Inqilab Logo

রোববার, ২৬ জুন ২০২২, ১২ আষাঢ় ১৪২৯, ২৫ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

এবারই প্রথম ‘রাস্তায় ঈদের নামাজ ও লাউডস্পিকার বন্ধ’ বলে যোগির নতুন চমক

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ মে, ২০২২, ১২:৫৩ পিএম

সর্বশেষ আরএসএস ইভেন্টে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ যে বিষয়গুলো গুরুত্বের সাথে তুলে ধরেছেন, সেগুলোর মধ্যে রাস্তায় ঈদের নামাজ বন্ধ ও লাউডস্পিকার আস্তে বেজেছে উল্লেখযোগ্য। যোগীর মতে, ডাবল-ইঞ্জিন সরকারের কাঠামোর কারণে উত্তরপ্রদেশ (ইউপি) দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থনীতিতে পরিণত হয়েছে। -ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

 

ইউপিতে প্রথমবারের মতো রাস্তায় ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত হয়নি এবং সাম্প্রতিক ক্র্যাকডাউনের পরে রাজ্যের মসজিদে লাউডস্পিকারের ভলিউম কমে গেছে, রবিবার মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ এসব কথা বলেন। আর এসব সম্ভব হয়েছে তার সরকার নির্বাচনে ক্ষমতা ধরে রাখার কারণে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

তিনি আরএসএস-অধিভুক্ত ম্যাগাজিন অর্গানাইজার এবং দেশের স্বাধীনতার ৭৫ বছর উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছিলেন। অন্যান্য বিজেপি মুখ্যমন্ত্রীরাও এই অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করছিলেন। তাদের মধ্যে গোয়ার প্রমোদ সাওয়ান্ত অতীতে ধ্বংস হওয়া মন্দিরগুলিকে পুনর্নির্মাণের আহ্বান জানিয়েছিলেন এবং উত্তরাখণ্ডের পুষ্কর সিং ধামি উল্লেখ করেছিলেন যে, তাঁর রাজ্য অভিন্ন সিভিল কোড কার্যকর করার জন্য একটি "বিশেষ কমিটি" গঠন করবে। মণিপুর (এন বীরেন সিং), হিমাচল প্রদেশ (জয় রাম ঠাকুর) এবং হরিয়ানার (এম এল খট্টর) মুখ্যমন্ত্রীরা বেশিরভাগই তাদের রাজ্যে বিভিন্ন সরকারি প্রকল্প এবং উন্নয়ন প্রকল্প সম্পর্কে কথা বলেছেন। আদিত্যনাথ ইউপিতে বিজেপির ক্ষমতা ধরে রাখার কথা উল্লেখ করেছেন এবং গত মাসে ধর্মীয় উৎসবের মধ্যে কিছু অন্যান্য রাজ্যে সাম্প্রদায়িক সংঘর্ষের প্রেক্ষাপটে আইন-শৃঙ্খলার ক্ষেত্রে তার সরকারের অর্জনের কথা বলেছেন।

যোগি বলেন, অনেক রাজ্যে নির্বাচন শেষ হওয়ার পর দাঙ্গা হয়েছে। নির্বাচনের সময় বা পরে ইউপিতে কোনও দাঙ্গা হয়নি।
সরকার গঠনের পরে, রাম নবমী উত্সবের সাথে পালিত হয়েছিল। শান্তিপূর্ণভাবে শেষ হয়েছে হনুমান জয়ন্তী। এই একই ইউপি যেখানে ছোট ছোট বিষয় নিয়ে দাঙ্গা হয়। এখন আপনি নিশ্চয়ই এবার প্রথম দেখেছেন যে, রাস্তায় ঈদের নামাজ হয় না। আপনারা নিশ্চয়ই শুনেছেন যে, হয় মসজিদের লাউডস্পীকারের ভলিউম কমে গেছে, নয়তো লাউডস্পীকার সম্পূর্ণ সরিয়ে ফেলা হয়েছে। এখন এই লাউডস্পিকারগুলি তাদের ব্যবহারের জন্য স্কুল এবং হাসপাতালে দান করা হচ্ছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ