Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ১৬ আষাঢ় ১৪২৯, ২৯ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

পিটিআই কোর কমিটি ইসলামাবাদ সমাবেশের তারিখ ঠিক করবে

মুলতানে বিশাল সমাবেশে ইমরান খান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২২ মে, ২০২২, ১২:০৩ এএম

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, তিনি রোববার পেশোয়ারে পিটিআই কোর কমিটির এক অধিবেশন ডেকেছেন, যেখানে তার ইসলামাবাদ লং মার্চের তারিখ সম্পর্কে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। গতকাল শুক্রবার মুলতানে এক বিশাল সমাবেশে ভাষণ দিতে গিয়ে ইমরান বলেন, ২৫ মে থেকে ২৯ মে’র মধ্যে যে কোনো দিন সমাবেশ হতে পারে।
বর্তমান সরকারকে দেশ পরিচালনায় অক্ষম উল্লেখ করে তিনি জাতীয় পরিষদ অবিলম্বে ভেঙে দেয়া এবং নির্বাচনের জন্য একটি তারিখ ঘোষণার দাবি জানান। ১০ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে তার অপসারণের পর থেকে ইমরান সারা দেশে একের পর এক বিশাল জনসভা করে চলেছেন। তার ক্ষমতাচ্যুতিকে একটি বিদেশী ষড়যন্ত্র অভিহিত এবং জনগণকে দেশে অবিলম্বে নির্বাচন অনুষ্ঠানে তার দাবি মেনে নেওয়ার জন্য কর্তৃপক্ষকে চাপ দেওয়ার জন্য রাজধানীতে একটি সমাবেশের জন্য প্রস্তুত হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।
পিএমএল-এন-নেতৃত্বাধীন জোট সরকারের সমালোচনা করে ইমরান বলেন, ‘তারা ষড়যন্ত্রে ব্যস্ত ছিল, কিন্তু এখন যেহেতু তারা ক্ষমতায় এসেছে, তাদের অবশ্যই বলতে হবে কেন তারা দেশ পরিচালনায় সংগ্রাম করছে’।
তিনি বলেন, ‘একজন আসামি সিদ্ধান্ত নিচ্ছে। মাঝে মাঝে তারা জাতীয় নিরাপত্তা কমিটিকে দাম বাড়াতে বলছে’।
সাবেক প্রধানমন্ত্রী বলেন যে, তার সরকার রেকর্ড ট্যাক্স সংগ্রহ করেছে, তার শাসনামলে আইটি রফতানি ৭৫ শতাংশ বেড়েছে এবং পাকিস্তানের কর্মসংস্থানের হার সমগ্র উপমহাদেশে সর্বোচ্চ ছিল।
‘আপনি আমাদের সরকারের পতন ঘটিয়েছেন এবং এখন আমি খুশি যে তুলনা হচ্ছে’। ইমরান বলেন যে, তিনি যদি জাতির জন্য চিন্তা না করেন তবে তিনি চান যে তারা [পিএমএল-এন] আরো কয়েক মাস ক্ষমতায় থাকে যাতে লোকেরা ‘যারা তাদের ক্ষমতায় এনেছিল’ তাদের অভিশাপ দেয়। তিনি বলেন যে, মুদ্রাস্ফীতির একটি তরঙ্গ তার পথে রয়েছে, কারণ যখন রুপির অবমূল্যায়ন হয়, ‘এটি সবকিছুর ওপর প্রভাব ফেলে’।
‘তারা যদি আরো বেশি সময় ক্ষমতায় থাকে, তাহলে তারা পাকিস্তানকে শ্রীলঙ্কায় পরিণত করবে। তাই আমি যত তাড়াতাড়ি সম্ভব নির্বাচনের তারিখ এবং বিধানসভা ভেঙে দেয়ার দাবি করছি’। সূত্র : ডন অনলাইন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পাকিস্তান


আরও
আরও পড়ুন