Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ১৪ আষাঢ় ১৪২৯, ২৭ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

নোয়াখালীর সূবর্ণচরে জমি কিনে রেজিস্ট্রি না পেয়ে গৃহবধূর আত্মহত্যা

নোয়াখালী ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৮ মে, ২০২২, ১২:৫৫ পিএম

সুবর্ণচরে জমি কিনে রেজিস্ট্রি না পাওয়ায় ক্ষোভে দুঃখে এক গৃহবধূ বিষপানে আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

মৃত মোশের্দা বেগম (৫০) উপজেলার চরজব্বর ইউনিয়নের ৩নম্বর ওয়ার্ডের আবুল কালামের স্ত্রী।

মঙ্গলবার রাতে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ওই গৃহবধূর মৃত্যু হয়। এর আগে একই দিন বেলা ১১টার দিকে নিজ বাড়িতে পরিবারের সদস্যদের অগোচরে সে ধানে দেওয়ার প্রাণঘাতী কীটনাশক পান করে।

নিহতের ছেলে ইউছুফ অভিযোগ করে বলেন, ৮ বছর আগে একই এলাকার ছিদ্দিক উল্যার ছেলে সিরাজ বেপারী থেকে বসতবাড়ির জায়গাসহ ৩৭শতাংশ জমি ক্রয় করে আমাদের পরিবার। এ জমি ক্রয় করার ৮ বছর অতিবাহিত হলেও সিরাজ বেপারী আমাদের জায়গা রেজিষ্ট্রি দেয় নাই। আমার মা-বাবা তাঁর কাছ থেকে ক্রয়কৃত জমি রেজিষ্ট্রি নিতে বারবার ধরনাও দিয়ে ব্যর্থ হয়। সিরাজ বেপারী নানা অজুহাতে জমি রেজিষ্ট্রি না দিয়ে তালবাহানা করে। একপর্যায়ে আমার মাকে পাগল অ্যাখা দিয়ে অপমান করে। এতে ক্ষোভে-দুঃখে গতকাল মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে পরিবারের সদস্যদের অগোচরে বসতঘরে বিষপান করেন তিনি। সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে বিকাল ৫টার দিকে তিনি মারা যান। নিহতের পরিবার এ ঘটনায় সিরাজ বেপারীর দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবি করেন।

স্থানীয় সূত্র জানায়, এ ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত সিরাজ গা ঢাকা দিয়েছে। অভিযোগের বিষয়ে জানতে একাধিকবার তাঁর মোবাইলে কল করা হলেও সংযোগ পাওয়া যায়নি। সরেজমিনে তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে গেলে তার প্রতিষ্ঠান বন্ধ পাওয়া যায়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে চরজব্বার থানার ওসি মো. জিয়াউল হক বলেন, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে রাখা আছে।

ওসি আরো জানায়,এ ঘটনায় নিহতের পরিবার এখন পর্যন্ত কোন লিখিত অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত প্রদক্ষেপ নেওয়া হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আত্মহত্যা


আরও
আরও পড়ুন