Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ১৬ আষাঢ় ১৪২৯, ২৯ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

ওয়েস্ট ইন্ডিজ নয়, হজে যাচ্ছেন মুশফিক

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২২ মে, ২০২২, ১২:০০ এএম

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ শেষে বিশ্রামের সুযোগ পাচ্ছেনা ক্রিকেটাররা। কারণ এরপরই ওয়েস্ট ইন্ডিজে উড়াল দেবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। তবে আগামী মাস থেকে শুরু হতে যাওয়া ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে যাচ্ছেন না মুশফিকুর রহিম। জাতীয় অভিজ্ঞ এই ক্রিকেটার এই সময়টায় সউদী আরবে পবিত্র হজ পালন করতে যাবেন। তার ছুটির আবেদন মঞ্জুর করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। গতকাল এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন ক্রিকেট অপারেশন্স চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস। মুশফিক মূলত এক মাস আগেই হজে যাওয়ার পরিকল্পনা করে বিসিবিকে অবহিত করেন। কিন্তু হজে কোটা পাওয়া সাপেক্ষে বিষয়টি চূড়ান্ত হচ্ছিল না। চট্টগ্রাম টেস্টের আগে মুশফিকের হজে যাওয়া চূড়ান্ত হয়ে গেলে, তার দেওয়া ছুটির লিখিত আবেদনও মঞ্জুর করে বিসিবি, ‘মুশফিক আমাদের কাছে ছুটির আবেদন করেছিল হজে যাবে এজন্য। আমরা সেই ছুটি মঞ্জুর করেছি। কাজেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে তাকে আমরা পাচ্ছি না।’
ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কা সিরিজ শেষেই শুরু হয়ে যাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের যাওয়ার প্রক্রিয়া। আগামী ৫ জুন দুই টেস্ট, তিনটি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি খেলতে ওয়েস্ট ইন্ডিজে যাবে বাংলাদেশ দল। পূর্ণাঙ্গ এই সিরিজের কোন অংশেই পাওয়া যাচ্ছে না মুশফিককে। চট্টগ্রাম টেস্টে ধৈর্যশীল এক সেঞ্চুরি করে বাংলাদেশকে লিড এনে দেন মুশফিক। ওই ইনিংসের পথেই বাংলাদেশের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে স্পর্শ করেন টেস্টে ৫ হাজার রান। তার না থাকায় দলে বড় শূন্যতা তৈরি হবে, মানছেন ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান, ‘একটা বড় ঘাটতি থাকবে তো বটেই, ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর এমনিতেই কঠিন, সেখানে অভিজ্ঞ একজন ব্যাটসম্যান নেই। কিন্তু হজ করার মতো ব্যাপারে তো অনুমতি দেওয়া ছাড়া অন্য কিছু ভাবার সুযোগ নেই। আশা করি ভালোভাবে হজ করার পর আমরা তাকে সেরা চেহারায় পাব আবার।’
পাশাপাশি সফরে টেস্ট সিরিজে বাংলাদেশ প্রায় নিশ্চিতভাবেই পাচ্ছে না তাসকিন আহমেদ, শরিফুল ইসলাম ও নাঈম হাসানকে। এবার যোগ হলো মুশফিককে হারানোর ধাক্কা। সিরিজে পেস আক্রমণ নিয়ে তাই বেশ দুশ্চিন্তায় বাংলাদেশ দল। লাল বলের চুক্তিতে না থাকলেও তাই দলের সংকটকালে মুস্তাফিজুর রহমানকে চায় টিম ম্যানেজমেন্ট। এই বাঁহাতি পেসারের কাছে সে অনুযায়ী একটি চিঠিও পাঠানো হয়েছে।
টেস্ট খেলতে অনাগ্রহী মুস্তাফিজ বিসিবির সঙ্গে কেবল ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টির চুক্তিতে আছেন। দক্ষিণ আফ্রিকায় ওয়ানডে সিরিজ শেষ করেই তিনি যোগ দেন আইপিএলে। লাল বলের ক্রিকেটে না থাকায় বিসিবির কাছ থেকে অনুমিতভাবে পুরো আইপিএল খেলারই ছাড়পত্র পান। ঘরের মাঠে বাংলাদেশ শ্রীলঙ্কা সিরিজ খেললেও মুস্তাফিজ দিল্লি ক্যাপিটালসের হয়ে ব্যস্ত আছেন আইপিএলে। তবে এই সময়ে তার টেস্ট খেলা- না খেলা নিয়ে চলে অনেক আলোচনা। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসানও জানান, দলের প্রয়োজনে তাকে টেস্টে খেলতে হবে। সম্প্রতি একাধিক পেসার চোটে পড়ায় মুস্তাফিজকে টেস্টে ফেরানোর আলোচনা গতি পায়।
বিসিবি সূত্রে জানা গেছে, আইপিএলে থাকা মুস্তাফিজকে এরমধ্যে একটি আনুষ্ঠানিক চিঠি দেওয়া হয়েছে। সেখানে টেস্টের ব্যাপারে তার আগামীর পরিকল্পনা কি জানতে চেয়েছে বিসিবি। পাশাপাশি আসন্ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে মুস্তাফিজকে টেস্ট খেলার ব্যাপারে প্রস্তুত থাকতে বলা হয়েছে। তবে বিসিবির চিঠির জবাবে এখনো পর্যন্ত কোন প্রতিক্রিয়া দেখাননি বাঁহাতি পেসার।
১৬ জুন অ্যান্টিগায় প্রথম টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সেন্ট লুসিয়ায় ২৪ জুন হবে দ্বিতীয় টেস্ট। দুই টেস্টই হবে পেস বান্ধব উইকেটে। একাদশে তাই অন্তত তিনজন পেসার খেলাতে হবে মুমিনুল হকের দলকে। তাসকিন ও শরিফুল চোটে পড়ে না থাকায় ইবাদত হোসেন ও খালেদ আহমেদের পাশাপাশি তৃতীয় আরেকজন পেসারের সংকট আছে। আবু জায়েদ রাহি ফিট থাকলেও বৈচিত্র্যের জন্য একজন বাঁহাতি পেসারের অভাব টের পাচ্ছে দল। মুস্তাফিজ রাজি না থাকলে হয়ত থাকে ওয়েস্ট ইন্ডিজে টেস্ট খেলতে দেখা যাবে।
ডমিনিকায় ২ জুলাই শুরু হবে টি-টোয়েন্টি সিরিজ। একই ভেন্যুতে ৩ জুলাই দ্বিতীয় ম্যাচ। ৬ জুলাই গায়ানায় শেষ হবে টি-টোয়েন্টি সিরিজ। ১০ জুলাই গায়ানাতে শুরু হবে ওয়ানডে সিরিজ, ১৩ ও ১৬ জুলাই একই ভেন্যুতে আছে বাকি দুই ম্যাচ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ওয়েস্ট ইন্ডিজ নয়
আরও পড়ুন