Inqilab Logo

সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২১ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

‘ইউক্রেনে ভবিষ্যতের দুর্ভিক্ষের জন্য দায়ী হবে যুক্তরাষ্ট্র’

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১২ মে, ২০২২, ৬:০৭ পিএম

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কোন আস্থা নেই যে, ইউক্রেন জিতবে। এ কারণে তারা সেখানে দুর্ভিক্ষের মঞ্চ তৈরি করার সময় ইউক্রেনে যে অর্থ ঢেলে দিয়েছে তা পুনরুদ্ধার করার উপায় খুঁজছে। রাশিয়ার সংসদ স্টেট ডুমার স্পিকার ভ্যাচেস্লাভ ভোলোদিন বুধবার তার টেলিগ্রাম চ্যানেলে এ দাবি করেছেন।

‘ওয়াশিংটনের কোন আস্থা নেই যে কিয়েভ জিতবে। ইউক্রেনে দুর্ভিক্ষের মঞ্চ তৈরি করার সময়, তারা তাদের তহবিল পুনরুদ্ধারের উপায় নিয়ে চিন্তা করছে,’ ভলোদিন বলেছেন। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ইউক্রেনের শস্য সরিয়ে নেয়ার উপায় খুঁজছে যা, মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন, ‘সম্পদের দাম কমাতে’ প্রয়োজন। ‘প্রকৃত সহায়তা দেয়ার পরিবর্তে, তারা প্রয়োজনীয় জিনিসগুলি কেড়ে নিচ্ছে। ইউক্রেনীয়দের শস্যের মজুদ প্রয়োজন যাতে নতুন ফসল না হওয়া পর্যন্ত স্থায়ী হয়,’ ভোলোদিন জোর দিয়েছিলেন।

ওয়াশিংটন ইতিমধ্যেই ইউক্রেনকে ঋণের মধ্যে নিয়ে গেছে, ‘লেন্ড-লিজের অধীনে ৪০ বিলিয়ন ডলার সহায়তা প্রদান করা হয়েছে অস্ত্র এবং কিয়েভকে বিলম্বিত অর্থ প্রদানে অন্যান্য সহায়তা প্রদান করার জন্য,’ তিনি উল্লেখ করেছেন। ‘ইউক্রেনকে ঋণের গভীরে ঠেলে দেয়া হচ্ছে। তবে, এটি দেশের উন্নয়ন বা জনগণের সমৃদ্ধিতে কোনো অবদান রাখে নি। বিপরীতে, ওয়াশিংটন ইউক্রেনে সামরিক অভিযানে টানাটানি করছে, এই কারণেই এর একটি শান্তিপূর্ণ জীবনে ফিরে যেতে বাসিন্দারা অক্ষম হয়ে পড়ছে,’ ভোলোদিন উপসংহারে এসেছিলেন।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি, রাশিয়ান প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ডনবাস প্রজাতন্ত্রের নেতাদের সাহায্যের অনুরোধের প্রতিক্রিয়ায় ইউক্রেনে একটি বিশেষ সামরিক অভিযান শুরু করেছিলেন। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং তার মিত্ররা রাশিয়ার বিরুদ্ধে বড় নিষেধাজ্ঞার সাথে প্রতিক্রিয়া জানায় এবং কিয়েভে অস্ত্র সরবরাহ শুরু করে। সূত্র: তাস।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যুক্তরাষ্ট্র


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ