Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ১৬ আষাঢ় ১৪২৯, ২৯ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

প্রভার এই প্রেমও কি ভেঙে গেছে?

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২১ মে, ২০২২, ৯:৩২ পিএম

গুঞ্জন ছড়ায়, অভিনেত্রী সাদিয়া জাহান প্রভা প্রেম করছেন। সংগীতশিল্পী ইমরান মাহমুদুলের সঙ্গে নতুন প্রেমে হাবুডুবু খাচ্ছেন। অবশ্য গত বছরের শেষ দিকে ওই গুঞ্জনের সূত্রপাত করেছিলেন অভিনেত্রী নিজেই। ইমরানের সঙ্গে নিয়মিত ঘনিষ্ঠ ছবি শেয়ার করা, রোম্যান্টিক কমেন্ট চালাচালিতে যেন প্রেমেরই ইঙ্গিত দিচ্ছিলেন। প্রভা ও ইমরানের প্রেম নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়া থেকে শুরু করে গণমাধ্যমেও চর্চা হয়। যদিও তারা নিজেরা বিষয়টি নিয়ে স্পষ্টভাবে কিছুই বলেননি।

এদিকে সম্প্রতি গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে, কয়েক মাস না পেরোতেই ভেঙে গেছে প্রভা ও ইমরানের প্রেম। বেশ কিছুদিন ধরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় বিরহ-বিচ্ছেদের পোস্ট দিয়ে আসছিলেন প্রভা। এটা দেখেই নেটিজেনদের মনে তাদের ব্রেকআপের ধারণা প্রশ্রয় পেয়েছে। শুক্রবার (২০ মে) ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে একটি লেখা শেয়ার করেছেন প্রভা। সেখানে লেখা রয়েছে, ‘কখনো খেয়াল করেছো, একটা বিচ্ছেদের পর, সৎ মানুষটি একাই থাকে এবং যন্ত্রণাগুলোর সঙ্গে লড়ে যায়। আর প্রতারক মানুষটা ততক্ষণে আরেকটা সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে।’

বিভিন্ন সময়ে বিরহের স্ট্যাটাস দিয়েছেন প্রভা। একবার তিনি লিখেছিলেন, ‘সঠিক মানুষ তোমার অতীত নিয়ে প্রশ্ন না তুলেই ভালোবাসবে’। প্রসঙ্গত, ইমরানের আগে ছোট পর্দার এক তরুণ অভিনেতার সঙ্গে প্রভার সম্পর্ক ছিল বলে শোনা যায়। সেই সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ায় অনেকদিন বিষাদে ডুবে ছিলেন অভিনেত্রী। তার সোশ্যাল মিডিয়ার পোস্টগুলোতে সেই বিষাদের ছায়া ছিল। সেই বিষাদ কাটিয়ে সুখের সাগরে ভেসেছিলেন ইমরানের সান্নিধ্যে। কিন্তু এই সুখও বুঝি টেকসই হলো না!

বিশ্ববিদ্যালয় জীবনে রাজীব নামের এক যুবকের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন প্রভা। তাদের বাগদানও হয়েছিল বলে জানা যায়। কিন্তু পরবর্তীতে ২০১০ সালে অভিনেতা জিয়াউল ফারুক অপূর্বকে বিয়ে করেন প্রভা। এরপরই রাজীবের সঙ্গে প্রভার একটি স্ক্যান্ডাল ছড়িয়ে পড়ে। যার কারণে এক বছর না যেতেই অপূর্বর সঙ্গে তার সংসার ভেঙে যায়। ২০১১ সালে মাহমুদ শান্ত নামের এক ব্যক্তিকে বিয়ে করেন প্রভা। সেই সংসারও টিকে ছিল ২০১৪ সাল পর্যন্ত।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ