Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ১৪ আষাঢ় ১৪২৯, ২৭ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

ইংল্যান্ডে সিটি, ইতালিতে মিলান

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৪ মে, ২০২২, ১২:০৫ এএম

দীর্ঘ ৯ মাসের হাড্ডাহাড্ডি শিরোপা দৌড়ের সব রোমাঞ্চ যেন জড়ো হলো শেষ দিনে। আরও নির্দিষ্ট করে বললে অন্তিম ৪৫ মিনিটে। দুই গোলে পিছিয়ে পড়ে এতদিনের সব প্রচেষ্টা তখন বিফলে যাওয়ার শঙ্কায় ম্যানচেস্টার সিটি। অন্যদিকে একটি গোলের অপেক্ষায় লিভারপুল। তবে পাঁচ মিনিটের নাটকীয়তায় পাল্টে গেল সব। খাদের কিনারা থেকে ঘুরে দাঁড়িয়ে অসাধারণ এক জয় তুলে নিয়ে উৎসবে মাতল পেপ গার্দিওলার দল।
গতপরশু রাতে ইতিহাদ স্টেডিয়ামে অ্যাস্টন ভিলাকে ৩-২ গোলে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হলো সিটি। ম্যাচের ৭৫ মিনিট পর্যন্ত দুই গোলে পিছিয়ে থাকার পর ইলকাই গিনদোয়ানের নৈপুণ্যে ব্যবধান কমায় তারা। পরক্ষণে সমতা টানেন রদ্রি। এর পরপরই গিনদোয়ানের দ্বিতীয় গোলে শিরোপা ধরে রাখা নিশ্চিত হয় সিটির। ইংল্যান্ডের শীর্ষ লিগের ইতিহাসে এই নিয়ে অষ্টমবার চ্যাম্পিয়ন হলো তারা; এর মধ্যে ২০১১-১২ মৌসুম থেকেই জিতল ৬ বার!
অ্যানফিল্ডে একই সময়ে শুরু হওয়া ম্যাচে শুরুতে পিছিয়ে পড়লেও দারুণ আক্রমণাত্মক ফুটবলে দ্রুতই ঘুরে দাঁড়ায় লিভারপুল। অনেক অপেক্ষার শেষ দিকে জয়সূচক গোলের দেখাও পায় তারা; কিন্তু ৩-১ গোলে জয়ের পরও আরও একবার শিরোপার হাতছোঁয়া দূরত্ব থেকেই খালি হাতে ফিরতে হলো তাদের। তিন বছর আগে ২০১৮-১৯ মৌসুমেও ঠিক একইভাবে ট্রফি উঁচিয়ে ধরেছিল সিটি। আর স্বপ্ন ভাঙার হতাশায় মাঠ ছেড়েছিল লিভারপুল।
এরই সঙ্গে অসাধারণ এক কীর্তিতে নাম লেখাল গার্দিওলা ও তার দল; পাঁচ বছরে চারবার জিতল লিগ শিরোপা। দারুণ এই সাফল্য আর আছে কেবল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের। স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসনের কোচিংয়ে ক্লাবটি অবশ্য এই কীর্তি গড়েছিল তিনবার। শেষ হয়ে গেল বহুল আলোচিত লিভারপুলের ‘কোয়াড্রপল’ জয়ের স্বপ্ন। তবে লিগ কাপ ও এফএ কাপ জয়ী দলটির সামনে এখনও বেঁচে আছে ‘ট্রেবল’ জয়ের সম্ভাবনা। আগামী শনিবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে রিয়াল মাদ্রিদের মুখোমুখি হবে ক্লপের দল।
একই রাতে সাজানো মঞ্চে জোড়া গোলে আলো ছড়ালেন অলিভিয়ে জিরুদ। রাফায়েল লেয়াও করলেন অ্যাসিস্টের হ্যাটট্রিক। দাপুটে পারফরম্যান্সে সসুয়োলোকে হারিয়ে ১১ মৌসুম পর সেরি আর মুকুট পরল এসি মিলান। চ্যাম্পিয়ন হতে এদিন শেষ রাউন্ডে তাদের ড্র করলেই চলত। তবে বড় জয় দিয়েই শিরোপা উৎসব করল ইতালির ঐতিহ্যবাহী দলটি। প্রতিপক্ষের মাঠে ৩-০ গোলে জিতল স্তেফানো পিওলির দল। সবগুলো গোলই হয় ম্যাচের প্রথমার্ধে। অন্যটি করেন ফ্রাঁক কেসিয়ে।
শেষ রাউন্ড পর্যন্ত তাদের সঙ্গে শিরোপা লড়াইয়ে থাকা ইন্টার মিলান একই সময়ে শুরু হওয়া আরেক ম্যাচে ৩-০ ব্যবধানে জিতেছে সাম্পদোরিয়ার বিপক্ষে। তবে শিরোপা ধরে রাখতে তাদের শুধু জিতলেই হতো না, হারতে হতো এসি মিলানকে।
৩৮ ম্যাচে ৮৬ পয়েন্ট নিয়ে ১৯তম লিগ শিরোপা জিতল এসি মিলান। ৮৪ পয়েন্ট নিয়ে রানার্সআপ ইন্টার মিলান।
সিরি ‘আ’য় জুভেন্টাসের টানা ৯ বছরের আধিপত্য ভেঙে, ১১ বছরের অপেক্ষা ঘুচিয়ে গত মৌসুমে শিরোপা জিতেছিল ইন্টার। এবার তাদের নগরপ্রতিদ্বন্দ্বীদেরও ১১ বছরের অপেক্ষা ফুরাল। ইতালির শীর্ষ লিগে সবচেয়ে বেশি শিরোপা জয়ের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে থাকা ইন্টার মিলানের পাশে বসল এসি মিলান। ৩৬টি ট্রফি নিয়ে চূড়ায় জুভেন্টাস।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইংল্যান্ডে সিটি
আরও পড়ুন