Inqilab Logo

বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ১৫ আষাঢ় ১৪২৯, ২৮ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

চীনে ৬৩০ ফুট গভীর গর্ত আবিষ্কার

ভিতরে লুকানো সম্পূর্ণ বন : অনাবিষ্কৃত নতুন প্রজাতি থাকার সম্ভাবনা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ মে, ২০২২, ১২:০২ এএম

চীনে একটি বিশাল ৬৩০-ফুট গভীর গর্ত পাওয়া গেছে, যেখানে গবেষকরা ১৩১ ফুট (৪০ মিটার) উচ্চতা পর্যন্ত গাছের সাথে একটি বিস্ময়কর প্রাচীন বন গোষ্ঠীর সন্ধান করেছেন এবং এতে আগে কখনও দেখা যায়নি এমন প্রজাতি অন্তর্ভুক্ত থাকতে পারে। গুহা অভিযাত্রীরা এ মাসের শুরুতে গুয়াংজি ঝুয়াং স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চলের লেই প্রিফেকচারের পিং’ই গ্রামের কাছে গর্তের মুখোমুখি হন। সিনহুয়া নিউজ এজেন্সি অনুসারে, গর্তটি ৬৩০ ফুট (১৯২ মিটার) গভীর, ১ হাজার ফুট (৩০৪ মিটার) দীর্ঘ এবং ৪৯০ ফুট (১৪৯ মিটার) প্রশস্ত।
এ আবিষ্কারটিকে ‘বড়’ হিসাবে শ্রেণীবদ্ধ করা হয় এবং বিশেষজ্ঞরা গর্তের গোড়ায় পৌঁছানোর আগে কয়েক ঘণ্টা ধরে হেঁটেছিলেন এবং গুহার তিনটি প্রবেশদ্বার খুঁজে পান।

সংবাদ সংস্থার উদ্ধৃত বিশেষজ্ঞদের মতে, সূর্যের দিকে বেড়ে ওঠা গাছগুলোর সাথে গর্তের নীচে একটি ‘সুসংরক্ষিত আদিম বন’ দিয়ে রেখাযুক্ত।
চেন লিক্সিন, যিনি গুহা অভিযান দলের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন, সিনহুয়াকে বলেন যে, গর্তের মেঝেতে ঘন ঝোপগুলো একজন ব্যক্তির কাঁধের মতো উঁচু ছিল এবং নীচের কিছু প্রাচীন গাছ ১৩১ ফুট (৪০ মিটার) উঁচু ছিল।
‘আমি জেনে অবাক হব না যে, এসব গুহায় এমন প্রজাতির সন্ধান পাওয়া গেছে যেগুলোর বর্ণনা এখনও বিজ্ঞানে উল্লেখ করা হয়নি’ -মি. লিক্সিন বলেন। গুয়াংজির চীনা অঞ্চলটি তার সুন্দর এবং কখনও কখনও নাটকীয় কার্স্ট গঠনের জন্য পরিচিত।

সিনহুয়া জানিয়েছে, একা লেই কাউন্টি, যেখানে এই বর্তমান সিঙ্কহোলটি আবিষ্কৃত হয়েছিল, সেখানে এই ধরনের বেশ কয়েকটি সিঙ্কহোল রয়েছে। এ নতুন আবিষ্কারের ফলে এই কাউন্টিতে সিঙ্কহোলের সংখ্যা ৩০ এ পৌঁছেছে।
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল কেভ অ্যান্ড কার্স্ট রিসার্চ ইনস্টিটিউটের (এনসিকেআরআই) নির্বাহী পরিচালক জর্জ ভেনি লাইভ সায়েন্সকে বলেছেন, কার্স্ট ল্যান্ডস্কেপগুলো প্রাথমিকভাবে বেডরক বিচ্ছিন্নতা থেকে গঠিত হয়।
তিনি বলেন, ‘ভ‚তত্ত¡, আবহাওয়া এবং অন্যান্য কারণের স্থানীয় পার্থক্যের কারণে, কার্স্ট যেভাবে পৃষ্ঠে প্রদর্শিত হয় তা উল্লেখযোগ্যভাবে ভিন্ন হতে পারে’।

তিনি যোগ করেছেন, ‘সুতরাং চীনে আপনার কাছে বিশাল সিঙ্কহোল এবং বিশাল গুহা প্রবেশদ্বারসহ এ অবিশ্বাস্যভাবে দৃশ্যত দর্শনীয় কার্স্ট রয়েছে’। ‘বিশ্বের অন্যান্য অংশে আপনি কার্স্টের উপর হাঁটছেন এবং আপনি সত্যিই কিছুই লক্ষ্য করেন না। গর্তগুলো বেশ আবছা হতে পারে, ব্যাস মাত্র এক বা দুই মিটার। গুহাগুলোর প্রবেশদ্বার খুব ছোট হতে পারে, তাই আপনাকে অবশ্যই সেগুলোতে প্রবেশের পথ তৈরি করতে হবে’। সূত্র : দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চীন


আরও
আরও পড়ুন