Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৮ আশ্বিন ১৪২৫, ১২ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

সক্ষমতা খতিয়ে দেখতে ভারত সীমান্তে সামরিক মহড়া পাকিস্তানের

প্রকাশের সময় : ১৭ নভেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক
ভারত সীমান্তের কাছেই কৌশলগত দিক থেকে গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় সামরিক মহড়া চালাচ্ছে পাকিস্তান। ভারতের সঙ্গে তাদের সম্পর্কে উত্তেজনা ক্রমবর্ধমান। তার জেরে যে কোনোরকম পরিস্থিতি তৈরি হলে তার মোকাবেলায় সামরিক বাহিনী, বিমান বাহিনী কতটা তৈরি তা খতিয়ে দেখছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ ও সেনাপ্রধান জেনারেল রাহিল শরিফ। সেজন্যই পাঞ্জাব প্রদেশের বাহাওয়ালপুরে সীমান্তের কাছেই মহড়া শুরু করেছে পাকিস্তান বাহিনী। সরকারি সূত্রের খবর, সেখানে নওয়াজ প্রধান অতিথি থাকছেন। মহড়া দেখবেন সেনাপ্রধানও। সামরিক হেলিকপ্টার, বিমান বাহিনীর বিমানের পাশাপাশি পদাতিক সেনা জওয়ানরাও সামিল হবে মহড়ায়।
ঘটনাচক্রে নিয়ন্ত্রণ রেখায় ভারতীয় বাহিনীর গুলিতে সাত পাকিস্তানী সেনা নিহত হওয়ার কয়েকদিন বাদেই এই মহড়া চালাচ্ছে পাকিস্তানের সেনাবাহিনী। দেশটির নিরাপত্তা অফিসারদের বক্তব্য, ভারতের সাথে সংঘাতের পারদ চড়তে চড়তে তুঙ্গে চলে গেলে যদি অনিবার্য জরুরি পরিস্থিতি তৈরি হয়, তাহলে তার জবাবে জওয়ানরা কতটা প্রস্তুত, সেটা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।
গত মঙ্গলবারই নওয়াজ হুঁশিয়ারি দিয়েছেন, ভারতীয় ‘কূটকৌশলে’র চাপে পাকিস্তানকে দাবিয়ে রাখা যাবে না। পাকিস্তানের সংযম বজায় রাখাকে যেন দুর্বলতা ভেবে ‘ভুল না করা হয়’। ‘যে কোনো হঠকারী পদক্ষেপের’ পাল্টা জবাব দেয়ার ক্ষমতা রাখে তার দেশও। সাত জওয়ানের প্রাণহানিতে শোক প্রকাশ করে নওয়াজ আরো বলেন, ভারতীয় বাহিনী নিয়ন্ত্রণ রেখায় যেভাবে ইচ্ছা করে উত্তেজনা বাড়িয়ে চলেছে, তা আঞ্চলিক শান্তি ও সুরক্ষার পথে বিপদ। কাশ্মীরে ‘ওরা যে সবচেয়ে নৃশংস অত্যাচার চালাচ্ছে, তা থেকে গোটা দুনিয়ার নজর ঘোরাতে এটা ভারতীয় কর্তৃপক্ষের ব্যর্থ প্রয়াস’ বলেও মন্তব্য করেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী। সূত্র : এবিপি আনন্দ।

 



 

Show all comments
  • Nannu chowhan ১৭ নভেম্বর, ২০১৬, ৮:১০ এএম says : 0
    100%
    Total Reply(0) Reply
  • মোঃ মুন্নাফ হোসেন ১৭ নভেম্বর, ২০১৬, ১০:২৭ এএম says : 0
    এগিয়ে যাও পাকিস্তান
    Total Reply(0) Reply
  • মোঃ মুন্নাফ হোসেন ১৭ নভেম্বর, ২০১৬, ১০:২৭ এএম says : 0
    এগিয়ে যাও পাকিস্তান
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ