Inqilab Logo

রোববার, ২৬ জুন ২০২২, ১২ আষাঢ় ১৪২৯, ২৫ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

বজ্রপাতে নিহত ৩, আহত ১৫

সুনামগঞ্জ জেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২০ মে, ২০২২, ১২:০২ এএম

তাহিরপুর উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের বাদাম উত্তোলনের সময় বজ্রপাতে তিনজন নিহত হয়েছেন। এসময় আরো ১৫ জন শ্রমিক আহত হয়েছেন। নিহত ৩জনই বাদাঘাট ইউনিয়নের সুন্দর পাহাড়ি গ্রামের। নিহতরা হলেন, তাওহিদা বেগম তিনি সুন্দর পাহাড়ি গ্রামের মো. আব্দুল হালিমের মেয়ে। অপর দুজন হলেন রিপা আক্তার একই গ্রামের মো. ফজর আলীর মেয়ে এবং মো. আমিনুল ইসলাম ও মো. আব্দুল আজিজের পুত্র। আহতদের নাম ও পরিচয় জানা যায়নি।
স্থানীয় ও পুলিশের ভাষ্যমতে, গতকাল সকাল সাড়ে ১১টায় ঝড়ো বৃষ্টি শুরুর আগেই হঠাৎ বজ্রপাতে এ হতাহতের ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় আরো ১৫জন আহত হয়েছেন। খবর পেয়ে বাাদঘাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. নিজাম উদ্দিন, তাহিরপুর থানা পুলিশসহ স্থানীয় লোকজন ঘটনাস্থলে গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রেসহ বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
আহতদের মধ্যে অনেকের অবস্থা গুরুতর।
এ ঘটনায় লোকজনের মধ্যে আতংঙ্ক বিরাজ করছে। তাছাড়া এলাকায় এক হৃদয় বিধারক শোকের মাতম চলছে। বজ্রপাতে নিহতদের স্বজনদের হাতে ৫ হাজার করে মোট ১৫ হাজার টাকা তুলে দেন বাদাঘাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. নিজাম উদ্দিন। বাদাঘাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. নিজাম উদ্দিন দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, আমাদের হাওরপাড়ের মানুষজন জীবন জীবিকার প্রয়োজনে বিরুপ প্রকৃতির সাথে লড়াই করেই বেঁচে থাকতে হয়। তিনি বলেন, এই বজ্রপাতের ঘটনাটি আমাদের হাওরপাড়ের কৃষক শ্রমিক ও দিন মুজুরের জন্য একটি আতংঙ্কের নাম। তিনি এই বজ্রপাত হতে হাওরপাড়ের সাধারন মানুষদের জীবনের নিশ্চয়তা দিতে সরকারকে দ্রুত বজ্রপাত রোধে পদক্ষেপ নেয়ার দাবি জানান।
এ ব্যাপারে তাহিরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আব্দুল লতিফ তরফদার ইনকিলাবকে জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে এলাকাবাসির সহায়তায় আহতদের উদ্ধার করে বিভিন্নস্থানে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন