমিটার উচ্চতা দিয়ে উড়ে যায় এবং শব্দের চারগুণ গতিতে ১১০ কিলোমিটার দূরের লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানে। আমেরিকা ও দক্ষিণ কোরিয়ার যৌথ সামরিক মহড়া শুরুর কথা রয়েছে। তার আগ মুহূর্তে উত্তর কোরিয়া ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করলো। মনে করা হচ্ছে- এর মাধ্যমে উত্তর কোরিয়া দেশ দুটিকে বিশেষ বার্তা দিয়েছে। উত্তর কোরিয়া সবসময় বলছে, তার সমস্ত ক্ষেপণাস্ত্র ও পরমাণু কর্মসূচি আমেরিকাকে লক্ষ্য করে পরিচালিত হচ্ছে। কেসিএনএ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: উত্তর কোরিয়া


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ