Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ১৬ আষাঢ় ১৪২৯, ২৯ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

মানুষের কষ্টে আনন্দ পায় আওয়ামী লীগ: রিজভী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩ মে, ২০২২, ৩:৩০ পিএম

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, আওয়ামী লীগ মানুষের কষ্টে আনন্দ পায় এবং উল্লাস করে। আর বিএনপি মানুষের দুর্ভোগে সহমর্মিতা প্রকাশ করে। ফলে ঘরমুখো মানুষের দুর্ভোগে বিএনপির কষ্ট হয়। আজ সোমবার দুপুরে এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। জাসাসের উদ্যোগে গরিব মানুষের মাঝে রান্না করা খাবার বিতরণ করেন রুহুল কবির রিজভী। এসময় বিএনপির স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরফত আলী সপু, সহ প্রচার সম্পাদক আমিরুল ইসলাম খান আলিম, জাসাসের জাকির হোসেন রোকন, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য তারিকুল আলম তেনজিং, আবদুস সাত্তার পাটোয়ারী, জাসাস নেতা শওকত সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

রাজধানীর নয়া পল্টনে ভাসানী ভবনে খাবার বিতরণকালে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে রিজভী বলেন, বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান ও চেয়ারপারসন এবং সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের আদর্শে আমরা অনুপ্রাণিত। ঝড় কিংবা জলোচ্ছ্বাস যেকোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগে বিএনপি গরিব অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ায়।

তিনি বলেন, মহামারী করোনা ভাইরাসের সময় মানুষ যখন ঘর থেকে বের হতে ভয় পেতো বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা গারিব মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। আজকে ঈদের সময় ঘরে মানুষের চরম দুর্ভোগেও সরকারের মন্ত্রী এমপিরা উপহাস করেছে।

রিজভী বলেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন এবারে মানুষের দুর্ভোগ নেই বলে বিএনপির কষ্ট হচ্ছে। আরে বিএনপি কষ্ট পাবে কেনো? বিএনপি তো মানুষের দুর্ভোগে সংহতি জানায়। আমি আজকেও খবর পেলাম অনেক জায়গায় মানুষ বাড়িতে পৌঁছাতে পারেনি। আর আপনি ডাহা মিথ্যাচার করেছেন। আপনার গাড়ির সামনে তো থাকে পুলিশের গাড়ি। তারা হুইসেল দিয়ে আপনাকে নিয়ে যায়। সাধারণ মানুষ বাসে, ট্রেনে বা লঞ্চে গাদাগাদি করে বাড়িতে যাচ্ছে। আর আপনি তাদের নিয়ে উপহাস করছেন।

তিনি বলেন, আরে আপনারা তো মানুষের কষ্ট বুঝেন না। আজকে বাজারে সয়াবিন তেল নেই। গতকাল মানুষ হন্যে হয়ে খুঁজছে কিন্তু সয়াবিন তেল পায়নি। আর বলেন বিএনপি কষ্ট পায়! আসলে প্রধানমন্ত্রীর লোকেরা সিন্ডিকেট করে বাজার থেকে সয়াবিন তেল উধাও করে দিয়েছে। যাতে সাধারণ গরিব মানুষ কিনতে না পারে এবং পরবর্তীতে চড়া দামে বিক্রি করতে পারে। এজন্য সম্পূর্ণ দায়ী আওয়ামী লীগ সিন্ডিকেট ও প্রধানমন্ত্রী এবং ওবায়দুল কাদের দায়ী। ঈদের আগের দিন তারা বাজার থেকে সয়াবিন তেল নিরুদ্দেশ করে দিয়েছে। আওয়ামী লীগ মানুষের কষ্টে আনন্দ পায় এবং উল্লাস করে। আর বিএনপি মানুষের দুর্ভোগে সহমর্মিতা প্রকাশ করে। ফলে ঘরমুখো মানুষের দুর্ভোগে বিএনপির কষ্ট হয়। আর আওয়ামী লীগ বাজারে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বাড়িয়ে আনন্দ পায়। কারণ তাদের তো অনেক টাকা। তাদের নেতাকর্মীদের বাড়িতে হাজার হাজার লিটার সয়াবিনের মজুদ। কিন্তু সাধারণ গরিব মানুষ রিকশা চালক তারা ঈদের দিন একটু ভালোভাবে রান্না করে খেতে পারবেনা!



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রিজভী


আরও
আরও পড়ুন