Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৪ আশ্বিন ১৪২৫, ৮ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

নিরাপদে থাকার অ্যাপ

প্রকাশের সময় : ১৫ নভেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইমরান খান

সম্প্রতি অনেকেই মোবাইল ফোনে তথ্য দিন, সেবা নিন, নিরাপদে থাকুন এ স্লোগানে একটি বার্তা পান। বাংলাদেশ পুলিশের পাঠানো ওই বার্তায় গুগলের প্লে স্টোর ও অ্যাপল অ্যাপ স্টোর থেকে ‘বিডি পুলিশ হেল্প লাইন’ নামের একটি অ্যাপ ডাউনলোডের জন্য বলা হয়। বাংলাদেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পক্ষ থেকে নাগরিকদের জন্য এ ধরনের গুরুত্বপূর্ণ অ্যাপ্লিকেশন উন্মুক্ত করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে রিপোর্ট টু র‌্যাব, হ্যালো সিটি ও পুলিশ হেল্প লাইন। গত আগস্ট মাসে অপরাধমূলক কর্মকান্ডের তথ্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কাছে সরাসরি জানাতে দুটি স্মার্টফোন অ্যাপ্লিকেশন প্রকাশ করে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) ও ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) বিভাগ।

রিপোর্ট টু র‌্যাব
র‌্যাবের অ্যাপে তথ্য জানানোর পাশাপাশি ছবি বা ভিডিও দিয়েও সহায়তা করা যায়। তথ্য জানানোর সময় অপরাধের ধরন, ঘটনাস্থলের ঠিকানা ও বিবরণ উল্লেখ করে দিতে হয়। র‌্যাবের ১৪টি জোনের মুঠোফোন নম্বর পাওয়া যায় এই অ্যাপে। অ্যাপটিতে ইতিমধ্যে অ্যাপটিতে ১৪ হাজারের মতো ‘নক’ হয়েছে। অ্যাপটির মাধ্যমে ইভ টিজিং, মাদক, সন্ত্রাসবিষয়ক নানা তথ্য এসেছে। সে হিসেবে জনগণের সাড়া ভালো। মানুষ অ্যাপটিকে ‘সিরিয়াস’ ভাবে নিচ্ছে। অবশ্য র‌্যাবের এখতিয়ারের বাইরের কিছু বিষয় যেমন জমিজমা-সংক্রান্ত বিষয়েও অভিযোগ দিয়েছে। কেউ কেউ অসম্পূর্ণ তথ্য দিয়েছেন। র‌্যাব জানায়, অ্যাপটির মাধ্যমে যত অভিযোগ এসেছে, তা যাচাই-বাছাইয়ের ভিত্তিতে ৬০ শতাংশ ক্ষেত্রে র‌্যাব সাড়া দিয়েছে। রিপোর্ট টু র‌্যাব অ্যাপ ডাউনলোড করুন (যঃঃঢ়ং://মড়ড়.মষ/মতঠঐঅঁ)

হ্যালো সিটি
জঙ্গিবাদ, উগ্রবাদ, সাইবার ক্রাইম, বোমা-বিস্ফোরক, অস্ত্র, মাদক, আন্তদেশীয় অপরাধ, জালিয়াতি ও মোস্ট ওয়ান্টেড-‘হ্যালো সিটি’ অ্যাপের মাধ্যমে এই বিভাগগুলোতে পুলিশের সিটিটিসিকে অপরাধের তথ্য দেওয়া যায়। এই অ্যাপে তথ্য জানানোর পাশাপাশি ছবি, অডিও ও ভিডিও ফাইল দেওয়া যায়। নিজের নাম প্রকাশ না করেও তথ্য দেওয়ার সুবিধা রাখা হয়েছে হ্যালো সিটি অ্যাপে। হ্যালো সিটি অ্যাপ ডাউনলোড করুন (যঃঃঢ়ং://মড়ড়.মষ/ওীঈুঊ৮)

বিডি পুলিশ হেল্প লাইন
গুগল প্লে স্টোরের যোগাযোগ বিভাগে থাকা অ্যাপটি ডাউনলোড সংখ্যা ৫ হাজার থেকে ১০ হাজারের মধ্যে। বাংলাদেশ পুলিশের কার্যক্রমে গতিশীলতা ও স্বচ্ছতা নিশ্চিত করতে ‘বিডি পুলিশ হেল্প লাইন’ নামের নতুন অ্যাপটির উদ্বোধন করা হয় ১৩ অক্টোবর। পুলিশ সদর দপ্তরে অ্যাপটি উদ্বোধনের সময় পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) এ কে এম শহীদুল হক বলেন, অ্যাপটির মাধ্যমে কোনো অভিযোগ করলে, তা সংশ্লিষ্ট থানা থেকে শুরু করে পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সে পর্যন্ত পৌঁছে যাবে। একইভাবে মেট্রোপলিটন এলাকায় কোনো অভিযোগ করা হলে অভিযোগটি সংশ্লিষ্ট ওসি, জোনাল এসি, উপকমিশনার (ডিসি), পুলিশ কমিশনার ও পুলিশ সদর দপ্তরে আসবে। এতে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা তদারকি করতে পারবেন। এবং অভিযোগের বিষয়ে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে কি না, সেটিও সংশ্লিষ্ট ওসি এই অ্যাপের মাধ্যমে জানিয়ে দেবেন। অভিযোগকারী ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা অভিযোগের ব্যবস্থা সম্পর্কে জানতে পারবেন। এতে জবাবদিহি নিশ্চিত হবে। শুরুতে ময়মনসিংহ ও জামালপুরে পাইলট প্রকল্প শেষ করে অ্যাপটি সারা দেশে চালু করা হয়। ব্যবহারকারীরা বেনামে অথবা নির্দিষ্ট নাম ও পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে অ্যাপটি ব্যবহার করতে পারবেন। বিডি পুলিশ হেল্প লাইন অ্যাপ ডাউনলোড করুন (যঃঃঢ়ং://মড়ড়.মষ/ভএাজ৫৬)।

জরুরি সেবা দিতে ৯৯৯
নাগরিকদের জরুরি প্রয়োজনে তাৎক্ষণিক সহায়তা দিতে ন্যাশনাল হেল্প ডেস্ক (৯৯৯ অ্যাপ ও ওয়েবসাইট) চালু করেছে সরকার। এ থেকে যে কেউ বিভিন্ন ধরনের নাগরিক সেবা পাবেন। তথ্য ও যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা আবু নাছের বলেন, বর্তমানে সকাল ৭টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত এই সেবা কার্যক্রম পরীক্ষামূলকভাবে চলছে। আগামী সপ্তাহ থেকে এটি ২৪ ঘণ্টা চালু থাকবে। আবু নাছের জানান, ছয় মাস পরে জনগণের চাহিদা মোতাবেক এ সেবার সঙ্গে আরো নানা বিষয় যুক্ত করা হবে। আগামী বছরে ভয়েস সার্ভিসসহ পুরোদমে চালু হবে এটি। এখন এ সেবা শুধু ঢাকাকেন্দ্রিক হলেও পরে তা সারা দেশে বিস্তৃত হবে। বিশ্বের বিভিন্ন উন্নত দেশে এ ধরনের সেবা চালু আছে। সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ পরিচালিত একটি পাইলট কর্মসূচির আওতায় বাংলাদেশে সেবাটি চালু হয়েছে। তিনি বলেন, পরীক্ষামূলক অবস্থাতে সীমিত আকারে পুলিশি সহায়তা, ফায়ার সার্ভিস ও অ্যাম্বুলেন্স সেবা দেওয়া হচ্ছে। এতে অনেকে উপকৃত হচ্ছেন। মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা যায়, এই মোবাইল অ্যাপে সরাসরি ফোন, লাইভ চ্যাট, বিভিন্ন তথ্য খোঁজার জন্য সার্চ করা যাবে। নাগরিকদের জরুরি প্রয়োজনে পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস চালু হয়েছে। বাংলাদেশ পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তর, বেসরকারি প্রতিষ্ঠান প্লাস ওয়ানের সেবাগুলোর সমন্বয়ে এ কার্যক্রম পরিচালিত হবে। এ ছাড়া এই অ্যাপ ও ওয়েবসাইটের মাধ্যমে প্রয়োজনে জরুরি সেবার বিভিন্ন তথ্য লোকেশনসহ জানা যাবে। কল সেন্টারের মাধ্যমে শুধু জরুরি সেবা পাওয়া গেলেও ৯৯৯ হেল্প ডেস্কের ডিজিটাল মাধ্যম অ্যাপ বা ওয়েবসাইটে (যঃঃঢ়://হযফ.মড়া.নফ/) জরুরি সেবা ছাড়াও সাধারণ সরকারি সেবা, জীবন ও জীবিকা বিষয়ক নানা তথ্য ও সেবা পাওয়া যাবে। সম্প্রতি ঢাকায় অনুষ্ঠিত ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডের সমাপনী অনুষ্ঠানে উন্মোচন করা হয় ন্যাশনাল হেল্প ডেস্কের অ্যাপ ও ওয়েবসাইট। অনলাইনে যঃঃঢ়://নরঃ.ষু/২ভয়হযবু লিংক থেকে এই অ্যাপ ডাউনলোড করে এ সেবা নেওয়া যাবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ