Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ১৬ আষাঢ় ১৪২৯, ২৯ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

ষড়যন্ত্রকারীরা আমাকে খুন করতে চায়

ইমরান খান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৬ মে, ২০২২, ১২:০০ এএম

ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার আগেও দাবি করেছিলেন, তাকে খুন করা হতে পারে। আবারও একই কথা শোনা গেল পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের মুখে। শনিবার শিয়ালকোটের এক জনসভায় দাঁড়িয়ে তিনি ফের দাবি করলেন, ‘ওরা আমাকে খুন করতে চায়। তাই আমি সব ভিডিও করে রেখেছি। সেখানে ষড়যন্ত্রকারীদের প্রত্যেকের নাম রেকর্ড করা আছে। আমার যদি কিছু হয়ে যায়, এই ভিডিওই ষড়যন্ত্রকারীদের নাম প্রকাশ্যে নিয়ে আসবে।’

মাসখানেক আগেই পার্লামেন্টে আস্থাভোটে হেরে ক্ষমতাচ্যুত হয়েছেন ইমরান খান। ষড়যন্ত্র করে তার সরকার ফেলে দেয়া হয়েছে বলে ওই দিনই অভিযোগ করেন ইমরান। এই ষড়যন্ত্রের নকশা যে অনেক দিন ধরেই তৈরি হচ্ছিল তা-ও তিনি টের পেয়েছিলেন বলে জানান। দেশের সেই ‘ষড়যন্ত্রকারী’দের তাই এ বার প্রকাশ্যে আনার হুমকি দিয়েছেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী। তার কথায়, ‘আমি এই এই ভিডিওটি বানিয়েছি কারণ, এই দেশে যারা ক্ষমতাবান তাদের কখনও সাজা হয় না। তাদের আইনের কাঠগড়ায় তোলা হয় না। একমাত্র যারা দুর্বল তাদেরই বলির পাঁঠা বানানো হয়। আমার এই ভিডিও সেই গদ্দারদের দেশের মানুষের সামনে তুলে ধরবে।’

ইমরান নতুন সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে শরীফ পরিবারের বিরুদ্ধে দুর্নীতির মামলা পরিচালনার বিষয়ে বিচার বিভাগকে নিয়ে প্রশ্ন তোলেন, অভিযোগ করেন যে, ফেডারেল তদন্ত সংস্থার কর্মকর্তাদের হয় বদলি করা হচ্ছে বা হুমকি দেয়া হচ্ছে। তিনি এফআইএর সাবেক পরিচালক মোহাম্মদ রিজওয়ানকে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন, যিনি বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরীফ এবং পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী হামজা শেহবাজের বিরুদ্ধে অর্থ পাচারের অভিযোগের তদন্ত করেছিলেন এবং সোমবার হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান।

ইমরান অভিযোগ করেছেন যে, হামজা রিজওয়ানকে ‘হুমকি’ দিয়েছিলেন যার কারণে তিনি ‘প্রচুর চাপে’ ছিলেন এবং এর ফলে মারা যান। পিটিআই চেয়ারম্যান দাবি করেছেন যে, এফআইএর আরেক তদন্ত কর্মকর্তা নাদিম আখতারও গতকাল হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছেন। তিনি অর্থনৈতিক ফ্রন্টে নতুন সরকারকেও তিরস্কার করেছিলেন, বলেছেন যে, পিটিআই শাসন এটিকে একটি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ বিন্দুতে রেখেছিল কিন্তু ‘শাসন পরিবর্তনের’ পর থেকে রুপির মূল্য উদ্বেগজনকভাবে হ্রাস পেয়েছে এবং স্টক মার্কেট বিপর্যস্ত হয়েছে। সূত্র : ডন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পাকিস্তানের


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ