Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ১৬ আষাঢ় ১৪২৯, ২৯ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

সোনারগাঁওয়ে সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে মানববন্ধন কর্মসূচী

নারায়ণগঞ্জ জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৯ এপ্রিল, ২০২২, ৪:৪৯ পিএম

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেছে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি সোনারগাঁও উপজেলা শাখা।

মঙ্গলবার দুপুর ১২ টায় সোনারগাঁও উপজেলা কার্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি সোনারগাঁও উপজেলা শাখার সভাপতি শেখ এনামুল হক বিদ্যুৎ এর সভাপতিত্বে মানববন্ধন কর্মসূচী অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির জেলা সভাপতি বাবু চন্দন শীল।

আরও উপস্থিত ছিলেন একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি সোনারগাঁও উপজেলা শাখার সহ-সভাপতি সফিকুল ইসলাম ইমাম, সাধারণ সম্পাদক গোলজার হোসেন ভুঁইয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক শওকত ওসমান সরকার রিপন, সদস্য নির্মল কুমার সাহা, শিশির, নারী নেত্রী নীলা আক্তার নিশিসহ কমিটির অন্যান্য সদস্যরা।

মানববন্ধন কর্মসূচির প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল “ধর্ম নিরপেক্ষ মানবিক সমাজ গড়ে তুলুন, সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে সোচ্চার আমরা”।

প্রধান অতিথি বাবু চন্দন শীল তার বক্তব্যে বলেন, সোনারগাঁওয়ে সাম্প্রদায়িক অপশক্তির হাতকে ঘুরিয়ে দেয়ার জন্য ধর্ম নিরপেক্ষ মানবিক সমাজ গঠনে আজকে আমাদের এই মানববন্ধন। সাম্প্রতিক সময়ে সোনারগাঁওয়ে পহেলা বৈশাখ উদযাপনকে কেন্দ্র করে উস্কানিমূলক মন্তব্য করে একটি কুচক্রী মহল মানুষের মধ্যে সম্প্রীতি নষ্ট করার পাঁয়তারা করছে। তাদেরকে হুঁশিয়ার করে দিচ্ছি, পরবর্তীতে যদি এমন কোনো উস্কানি দেয়া হয়, তাহলে তাদের দাঁত ভাঙ্গা জবাব দেয়া হবে।

এছাড়া মঙ্গল শোভাযাত্রা ও পহেলা বৈশাখ উদযাপন নিয়ে উষ্কানিমূলক মন্তব্য ও ধর্ম নিরপেক্ষ সম্প্রীতি নষ্ট করার জন্য সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে সাংস্কৃতিক লড়াই চলবে বলেও বক্তারা জানান।

বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের সদস্য ও জেলা মহিলা শ্রমিকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদিকা নীলা আহমেদ নিশি বলেন, সোনারগাঁওয়ের মাটিতে মৌলবাদীদের কোন ঠাঁই নেই। জনৈক সাংবাদিক ধর্মান্ধতার পরিচয়ে ধর্মীয় সম্প্রীতি নষ্টের জন্য উস্কানিমূলক বক্তব্য দিয়েছেন, যা বাঙালি জাতির ঐতিহ্য মঙ্গল শোভাযাত্রা উদযাপন বিরোধী। আমরা সমাজের সুশীল সমাজের পক্ষ থেকে এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। জনৈক সাংবাদিক যে নিন্দিত কাজ করেছেন তার সুষ্ঠু বিচারের দাবী জানাই।

উল্লেখ্য, গত ১৪ এপ্রিল প্রথম আলোর সোনারগাঁও প্রতিনিধি তার নিজস্ব ফেসবুক আইডির টাইম লাইনে একটি স্ট্যাটাস দেন। তাতে তিনি উল্লেখ করেন, পবিত্র রমজান মাস চলছে -আজ অনেকেই হয়তো ভুলেই গেছেন। নববর্ষ উদযাপনের নামে আজ যেভাবে অশ্লীলতা ও বেহায়াপনা করে রমজানের পবিত্রতা নষ্ট করা হলো তা দেখে মনটা ভীষণ খারাপ হয়ে গেল, সোনারগাঁয়ের কয়েকজন জনপ্রতিনিধি, শিক্ষক ও সরকারি কর্মকর্তার বেহায়াপনার ছবি আজ ভাইরাল হয়েছে। সর্বত্র চলছে সমালোচনার ঝড়”। ধর্মীয় সাম্প্রদায়িক উস্কানি দেয়ার অভিযোগ উঠে প্রথম আলোর সাংবাদিকের বিরনুদ্ধে।

জানা গেছে, দৈনিক প্রথম আলোর প্রতিনিধির বিরুদ্ধে সাধারণ মুসলমানদের উত্তেজিত করে তুলে ধর্মীয় উস্কানি দিয়ে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা সৃষ্টি করার পাঁয়তারার অভিযোগ উঠেছে। তার এমন বক্তব্যের প্রতিবাদে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি সোনারগাঁও উপজেলা শাখা মানববন্ধন কর্মসুচি পালন করে।



 

Show all comments
  • jack ali ১৯ এপ্রিল, ২০২২, ৫:০৯ পিএম says : 0
    তোমরা তো ইবলিশের দালাল চোখ বুজে দেখো কোথায় গেছ তোমরা এখনো সময় আছে আল্লাহর রাস্তায় আসো দেশটাকে আল্লাহর আইন দিয়ে শাসন কর তাহলে সবাই শান্তিতে বসবাস করবে
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মানববন্ধন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ