Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ১৬ আষাঢ় ১৪২৯, ২৯ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

কলেজ ছাত্রকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন : ছাত্রলীগনেতা আকিব বহিষ্কার

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ এপ্রিল, ২০২২, ১২:২৪ পিএম

সাতক্ষীরার তালা উপজেলায় কলেজ ছাত্রকে বিবস্ত্র ও ন্যাড়া করে দৈহিক নির্যাতনের ঘটনায় তালা সদর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক আহ্বায়ক ও উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ আকিবুর রহমানকে সংগঠন থেকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।

গত সোমবার রাতে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আশিকুজ্জামান ও সাধারণ সম্পাদক সুমন রহমান স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়। সৈয়দ আকিবুর রহমানকে স্থায়ী বহিষ্কারের জন্য জেলা ছাত্রলীগ কেন্দ্রে সুপারিশ পাঠিয়েছে।

এদিকে, কলেজছাত্রকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের পর থেকে হুমকির মুখে রয়েছে ওই ছাত্র ও তাঁর পরিবার। অভিযুক্ত ছাত্রলীগনেতা সৈয়দ আকিব ও তার অনুসারীরা হুমকি দিচ্ছেন।

এ বিষয়ে নির্যাতনের শিকার কলেজছাত্রের বাবা ও মা জানান, তাঁদের ছেলের কাছে তিন লাখ টাকার বেশি মূল্যের একটি মোটরসাইকেল ছিল। ওই মোটরসাইকেলটি ছিনিয়ে নিতে নির্যাতন করা হয়েছে। এমনকি, হত্যারও চেষ্টা চালানো হয়।

ভুক্তভোগীর মা-বাবা আরও বলেন, ‘আমরা ছেলেটিকে নিয়ে আতঙ্কের মধ্যে আছি। ছেলেটি মানসিকভাবে এতই বিধ্বস্ত হয়ে পড়েছে যে, যেকোনো অঘটনের আশঙ্কায় আমাদের সতর্ক থাকতে হচ্ছে। এর মধ্যেই আছে হুমকি-ধমকি।’

যদিও পুলিশ বলছে, ছাত্রলীগনেতা আকিবের সঙ্গে একটি মেয়ের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। কোনো কারণে সে সম্পর্ক ভেঙে গেলে মেয়েটির সঙ্গে নির্যাতনের শিকার কালেজছাত্রের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। আর এ কারণে প্রতিশোধ নেওয়ার জন্য সৈয়দ আকিব তাঁর সহযোগীদের নিয়ে ওই শিক্ষার্থীকে অপহরণ করেন। পরে তাঁকে বিবস্ত্র ও ন্যাড়া করে দৈহিক নির্যাতন করেন। নির্যাতনকারীরা মুঠোফোনে শিক্ষার্থীর মায়ের কাছে দুই লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে।

জানতে চাইলে তালা থানার পুলিশ পরিদর্শক আবুল কালাম আজাদ এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘এ ঘটনায় দায়ের করা মামলার পাঁচ আসামি সৈয়দ আকিব, শ্রমিকলীগনেতা সৌমিত্র চক্রবর্তী, নাহিদ হাসান উৎস্য, জয় ও সজীবকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।’

গত রোববার দুপুর ১টায় ওই কলেজছাত্রের বন্ধু তাঁকে মোবাইল ফোনে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। পরে তালা সরকারি কলেজ হোস্টেলের একটি কক্ষে নিয়ে তাঁর ওপর নির্যাতন চালায় সৈয়দ আকিব, সৌমিত্র চক্রবর্তীসহ পাঁচ জন।

পরে তাঁরা কলেজছাত্রের মাথার চুল কেটে ন্যাড়া করে দেন এবং বিবস্ত্র করে নির্যাতন করেন। নির্বাচনের ঘটনা ভিডিও করেন। এ ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে মুঠোফোনে কলেজছাত্রের মায়ের কাছে দুই লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করেন।

টানা চার ঘণ্টা নির্যাতনের পর এ খবর পৌঁছে কলেজছাত্রের বাবার কাছে। পরে তাকে উদ্ধার করে তালা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান স্বজনেরা। কিন্তু, সেখানেও ছাত্রলীগনেতা আকিবসহ তার সহযোগীরা ফের হুমকি দেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বহিষ্কার


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ