Inqilab Logo

বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২, ২২ আষাঢ় ১৪২৯, ০৬ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

অ্যাম্বারকে নির্যাতনের অভিযোগ অস্বীকার করলেন জনি ডেপ

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ এপ্রিল, ২০২২, ২:২৬ পিএম | আপডেট : ২:৩১ পিএম, ২৭ এপ্রিল, ২০২২

সাবেক স্ত্রী অ্যাম্বার হার্ডের বিরুদ্ধে আইনি লড়াইয়ে নেমেছেন হলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা জনি ডেপ। মামলাটির বিচার কার্যক্রমের অংশ হিসেবে গেল মঙ্গলবার থেকে জনি ডেপের সাক্ষ্য গ্রহণ হয়েছে ভার্জিনিয়ায়। প্রায় তিন ঘণ্টার সাক্ষ্যতে জনি ডেপ অ্যাম্বার হার্ডের সঙ্গে তার সম্পর্কের বিষয়ে বিশদভাবে কথা বলেছেন। আদালতে দাঁড়িয়ে জনি ডেপ বলেছেন, তিনি কখনই কোনো নারীকে আঘাত করেননি।

সাক্ষ্যতে জনি ডেপ বলেন, ‘হার্ডকে আঘাত করার অভিযোগের বিষয়টি কিছুতেই আমি বুঝতে পারছি না, আমি কখনোই কোনো নারীকে আঘাত করিনি।’

২০১৮ সালে ওয়াশিংটন পোস্টে একটা লেখা লিখেছিলেন অ্যাম্বার হার্ড৷ সেই লেখায় ২৩ বছরের বড় সাবেক স্বামীর বিরুদ্ধে শারীরিক, মানসিক ও যৌন নির্যাতনের অভিযোগ তুলেছিলেন অ্যাম্বার হার্ড৷

জনি ডেপ আরো বলেন, ‘অ্যাম্বারের ওই লেখা প্রকাশিত হওয়ার পর আমার প্রতি মানুষের দৃষ্টিভঙ্গি বদলে গেছে। উপেক্ষা করেছে হলিউড। আমি চাই, সত্যটা সামনে আসুক।’

আদালতে ডেপ আরও জানান, ঝগড়ার সময় হার্ডই প্রথম তাকে থাপ্পড় বা ধাক্কা দিতে এগিয়ে আসতেন। অ্যাম্বার হার্ড তাকে ফাঁসিয়ে দেয়ার জন্য প্রযুক্তির সহায়তায় মিথ্যা ছবি বানিয়েছেন। শুধু তাই নয়, অ্যাম্বার জনির হাতে মদের বোতল ছুড়ে মেরেছিলেন। আঙুলে আঘাত পাওয়ার প্রমাণও আছে অভিনেতার কাছে।

উল্লেখ্য, হলিউড তারকা জনি ডেপ ও অ্যাম্বার হার্ড ২০১৫ সালে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হলেও ২০১৬ সালে জনি ডেপের বিরুদ্ধে শারীরিক ও যৌন হেনস্তার অভিযোগ এনে আদালতে ডিভোর্সের আবেদন করেন অ্যাম্বার হার্ড। স্ত্রীর সেই অভিযোগ অস্বীকার করলেও ৭ মিলিয়ন মার্কিন ডলার খরচ করে বিচ্ছেদের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেন জনি ডেপ। সেই সময়ে আদালতের কাছে দুইজন প্রতিজ্ঞা করেছিলেন যে, ভবিষ্যতে তাদের দাম্পত্য জীবন নিয়ে জনসম্মুখে আর কোনো ধরনের আলোচনা করবেন না তারা।

কিন্তু ২০১৮ সালে যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন পোস্টের কাছে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে প্রাক্তন স্বামী জনি ডেপের বিরুদ্ধে আবারও শারীরিক ও যৌন নির্যাতনের অভিযোগ করেন তার সাবেক স্ত্রী অ্যাম্বার হার্ড। এ কারণেই পরবর্তীতে ব্যক্তিগত আইনজীবীর সহায়তায় মানহানির মামলা করেছিলেন জনি ডেপ। অ্যাম্বারের বিরুদ্ধে ৫০ মিলিয়ন ডলারের মানহানির মামলা করেন জনি ডেপ। ওই মামলার পর ১০০ মিলিয়ন ডলারের পাল্টা মামলা করেন অ্যাম্বার।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: হলিউড

১ জুলাই, ২০২২
২৪ জুন, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন