Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮, ৩০ কার্তিক ১৪২৫, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
শিরোনাম

নিউজিল্যান্ডে ওষুধ ও চামড়া রফতানি বাড়ানো হবে : বাণিজ্যমন্ত্রী

প্রকাশের সময় : ১৭ নভেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

অর্থনৈতিক রিপোর্টার : নিউজিল্যান্ডে ওষুধ ও চামড়া রফতানি বাড়ানো হবে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। তিনি বলেন, সেখানে বাংলাদেশের এসব পণ্যের প্রচুর চাহিদা রয়েছে। নিউজিল্যান্ড বাংলাদেশকে সব পণ্য রফতানিতে ডিউটি ফ্রি সুবিধা দিয়েছে। গতকাল সচিবালয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী তার অফিস কক্ষে ঢাকায় নিযুক্ত নিউজিল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত গ্রাহাম মার্টনের সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন। 

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, নিউজিল্যান্ড বাংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্য বাড়াতে আগ্রহী। বাংলাদেশ নিউজিল্যান্ড থেকে দুধ আমদানির মাধ্যমে পণ্য তৈরি করে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে রফতানি করছে।
মন্ত্রী বলেন, দুই দেশের বাণিজ্য খুব বেশি নয়। গত বছর বাংলাদেশ নিউজিল্যান্ডে রফতানি করেছে ৭৩ দশমিক ৬৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। একই সময়ে আমদানি করেছে ১৫০ দশমিক ৪০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের পণ্য। তিনি বলেন, এ মুহূর্তে দই দেশের বাণিজ্য নিউজিল্যান্ডের পক্ষে হলেও বাংলাদেশের রফতানি বাড়ার সুযোগ এসেছে।
তোফায়েল আহমেদ বলেন, বিশ্ববাণিজ্য সংস্থা এলডিসিভুক্ত দেশগুলোর জন্য ট্রিপস চুক্তির মেয়াদ ১৭ বছর বেড়েছে। এ সুযোগ বাংলাদেশ কাজে লাগাতে উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।
তিনি বলেন, বাংলাদেশ বিশ্বের ১২৩টি দেশে ওষুধ রফতানি করছে। বাংলাদেশের ওষুধের মান বেশ ভালো। বাংলাদেশের বিশ্বমানের ওষুধ তুলনামূলক কম মূল্যে সরবরাহ করছে। নিউজিল্যান্ডে বাংলাদেশের তৈরি ওষুধের প্রচুর চাহিদা রয়েছে। চলতি সপ্তম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা মোতাবেক যে সব পণ্য রফতানি বাড়ার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে, ওষুধ তার মধ্যে অন্যতম বলে তিনি উল্লেখ করেন।
নিউজিল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত গ্রাহাম মার্টন বলেন, বাংলাদেশ দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। তৈরি পোশাক খাতে বাংলাদেশের অগ্রগতি খুবই ভালো। গত ৫ বছরে দু’দেশের মধ্যে বাণিজ্য অনেক বেড়েছে। বর্তমানে দু’দেশের মধ্যে বাণিজ্যের পরিবেশ বেশ ভালো।
বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে অতিরিক্ত সচিব (রফতানি) জহির উদ্দিন আহমেদ, যুগ্ম সচিব (এফটিএ) মুনির চৌধুরী এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ