Inqilab Logo

রোববার, ০৩ জুলাই ২০২২, ১৯ আষাঢ় ১৪২৯, ০৩ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

দু হাজার কোটি টাকার ড্রেজার সংগ্রহ প্রকল্পের আওতায় বরিশাল ড্রেজার বেজ-এর উদ্বোধন সোমবার

নাছিম উল আলম | প্রকাশের সময় : ২২ মে, ২০২২, ৯:৩৫ এএম

দক্ষিণাঞ্চল সহ সারা দেশের নৌপথের নাব্যতা উন্নয়নে নদী খনন কার্যক্রম যোরদারে ২ হাজার ৩০ কোটি টাকা ব্যায় সাপেক্ষ ‘২০টি ড্রেজার সহ সহায়ক যন্ত্রপাতি এবং সরঞ্জামাদী সংগ্রহ প্রকল্প’এর আওতায় বরিশালে পূর্ণাঙ্গ ড্রেজার বেজ-এর উদ্বোধন হচ্ছে সোমবার। নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বরিশালে কির্তনখোলা নদী তীরে অধুনালুপ্ত মেরিন ওয়ার্কসপ প্রাঙ্গনে নব নির্মিত এ ড্রেজার বেজ-এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন। অনুষ্ঠানে বিআইডব্লিউটিএ’র চেয়ারম্যান কমোডর গোলাম সাদেকÑবিএন ছাড়াও কতৃপক্ষের উর্ধতন কর্মকর্তাগন উপস্থিত থাকবেন বরে জানা গেছে।

দেশের নৌপথে ক্রমবর্ধমান ড্রেজিং চাহিদা মেটাতে বিআইডব্লিউটিএ’র নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় নদী খনন ক্ষমতা বছরে ২ কোটি ৩৩ লাখ ঘন মিটারে উন্নীত করার লক্ষ্যে দেশীয় তহবিলে ২০টি ড্রেজার সংগ্রহে ২০১৫ সালের ১১ আগষ্ট একনেক ২ হাজার ৩০ কোটি টাকার প্রকল্পটি অনুমোদন করে। ২০১৫-এর ৪ নভেম্বর নৌ পরিবহন মন্ত্রনালয় থেকে প্রকল্পটির প্রশাসনিক অনুমোদন দেয়ার পরে এর বাস্তবায়ন কার্যক্রম শুরু হয়। ২০১৫-এর জুন থেকে ’২২ সালের মধ্যে প্রকল্পটির বাস্তবায়ন সম্পন্ন হচ্ছে। জার্মেনীর ‘ব্যুরো আব ভেরিটাস’ এবং ‘লয়েডস রেজিষ্ট্রার’ সংগৃহীত ২০টি ড্রেজার ও ৯২টি আনুষঙ্গিক নৌযান সহ সহায়ক সরঞ্জামাদির গুনগতমান যাচাই বাছাই কাজে নিয়োজিত ছিল।

পাশাপাশি বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ‘মিলিটারী ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি-এমআইএসটি’ পুরো প্রকল্পটির পরামর্শকের দায়িত্ব পালন করেছে বলে নৌ পরিবহন মন্ত্রনালয় জানিয়েছে। নেদারল্যান্ডের ‘আইএইচসি ড্রেজার গেজ’ এবং যুক্তরাষ্ট্রের ‘এলিকট ড্রেজারসÑএলএলসি’র ডিজাইন, ড্রইং ও কারিগরী সহায়তায় আমাদের দেশীয় নৌ নির্মান প্রতিষ্ঠান ‘কর্ণফুলী শিপ বিল্ডার্স’ এসব ড্রেজার সহ সহায়ক নৌযান এবং সরঞ্জামী নির্মান ও সরবারহ করেছে।

প্রকল্পটির আওতায় বরিশাল, খুলনা, নারায়নগঞ্জ, আরিচা ও শিমুলিয়া’তে ৫টি ড্রেজার বেজ নির্মান করা হয়েছে। সংগৃহীত ৬টি ২৬ ইঞ্চি, ৯টি ২০ ইঞ্চি ও ৫টি ১৮ ইঞ্চি সাকশন কাটার ড্রেজার ইতোমধ্যে দেশের অভ্যন্তরীন নৌপথের নাব্যতা উন্নয়ন ও সংরক্ষনে খনন কাজে অংশ নিচ্ছে। প্রকল্পটির আওতায় ৯২টি সহায়ক সরঞ্জাম ও নৌযানের মধ্যে ক্রেনবোট, ক্রু-হাউজবোট, অফিসার্স হাউজবোট, ইনল্যান্ড সার্ভে ভেসেল, পাইপ কেরিং ডাম্ব বার্জ, ড্রেজার স্থানন্তরের জন্য টাগবোট, সেলফ প্রপেল্ড পাইপ কেরিং বার্জ, সার্ভে ওয়ার্ক বোট, সেলফ প্রপেল্ড ওয়াটার কেরিং বার্জ এবং সেলফ প্রপেলড অয়েল কেরিং বার্জ সংগ্রহ করা হয়েছে।

প্রকল্পটির আওতায় সেনাবাহিনী’র এমআইসটি’র তত্ববধানে বরিশালে ২৩ কোটি ৬২ লাখ টাকা ব্যায়ে প্রায় ৪০ হাজার বর্গফুটের ৬ তলা প্রশাসনিক ভবন, ৫ তলা স্টাফ ডরমিটারি ভবন, মসজিদ, সীমানা প্রাচীর, গভীর নলকুপ, অভ্যন্তরীণ রাস্তা, ভূÑউপারীস্থিত পয়ঃনিস্কাশন ব্যাবস্থা এবং স্টিল গ্যাংওয়ে, স্পাড ও আরসিসি গ্যাংওয়ে সহ একটি পূর্ণাঙ্গ বেজ নির্মিত হয়েছে।

এরফলে সমগ্র দক্ষিণাঞ্চলের প্রায় ১২শ কিলোমিটার নৌপথের নিয়মিত খনন ও তদারকি সহ ড্রেজার সমুহের মেরামত ও রক্ষনাবেক্ষনের পাশাপাশি কর্মকর্তা কর্মচারীদের সার্বক্ষনিক অবস্থানের মাধ্যমে বন্দর কার্যক্রম পরিচালন সহজতর হবে বলে কতৃপক্ষ আশা করছেন। ফলে নদ-নদী নির্ভর দক্ষিনাঞ্চলের যোগাযোগ ব্যবস্থায় নৌপথের অতীত ঐতিহ্য পুনরুদ্ধার সম্ভব হবে বলেও মনে করছেন নদী বিশেষজ্ঞগন। তবে তার জন্য সংশ্লিষ্টদের সততা ও আন্তরিকতার পাশাপাশি সময়োচিত পদক্ষেপ গ্রহন সহ বাস্তবায়নের তাগিদ দিয়েছেন ওয়কিবাহাল মহল।

বিআইডবিøউটিএ’র প্রকৌশল বিভাগের নিবিড় নজরদারীতে ‘এসএসআরআই-কেএসএল-কেএসবিএল-জেভি’ বরিশাল ড্রেজার বেজটি নির্মান কাজ সম্পন্ন করেছে। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর এমআইএসটি প্রকল্পটির পরামর্শকের দায়িত্ব পালন করে বলে জানিয়েছে নৌ পরিবহন মন্ত্রনালয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ