Inqilab Logo

রোববার, ২৯ জানুয়ারি ২০২৩, ১৫ মাঘ ১৪২৯, ০৬ রজব ১৪৪৪ হিজিরী
শিরোনাম

প্রচণ্ড বাতাসে যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ পশ্চিমে ধাবমান দাবানল

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৪ এপ্রিল, ২০২২, ১২:১১ এএম

প্রচণ্ড বাতাস দাবানলকে নিউ মেক্সিকোর উত্তরাঞ্চলের গ্রামগুলোর দিকে তাড়িয়ে নিয়ে যাওয়ায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে হাজার হাজার মানুষ বাড়িঘর ছেড়ে পালিয়ে যেতে বাধ্য হয়েছে। স্থানীয় কর্তৃপক্ষের মতে, ৬০ মাইল (৯৭ কিলোমিটার) এর বেশি বেগে বাতাসের ঝোড়ো হাওয়ায় চালিত সান্তা ফে থেকে ৩০ মাইল উত্তর-পূর্বে পাহাড়ে দুটি দাবানল মিশে যাওয়ায় এক ডজনেরও বেশি ছোট সম্প্রদায়কে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।
আগুন লাগা এলাকা সান মিগুয়েল কাউন্টির একজন মুখপাত্র জয় আনসলে বলেছেন, ‘এটি হৃদয়বিদারক, এটি ভয়ঙ্কর। আমরা লোকেদের বের হয়ে আসার পরে ফিরে আসতে দিচ্ছি না, এটি একটি খুব গুরুতর, একটি অত্যন্ত ভয়াবহ পরিস্থিতি’।

ইনসিওয়েব ফায়ার ট্র্যাকিং সাইট অনুসারে তথাকথিত কাফ ক্যানিয়ন এবং হারমিটস পিক দাবানল লাস ভেগাস, নিউ মেক্সিকো থেকে প্রায় ১২ মাইল উত্তর-পশ্চিমে মিলিত হয়েছিল। অগ্নিকাণ্ডগুলো মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ-পশ্চিম জুড়ে এক ডজনেরও বেশি এলাকাজুড়ে জ্বলছে, কারণ এক দশকের দীর্ঘ খরা এবং প্রচুর শুষ্ক গাছপালা একত্রিত হয়েছিল। কাফ ক্যানিয়ন আগুনের বিষয়ে টার্নার বলেন, ‘অনেক বাড়িঘর, ভবন ক্ষতিগ্রস্ত হবে, এটা খুবই বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি’।

জীববিজ্ঞানীদের মতে, ক্রমবর্ধমান তাপমাত্রা শীতের তুষারপ্যাকগুলোকে কমিয়ে দিয়েছে এবং বছরের শুরুতে বড় এবং আরো চরম দাবানল শুরু করার সুযোগ দিয়েছে। আবহাওয়া বিজ্ঞানীদের মতে, মানব সৃষ্ট আবহাওয়া পরিবর্তনের কারণে দীর্ঘায়িত খরা তীব্রতর হয়েছে।
দক্ষিণ নিউ মেক্সিকোতে লিঙ্কন ন্যাশনাল ফরেস্টের মুখপাত্র লরা রাবন বলেছেন, ‘নিউ মেক্সিকোতে এখন একাধিক দাবানল চলছে, অ্যারিজোনায় একাধিক দাবানল চলছে এবং এটি এই মওসুমের প্রথম দিকের জন্য অস্বাভাবিক’। এখানে গত সপ্তাহে আগুনে দুইজন মারা গেছে। সূত্র : রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: দাবানল


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ