Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০ আশ্বিন ১৪২৫, ১৪ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

ড. আব্দুর রাজ্জাককে দল থেকে বহিস্কার ও সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি-ওলামা লীগ ও অন্যান্য দলের নেতৃবৃন্দ

সুয়োমোটো রুল জারির আহ্বান

প্রকাশের সময় : ১৪ নভেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : আওয়ামী লীগের বিতর্কীত প্রেসিডিয়াম সদস্য এবং দুর্নীতির দায়ে মন্ত্রীত্ব হারানো আব্দুর রাজ্জাক কর্তৃক ‘সময় ও সুযোগ পেলে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাতিল করা হবে’-এ বক্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ করেছেন আওয়ামী ওলামা লীগ ও অন্যান্য ইসলামী দলের নেতৃবৃন্দ। এ বক্তব্যের প্রতিবাদে নেতৃবৃন্দ এ কুলাঙ্গারকে দল থেকে বহিস্কারসহ রাষ্ট্রধর্ম অবমাননার ফলশ্রুতিতে সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করেছেন। নেতৃবৃন্দ আব্দুর রাজ্জাকের আদালত অবমাননার দায়ে তার বিরুদ্ধে সুয়োমোটো রুল জারির জন্য সুপ্রিম কোর্টের প্রতি আহ্বান জানান।
আওয়ামী ওলামা লীগ
আওয়ামী ওলামা লীগের কার্যকরী সভাপতি আব্দুস সাত্তার, সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসান শেখ শরীয়তপুরি, সহ-সভাপতি হাফেজ মুসতফা চৌধুরী, মুফতি মাছুম বিল্লাহ নাফেয়ী ও মাওলানা শোয়াইব আহমদ গোপালগঞ্জী, হাফেজ মাওলানা আব্দুল জলীল গতকাল এক বিবৃতিতে বলেছেন, বাংলাদেশের ইতিহাসে এক অমার্জনীয় বিশ্বাসঘাতকতার ইতিহাসের বহিপ্রকাশ ঘটিয়ে আব্দুর রাজ্জাক তার বিশ্বাসঘাতকতার চেহারা উন্মোচন করেছে মিডিয়ার কাছে। আলোচনায় তিনি বলেছেন, সময়-সুযোগ পেলে রাষ্ট্রধর্ম তুলে দেয়া হবে। এ বক্তব্য আওয়ামী লীগের নয়। তবে এ ধরনের বক্তব্য দিয়ে আব্দুর রাজ্জাক ধর্ম-দেশ ও দলবিরোধী অবস্থান গ্রহণ করেছেন ।
নেতৃবৃন্দ বলেন, এ বক্তব্য আব্দুর রাজ্জাকের ব্যক্তিগত অপলাপ। কারণ, আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি ছিল কোরআন ও সুন্নাহবিরোধী কোনো আইন পাস করা হবে না।
এ ক্ষেত্রে নির্বাচনী প্রতিশ্রুতির বিপরীতে এই বক্তব্য দিয়ে আব্দুর রাজ্জাক নিজেকে চরম সাম্প্রদায়িক, দেশবিরোধী, দলবিরোধী এবং উগ্রহিন্দু সন্ত্রাসবাদীদের শ্রেণিভুক্ত প্রমাণ করলেন ।
এই আব্দুর রাজ্জাক ৯৫ শতাংশ মুসলমান জনগোষ্ঠীর ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করে ফৌজদারি অপরাধ করেছেন। এই বিতর্কীত আব্দুর রাজ্জাক দুর্নীতির দায়ে মন্ত্রীত্বও হারিয়েছিল। তাছাড়া আদালত কর্তৃক নিষ্পত্তিকৃত এই রাষ্ট্রধর্মের ইস্যু নিয়ে বিতর্কীত মন্তব্য করায় সে আদালত অবমাননা করেছে। নেতৃবৃন্দ এই কুলাঙ্গারকে দল থেকে বহিস্কারসহ রাষ্ট্রধর্ম অবমাননার ফলশ্রুতিতে সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করেছেন।
হক্কানী ত্বরিক্বত ফেডারেশন
হক্কানী ত্বরিক্বত ফেডারেশনের চেয়ারম্যান কাজী আহমদুর রহমান বলেন, সবকিছু একটি নির্দিষ্ট নাশকতার ছক অনুযায়ী করা হচ্ছে। প্রথমে নাসিরনগরে কাবাশরীফ অবমাননা হলো। ফেসবুকে কনক দাস কর্তৃক মুসলমানদের জানোয়ার বলে অভিহিত করা হলো, কতিপয় উগ্র হিন্দুর আইডি থেকে বিএনপিকে সরকারের বিরুদ্ধে এ্যাকশন নেয়ার জন্য বলা হলো। এরপর সর্বশেষ সংযোজন আব্দুর রাজ্জাক কর্তৃক রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম তুলে দেয়ার হুমকি। এর দ্বারা বুঝা যাচ্ছে, উগ্র পাকিস্তানের প্রেতাত্মারা সরকার উৎখাতের ষড়যন্ত্রে ব্যার্থ হয়ে কুচক্রিদেরকে সরকারের বিরুদ্ধে লেলিয়ে দিচ্ছে। সুতরাং এ চক্রান্তকারীদের সব ষড়যন্ত্র উদ্ঘাটনসহ এদের সর্বোচ্চ শাস্তি দিতে হবে, এবং আব্দুর রাজ্জাকের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার দায়ে বিচার করতে হবে।



 

Show all comments
  • মোহাম্মদ ১৮ নভেম্বর, ২০১৬, ৮:১৪ পিএম says : 0
    নমরুধ পারেনি ফেরাওন পারেনি ইসলামকে ধংস করতে ।ইনশাআল্লাহ এই রকম ...........রাও কিছু করতে পারবে না ।
    Total Reply(0) Reply
  • ১৮ নভেম্বর, ২০১৬, ৮:১৫ পিএম says : 0
    রাজজাক তুই পাগল
    Total Reply(0) Reply
  • ছাকিব ১৯ নভেম্বর, ২০১৬, ১:৩৭ পিএম says : 0
    এদের আচরণ অত্যন্ত দু:খজনক
    Total Reply(0) Reply
  • মোঃআমিনুল ইসলাম ১৯ নভেম্বর, ২০১৬, ৭:১১ পিএম says : 0
    আঃ রাজ্জাকের এহেন অপরাধের উপযুক্ত বিচার না হলে ইসলাম বিদ্ধেষী ও নাস্তিকরা আরও অধিক প্রশ্রয় পাবে।
    Total Reply(0) Reply
  • ২০ নভেম্বর, ২০১৬, ৬:৩৮ পিএম says : 0
    আল্লাহ তাকে উপযুক্ত শাস্তি প্রদান করুন আমিন।
    Total Reply(0) Reply
  • মোঃ মুন্নাফ হোসেন ১৪ নভেম্বর, ২০১৬, ৮:৪১ এএম says : 1
    আমি তাদের সাথে একমত
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammad faruk uddin ১৪ নভেম্বর, ২০১৬, ১১:১৩ এএম says : 0
    D.Abdur Razzak should kick out from party and Bangladesh both.
    Total Reply(0) Reply
  • Rasel ১৪ নভেম্বর, ২০১৬, ১:২৯ এএম says : 0
    i agree with them
    Total Reply(0) Reply
  • MD Yeahyea Hossain ১৪ নভেম্বর, ২০১৬, ১১:৩৩ এএম says : 1
    যদি ডঃ আঃ রাজ্জাককে দল থেকে বহিষ্কার করে শাস্তির আওতায় নিয়ে আসা হয়, তাহলে বুঝব এটা একান্তই তার ব্যাক্তিগত কথা। অন্যথায় রাজনৈতিক অনুষ্ঠানে কোন রাজনীতিবিদের বক্তৃতা কিভাবে ব্যাক্তিগত হয়???
    Total Reply(0) Reply
  • Sakhawat Hossain ১৪ নভেম্বর, ২০১৬, ১১:৩২ এএম says : 0
    যারা ইসলাম এর অবমাননা করবে কিংবা সংবিধান থেকে ইসলাম বাদ দিতে চায় তাদের শাস্তি হওয়া উচিত ।
    Total Reply(0) Reply
  • Alam Khan ১৪ নভেম্বর, ২০১৬, ১১:৪১ এএম says : 0
    Yes
    Total Reply(0) Reply
  • Iqbal Hossain ১৪ নভেম্বর, ২০১৬, ১১:৪৫ এএম says : 0
    রাজ্জাক সাহেব ফেসে গেছে।
    Total Reply(0) Reply
  • Nannu chowhan ১৪ নভেম্বর, ২০১৬, ১২:১৩ পিএম says : 0
    Really,this kind of ............ will hold those party, all of them will be ..........
    Total Reply(0) Reply
  • Al Amin ১৪ নভেম্বর, ২০১৬, ১২:৫৭ পিএম says : 0
    এ ধরনের বক্তব্য দিয়ে আব্দুর রাজ্জাক ধর্ম-দেশ ও দলবিরোধী অবস্থান গ্রহণ করেছেন । তাকে দল থেকে বের করে দেয়া হোক।
    Total Reply(0) Reply
  • বিপ্লব ১৪ নভেম্বর, ২০১৬, ৪:১১ পিএম says : 1
    সকল মুসলীম জনতার উচিত আব্দুর রাজ্জাকের এই বক্তব্যের প্রতিবাদ করা।
    Total Reply(0) Reply
  • delouar ১৪ নভেম্বর, ২০১৬, ৫:০৮ পিএম says : 0
    .......... দরকার নাই দেশে
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ