Inqilab Logo

শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ১১ আষাঢ় ১৪২৯, ২৪ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

অবরুদ্ধ মারিউপোল থেকে ইউক্রেনীয় সেনা প্রত্যাহার সম্পন্ন

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ মে, ২০২২, ৯:৩২ এএম

ইউক্রেন নিশ্চিত করেছে মারিউপোলের আজভস্টল স্টিল কারখানায় দুই মাসের বেশি সময় আটকে পড়া হাজার হাজার সেনা সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। উপ প্রতিরক্ষামন্ত্রী হান্না মালিয়ার জানিয়েছেন মারাত্মক আহত ৫৩ সেনাকে রুশ সমর্থিত বিদ্রোহীদের নিয়ন্ত্রিত নোভোয়াজোভস্ক শহরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তিনি জানান আরও ২১১ সেনাকে মানবিক করিডোর ব্যবহার করে আরেক বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত শহর ওলেনিভকায় নেওয়া হয়েছে।
এর আগে রাশিয়া জানায় আহত সেনাদের সরিয়ে নেওয়ার একটি চুক্তিতে পৌঁছানো গেছে।
আটকে থাকা সেনাদের বহনকারী বেশ কয়েকটি বাসকে সোমবার সন্ধ্যায় আজভস্টলের বিশাল শিল্প কারখানা এলাকা ছেড়ে যেতে দেখা যায়। পশ্চিমা বার্তা সংস্থাগুলো বাসগুলো ছেড়ে যেতে দেখার নিশ্চিত করেছে। অন্যদিকে রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমেও ভিডিও ফুটেজ দেখিয়ে বলেছে আহত ইউক্রেনীয় সেনাদের সরে যেতে দেওয়া হয়েছে।
ইউক্রেনের উপ প্রতিরক্ষামন্ত্রী হান্না মালিয়ার জানান এই সেনাদের বিনিময়ে আটক থাকা রুশ সেনাদের মুক্তি দেওয়া হবে। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার মধ্যরাতের পর এক ভিডিও বার্তায় ইউক্রেনীয় প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি জানান, সরিয়ে নেওয়ার এই অভিযানে ইউক্রেনীয় সেনাবাহিনী, গোয়েন্দা এবং আলোচক দলের পাশাপাশি রেড ক্রস এবং জাতিসংঘের প্রতিনিধিরাও যুক্ত ছিলেন।
গত মার্চের শুরুতে অগ্রবর্তী রুশ বাহিনী দক্ষিণাঞ্চলের বন্দরনগরী মারিউপোল ঘিরে ফেললে হাজার হাজার ইউক্রেনীয় সেনা-আজভ রেজিমেন্ট, ন্যাশনাল গার্ড, পুলিশ এবং আঞ্চলিক প্রতিরক্ষা ইউনিটের পাশাপাশি বেশ কিছু বেসামরিক মানুষ ওই স্টিল কারখানায় আশ্রয় নেয়।
তবে ওই কারখানার আন্ডারগ্রাউন্ড বাঙ্কারে এখনও কত জন আটকে রয়েছেন তাৎক্ষণিকভাবে তা জানা যায়নি। উপ প্রতিরক্ষামন্ত্রী হান্না মালিয়ার জানান, পড়ে থাকা মানুষদের রক্ষায় সেনাবাহিনী, গোয়েন্দা, ন্যাশনাল গার্ড এবং সীমান্ত রক্ষাকারী বাহিনী যৌথ তৎপরতা অব্যাহত রেখেছে। সূত্র: বিবিসি



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইউক্রেন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ