Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ১৬ আষাঢ় ১৪২৯, ২৯ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

আজানের সময় বাজানো যাবে না হনুমান চালিশা, মহারাষ্ট্রে বড় ঘোষণা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ এপ্রিল, ২০২২, ১:৪৬ পিএম

আজান বনাম হনুমান চালিশা বিতর্কের মাঝেই এবার নতুন নির্দেশিকা। এবার থেকে আজান চলাকালীন লাউডস্পিকারে আর বাজানো যাবে না হনুমান চালিশা। এমনটাই স্পষ্টভাবে জানাল নাসিক প্রশাসন।

নাসিক প্রশাসনের নির্দেশ অনুযায়ী, কেবলমাত্র আজান চালকালীনই নয়, মসজিদে নামাজের নির্দিষ্ট এই সময়ের ১৫ মিনিট আগে এবং ১৫ মিনিট পরেও হনুমান চালিশা বাজানো যাবে না। প্রশাসনের বক্তব্য, স্থিতাবস্থা বজায় রাখার জন্যই এই নির্দেশিকা জারি করা হচ্ছে। নাসিকের পুলিশ কমিশনার দীপক পাণ্ডে বলেন, ''লাউডস্পিকারে হনুমান চালিশা কিংবা ভজন বাজানোর জন্য আগে থেকে অনুমতি নিতে হবে। কিন্তু, আজানের ১৫ মিনিট আগে এবং ১৫ মিনিট পর এই অনুমতি দেওয়া হবে না। মসজিদের ১০০ মিটারের মধ্যেও লাউডস্পিকারে হনুমান চালিশা বাজানো যাবে না।''

প্রসঙ্গত, আজানের সময় লাউডস্পিকারে হনুমান চালিশা বাজানোর দাবি নিয়ে দেশজুড়ে চলছে বিতর্ক। এরই মাঝে সোমবার নাসিক প্রশাসনের এই নির্দেশিকা নতুন করে বিতর্কের জন্ম দেবে বলেই মনে করা হচ্ছে। মহারাষ্ট্র এবং কর্নাটকে মাইক বাজিয়ে আজানের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করারও দাবি উঠেছিল আগেই। বারাণসীর বাসিন্দা সুধীর সিং মাইকে আজান নিয়ে বিতর্কের মাঝেই নিজের বাড়ির ছাদে লাউডস্পিকার লাগিয়ে হনুমান চলিশা পাঠ করা শুরু করেছেন।

সুধীরের দাবি, তিনি একজন বিজেপি কর্মী। তার সঙ্গে অন্য বেশ কয়েকজন যুবকও মাইক লাগিয়ে হনুমান চলিশা পাঠ করেন। পরে সেই ঘটনার ছবি ও ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। সূত্রের দাবি, ঠিক যে সময় স্থানীয় মসজিদে আজান শুরু হয়, একেবারে তখনই ছাদে উঠে হনুমান চলিশা পাঠ করেন সুধীর ও তার অনুগামীরা। সূত্র: টিওআই।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আজান

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ