Inqilab Logo

সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ২০ আষাঢ় ১৪২৯, ০৪ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

সম্মেলনের সিদ্ধান্ত আসবে

আ.লীগের কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠক আজ

ইয়াছিন রানা | প্রকাশের সময় : ৮ মে, ২০২২, ১২:০৩ এএম

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন এবং জাতীয় সম্মেলন সামনে রেখে প্রস্তুতি শুরু করেছে আওয়ামী লীগ। করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ায় দলীয় কার্যক্রমে গতি বাড়াতে কেন্দ্রীয় সম্মেলন, ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিণ, মহিলা লীগ, যুবমহিলা লীগ, তাঁতী লীগ, ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিণ যুবলীগ, ছাত্রলীগের সম্মেলনের সিদ্ধান্তসহ বেশ গুরুত্বপূর্ণ দিক নির্দেশনা দিবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ বিকালে গণভবনে আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদের সভা। সভায় সভাপতিত্ব করবেন শেখ হাসিনা। বৈঠকে এসব বিষয়ে সিদ্ধান্ত হতে পারে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা।

এ ছাড়া সভায় মেয়াদোত্তীর্ণ জেলা-উপজেলা সম্মেলন দ্রুত শেষ করা এবং সম্মেলন হওয়া কমিটিগুলো পূর্ণাঙ্গ করা, দলের কার্যনির্বাহী কমিটির শূন্য পদ পূরণ, বিরোধীদের আন্দোলন মোকাবিলা এবং দেশ-বিদেশের নানা ষড়যন্ত্র প্রতিহত করা, কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনের বিষয়ে আলোচনা আলোচনা ও দিকনির্দেশনা আসতে পারে। আওয়ামী লীগের নেতারা বলছেন, সামনে জাতীয় সংসদ নির্বাচন, এমপি মনোনয়ন, দলের আসন্ন জাতীয় সম্মেলনসহ নানা কারণে এটি বেশ গুরুত্বপূর্ণ। এতে দলের আসন্ন সম্মেলন কবে হবে, সেই বিষয়ে আলোচনা হবে।

আসন্ন জাতীয় নির্বাচনের জন্য মাঠের প্রস্তুতি এবং যেসব জেলায় দলীয় কোন্দল বা অভ্যন্তরীণ সমস্যা আছে, সেগুলো সমাধানেও কথা বলবেন। এছাড়া বিভিন্ন জেলা শাখার নেতাদের অব্যাহতি ও বহিষ্কারের সুপারিশের বিষয়েও সিদ্ধান্ত হবে। মেয়াদোত্তীর্ণ হয়েছে- এমন সহযোগী সংগঠনগুলোর সম্মেলন আয়োজনের বিষয়েও কথা হবে এ বৈঠকে। একই সাথে যুবলীগ, সেচ্ছাসেবক লীগ, কৃষক ও মৎসবীজী লীগের সম্মেলন নিয়ে আলোচনা হবে বলে গুঞ্জন রয়েছে। চলতি বছরে এ সংগঠনগুলোর কমিটির মেয়াদপূর্ণ হবে। দলটির প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী জাফর উল্যাহ জানিয়েছেন, সভার সময়সূচি ও এজেন্ডা চূড়ান্ত হয়েছে। এতে মোট ১২টা এজেন্ডা থাকবে। আগামী সম্মেলন এবং রাজনৈতিক বিষয়গুলো নিয়েও আলোচনা হবে। দলীয় সূত্রে জানা গেছে, সভার আলোচ্যসূচির মধ্যে রয়েছে শোকপ্রস্তাব পাঠ, ১৭ মে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস ও ১১ জুন কারামুক্তি দিবস, ২৫ মে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের জন্মবার্ষিকী, ৭ জুন ঐতিহাসিক ছয় দফা দিবস, ২৩ জুন আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী, ৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠপুত্র বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ কামালের জন্মবার্ষিকী, ৮ আগস্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মবার্ষিকী, ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস, সমসাময়িক জাতীয় ও আন্তর্জাতিক বিষয়, সাংগঠনিক ও বিবিধ।

বৈঠকের বিষয়ে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সম্মেলনের তারিখ বলে দিয়েছেন। তিনি তো আমাদের পার্টির মুখপাত্র। আমাদের দলের সভানেত্রীও অতি দ্রুত ওয়ার্ড, ইউনিয়ন, উপজেলা ও জেলা শাখাগুলোর সম্মেলন করার নির্দেশনা দিয়েছেন। এগুলো তো আমাদের সম্মেলনের সিমটম। সভায় এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে। মেয়াদোত্তীর্ণ সহযোগী সংগঠনের সম্মেলন নিয়েও সিদ্ধান্ত আসবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম বলেন, দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে দলের তৃণমূলকে কিভাবে সু-সংগঠিত ও সময়োপযোগী করা যায়, দলের অভ্যন্তরে সৃষ্ট দ্বন্দ্ব বিভেদ নিরসন করা যায়, দলকে সাধারণ মানুষের কাছে আরও গ্রহণযোগ্য করা যায়, দলের দুর্দিনের ত্যাগী, পরীক্ষিত, নিবেদিত ও ক্লিন-ইমেজ নেতাদের কিভাবে মূল্যায়ন করা যায়, বিরোধী শিবিরের আন্দোলন সংগ্রাম কিভাবে মোকাবিলা করা যায় এবং ভাবে নির্বাচনের কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করলে নিরষ্কুশ বিজয় অর্জন করা যাবে তা নিয়ে আলোচনা হবে।
দলের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া জানিয়েছেন, কার্যনির্বাহী সংসদের সভায় নির্ধারিত এজেন্ডার বাইরেও সিটি করপোরেশনসহ স্থানীয় সরকারের কিছু নির্বাচন নিয়ে আলোচনা হবে। পাশাপাশি আগামী জাতীয় নির্বাচনকে ঘিরে মাঠপর্যায়ে সাংগঠনিক প্রস্তুতি নিয়ে আলোচনা হবে।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ২০-২১ ডিসেম্বর আওয়ামী লীগের ২১তম জাতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতি পদে নবমবারের মতো প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্বাচিত হন। তার সঙ্গে দ্বিতীয়বারের মতো সাধারণ সম্পাদক হন ওবায়দুল কাদের। তিন বছর মেয়াদি এই সম্মেলনের মেয়াদ শেষ হবে এ বছর ডিসেম্বরে। যুবলীগ, কৃষকলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, মৎসজীবি লীগের মেয়াদও এ বছরের নভেম্বরে শেষ হবে। এছাড়া ২০১৮ সালের ১১ ও ১২ মে ছাত্রলীগের, প্রায় ১৪ বছর পর ২০১৭ সালের ৪ মার্চ মহিলা আওয়ামী লীগের, ২০১৭ সালের ১১ মার্চ যুব মহিলা লীগের, ২০১৭ সালের ১৯ মার্চ তাঁতী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।



 

Show all comments
  • আনিছ ৭ মে, ২০২২, ১২:৫৭ এএম says : 0
    সব জেলা ও থানার দ্রুত সম্মেলন করা দরকার, তাহলে দলে শৃঙ্খলা ফিরবে
    Total Reply(0) Reply
  • আহমদ ৭ মে, ২০২২, ১:০০ এএম says : 0
    সাধারণ মানুষ আপনাদের উপর ভরসা রাখে, কাজেই সেই ভরসাটা আপনারা পূরণ করেন, দেশের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম এখনই লাগাম টানেন, নয়তো সাধারণ মানুষ না খেয়ে মরতে হবে
    Total Reply(0) Reply
  • আকিব ৭ মে, ২০২২, ১:০১ এএম says : 0
    আমরা চাই এমন একজন লোক সাধারণ সম্পাদক হোক যার ইমেজ সারা দেশে অনেক ভালো,
    Total Reply(0) Reply
  • Md Sagor ৭ মে, ২০২২, ৮:৫২ এএম says : 0
    সোহেল তাজ মহোদয়কে দেওয়া দরকার।
    Total Reply(0) Reply
  • Mosharof Hossain ৭ মে, ২০২২, ৮:৫৩ এএম says : 0
    যুবলীগের প্রেসিডেন্ট শেখ ফজলে শামস্ পরশ স্যার কে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক করলে সবচেয়ে বেশি ভালো হবে। ৭৫ পরবর্তী সময়ে এ দেশে যতো রাজনীতিবিদ এসেছে তার মধ্যে আমার দেখা সবচেয়ে সৎ ব্যাক্তিত্ববান একজন ব্যাক্তি এবং শেখ পরিবারের যোগ্য উত্তরসূরি। এটা আমার একান্তই ব্যাক্তিগত মতামত।কাউকে খুশী বা নারাজ করতে নয়।জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু।
    Total Reply(0) Reply
  • Sakibul Hasan Jony ৭ মে, ২০২২, ৮:৫৫ এএম says : 0
    মির্জা আজম অথবা জাহাঙ্গীর কবির নানক। এই দু'জনের একজন হবেন আগামী পরবর্তী আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আ.লীগ


আরও
আরও পড়ুন