Inqilab Logo

রোববার, ০৩ জুলাই ২০২২, ১৯ আষাঢ় ১৪২৯, ০৩ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

১২৬ কোটি টাকা আত্মসাত মামলায় খুলনায় সোনালী ব্যাংক কর্মকর্তার জামিন নামঞ্জুর

খুলনা ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৪ মে, ২০২২, ৫:২৭ পিএম

গুদামজাত পাটের বিপরীতে ব্যাংক ঋণের ১২৬ কোটি টাকা আত্মসাতের মামলার খুলনায় সোনালী ব্যাংক করপোরেট শাখার কর্মকর্তা কাজী হাবিবুর রহমানের জামিন আবেদন ফের না-মঞ্জুর করেছেন আদালত। আজ মঙ্গলবার (২৪ মে) দুপুরে মহানগর বিশেষ আদালতে জামিনের আবেদন করলে বিচারক মাহমুদা খাতুন জামিন আবেদন না-মঞ্জুর করেন। এর আগে গত ২৬ এপ্রিল আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে বিচারক তাকে কারাগারে প্রেরণ করেন। দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)’র আইনজীবী অ্যাড. খন্দকার মজিবর রহমান তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
আদালত সূত্রে জানা গেছে, সোনালী ব্যাংক থেকে ২০১০ সালে কয়েক দফায় ৮৫ কোটি ৮০ লাখ ৬৯ হাজার টাকা ঋণ গ্রহণ করে মেসার্স সোনালী জুট মিল। কিন্তু এর বিপরীতে পাট ক্রয় না করে ওই টাকা আসামিরা পরস্পর যোগসাজোশে আত্মসাৎ করেন। যা বর্তমানে সুদ আসলে ১২৬ কোটি ৮২ লাখ ৯৩ হাজার টাকা হয়েছে। এ ঘটনায় দুদক খুলনা সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপ-সহকারী পরিচালক মো. মোশাররফ হোসেন বাদী হয়ে ২০১৭ সালে খানজাহান আলী থানায় মামলা করেন। মামলা নং- ৬ (২২/০২/২০১৭)।
আইনজীবী খন্দকার মজিবর রহমান জানান, উচ্চ আদালতে জামিন শেষে গত ২৬ এপ্রিল আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে বিচারক তাকে কারাগারে প্রেরণ করেন। এরপর আজ ২৪ মে ফের জামিনের আবেদন করলে বিচারক আবারও জামিন না-মঞ্জুর করে তাকে কারাগারে রাখার নির্দেশ দেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সোনালী ব্যাংক

২১ জুন, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ