Inqilab Logo

সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ২০ আষাঢ় ১৪২৯, ০৪ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

রামেক হাসপাতালে ডায়রিয়া রোগী কমছেই না

রাজশাহী ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৯ এপ্রিল, ২০২২, ১২:৫০ পিএম

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা কমছেই না। গত মার্চের শুরু থেকেই এখানে ডায়রিয়া রোগী ভর্তি হতে শুরু করেছে। শুক্রবারও শতাধিক ডায়রিয়া রোগী দেখা গেছে। মেডিসিন ওয়ার্ডগুলোর বারান্দায় রেখে ডায়রিয়া রোগীদের চিকিৎসা চলছে।

হাসপাতালে গিয়ে দেখা যায়, ওয়ার্ডের সামনে বারন্দায় বিছানা পেতে ডায়রিয়া রোগীরা শুয়ে আছেন। রোগীরা জানান, ঈদের কারণে হাসপাতালে সাধারণ রোগীর চাপ কমেছে। ওয়ার্ডে বেড ফাঁকা আছে। কিন্তু ডায়রিয়া রোগীদের বেড দেওয়া হচ্ছে না। ভেতরে মেঝেতেও ডায়রিয়া রোগীকে রাখা হচ্ছে না। ওয়ার্ডের বাইরে একেবারে বারান্দায় ডায়রিয়া রোগীদের রাখা হচ্ছে।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়, গত মার্চ মাসে এখানে এক হাজার ৬৩৫ জন ডায়রিয়া রোগী ভর্তি হয়েছেন। সবশেষ শুক্রবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ১২৬ জন রোগী ভর্তি ছিলেন। এর আগের ২৪ ঘণ্টায় এখানে নতুন ৬১ জন ডায়রিয়া রোগী ভর্তি হয়েছেন। ওই ২৪ ঘণ্টায় ছাড়পত্র পেয়েছেন ৫৪ জন। পানিশূন্যতা দূর করতে নতুন রোগীদের সবাইকেই চারটি থেকে সাতটি পর্যন্ত স্যালাইন দিতে হচ্ছে।

হাসপাতালের দেওয়া তথ্যমতে, চলতি মাসের ১৬ তারিখে হাসপাতালে সর্বোচ্চ ২০৭ জন ডায়রিয়া রোগী ভর্তি ছিলেন। ২১ এপ্রিল রোগী কমে ১৩৭ জন হয়েছিল। কিন্তু ২৩ এপ্রিলেই রোগী বেড়ে ১৭৮ জন হয়। ২৬ এপ্রিল ভর্তি ছিলেন ১৪৭ জন। বৃহস্পতিবার ভর্তি ছিলেন ১১৯ জন। শুক্রবার রোগী বেড়ে হয় ১২৬ জন। হাসপাতালের বহির্বিভাগেও প্রতিদিন ৬০ থেকে ৭০ জন ডায়রিয়া রোগী চিকিৎসা নিচ্ছেন।

হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী বলেন, মূলত তীব্র গরমের কারণেই ডায়রিয়া কমছে না। মাঝে একবার বৃষ্টি হলো, তখন দু’একদিনের জন্য ডায়রিয়া রোগী কমেছিল। আবার বেড়ে গেছে। রোজা শেষ হলে মানুষের ইফতারের সময় বাইরের খোলামেলা খাবার খাওয়া বন্ধ হবে। তখন পরিস্থিতির উন্নতি হতে পারে।

হাসপাতালের পরিচালক বলেন, ডায়রিয়া রোগী বেশি হলেও চিকিৎসা দিতে সমস্যা হচ্ছে না। পর্যাপ্ত চিকিৎসক-নার্স আছেন। রোগীরা বিনামূল্যে স্যালাইনও পাচ্ছেন। এই ঈদেও হাসপাতালে প্রয়োজনীয় চিকিৎসক-নার্স থাকবেন। ঈদের ছুটিতে অন্তত একদিন বহির্বিভাগ খুলে চিকিৎসা দেওয়ার বিষয়েও চিন্তাভাবনা চলছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রামেক হাসপাতাল


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ