Inqilab Logo

শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ০৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৮ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

ঢামেকের উপর চাপ কমাতে জনগণকে অন্যান্য হাসপাতালে যাওয়ায় উদ্বুদ্ধ করতে হবে -স্বাস্থ্যমন্ত্রী

প্রকাশের সময় : ১৬ নভেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের উপর চাপ কমাতে অন্যান্য হাসপাতালগুলোতে যাওয়ার জন্য জনগণকে উদ্ধুদ্ধ করতে হবে। তিনি বলেন, রাজধানীতে ঢামেক হাসপাতালের মতো সোহরাওয়ার্দী, কুর্মিটোলা, মুগদা হাসপাতালেও আইসিইউ সমৃদ্ধ একই সেবা নিশ্চিত করেছে সরকার। পাশাপাশি নিউরোসায়েন্স, হৃদরোগ ইনস্টিটিউট, কিডনি হাসপাতাল, নাক-কান-গলা ইনস্টিটিউট, চক্ষুবিজ্ঞান ইনস্টিটিউটসহ বেশ কয়েকটি বিশেষায়িত হাসপাতাল সরকার চালু করেছে, যেখানে অত্যাধুনিক মানের যন্ত্রপাতি স্থাপন করা হয়েছে। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা সেখানে নিয়মিত চিকিৎসাসেবা দিচ্ছেন। এই হাসপাতালগুলোতে এখন আন্তর্জাতিক মানের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। প্রতিটি হাসপাতালে জনগণ আধুনিক চিকিৎসা পাবে, এই তথ্য সবার কাছে পৌঁছে দিতে সংশ্লিষ্টদেরকে পদক্ষেপ নেয়ার জন্য মন্ত্রী আহ্বান জানান।

গতকাল ঢাকায় কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশনে ‘নেগলেকটেড ট্রপিক্যাল ডিজিজেস অ্যান্ড লেপ্রোপি রিসার্চ’ শীর্ষক পরামর্শমূলক সম্মেলনের উদ্বোধনকালে তিনি একথা বলেন। দি লেপ্রোসি মিশন ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ এই সম্মেলনের আয়োজন করে। লেপ্রোসি মিশনের কান্ট্রি ডিরেক্টর সলোমান সুমন হালদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ডা. আবুল কালাম আজাদ বক্তব্যে দেন।
বাংলাদেশে কুষ্ঠ রোগ নির্মূলে জনসচেতনতা বাড়িয়ে সমন্বিত সেবাকার্যক্রম হাতে নিতে সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি সংস্থাগুলোকে জোড়ালো ভূমিকা রাখতে হবে বলে জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, কুষ্ঠ রোগীকে অবহেলা না করে পাশে থেকে সেবা দেয়ার জন্য জনগণকে সচেতন করে তুলতে হবে। তিনি বলেন, সেদিন বেশি দূরে নয়, যেদিন বাংলাদেশ থেকে কুষ্ঠ রোগ নির্মূল সম্ভব হবে। মন্ত্রী বলেন, উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে কুষ্ঠ রোগীদের জন্য পর্যাপ্ত চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করার উদ্যোগ নেয়া হবে।
পরে সচিবালয়ে স্বাস্থ্যখাতের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির অগ্রগতি পর্যালোচনা সভায় সভাপতিত্বকালে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, তৃণমূল মানুষের বিশেষ করে দরিদ্র মানুষের জন্য স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে সরকারের পদক্ষেপগুলোর সফল বাস্তবায়নে সংশ্লিষ্টদেরকে তৎপর থাকতে হবে। জনগণের দোঁরগোড়ায় চিকিৎসাসেবা পৌঁছে দিতে কোনো রকমের গাফিলতি ও অনিয়ম সহ্য করা হবে না বলেও তিনি এসময় জানান। সভায় অন্যান্যের মধ্যে স্বাস্থ্যপ্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক, স্বাস্থ্যসচিব মো: সিরাজুল ইসলাম, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ডা. আবুল কালাম আজাদসহ মন্ত্রণালয় ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ঢামেকের উপর চাপ কমাতে জনগণকে অন্যান্য হাসপাতালে যাওয়ায় উদ্বুদ্ধ করতে হবে -স্বাস্থ্যমন্ত্রী
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ