Inqilab Logo

সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ১৩ আষাঢ় ১৪২৯, ২৬ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

ইউরোপের পর এবার হংকং যাচ্ছে সাতক্ষীরার আম

আগামীকাল বাজারে আসছে হিমসাগর ও ল্যাংড়া

আক্তারুজ্জামান বাচ্চু, সাতক্ষীরা খেকে | প্রকাশের সময় : ২৫ মে, ২০২২, ১২:০২ এএম

আগামীকাল ২৬ মে বাজারে আসছে আমের রাজা হিমসাগর ও ল্যাংড়া। যদিও আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের আগেই বাজারে হিমসাগর ও ল্যাংড়া আমের দেখা মিলেছে। সাতক্ষীরার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আম চাষিরা তাদের বাগানের আম বাজারে আনতে শুরু করেছেন।
সরেজমিনে গতকাল মঙ্গলবার সাতক্ষীরা সুলতানপুর বড়বাজার ঘুরে দেখা গেছে আমের সমারহ। গোবিন্দভোগ, ফজলি, ল্যাংড়া, হিমসাগরসহ বিভিন্ন প্রজাতির আম বিক্রি হচ্ছে। পাইকারি ও খুচরা বিক্রি হচ্ছে এসব আম। সাতক্ষীরার সুস্বাদু এই আম জেলা শহর থেকে রাজধানী ঢাকার সদরঘাট এলাকাসহ বিভিন্ন স্থানে ট্রাকে নিয়ে যাচ্ছেন ব্যবসায়ীরা। এ আম শুধু রাজধানী ঢাকাতে নয় বিদেশেও রফতানি হচ্ছে। ফ্রান্স, জার্মানি, যুক্তরাজ্য, ইতালি ও পর্তুগালের পর এবছর প্রথমবার হংকংয়ে আম রপ্তানি হচ্ছে। হংকংয়ে পরীক্ষামূলকভাবে ১০০ কেজি গোবিন্দভোগ আম পাঠানো হয়েছে। এই আম বিক্রি হবে এশিয়ান মার্চেন্ট হংকং-এর বাজারে। গত ১৯ মে বিদেশে আম রপ্তানির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়েছে। প্রায় এক দশক ধরে সাতক্ষীরার সুস্বাদু আম যাচ্ছে ইউরোপের বাজারে। আর এবার যুক্ত হলো হংকং।
সাতক্ষীরা জেলা কৃষি অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. নূরুল ইসলাম বলেন, জেলার ৪ হাজার ১১৫ হেক্টর জমিতে আম চাষ করা হয়েছে। ১৩ হাজার ১০০ জন চাষি আম উৎপাদনে কাজ করেছেন। ৫ হাজার ২৯৯টি বাগানে ৪০ হাজার মেট্রিক টন আম উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে। তিনি বলেন, ইতোমধ্যেই বাজারে গোবিন্দভোগ, গোপালভোগ, গোলাপখাসসহ বিভিন্ন প্রজাতির আম বিক্রি শুরু হয়েছে। আর ২৬ মে হিমসাগর, ল্যাংড়া বাজারে আসবে। পহেলা জুন থেকে আম্রপালি আম পাড়া শুরু হবে। তিনি বলেন, এবছর সারা দেশ থেকে ৬০০ টন আম বিদেশে রফতানি হবে। তার মধ্যে ১০০ টন আম সাতক্ষীরা থেকে যাবে। আম চাষি লিয়াকত হোসেন ও মোকারম হোসেন জানান, বৈরী আবহাওয়ার কারণে এবার সাতক্ষীরায় আমের ফলন বিগত বছরের তুলনায় অনেক কম হয়েছে। আমের আকারও হয়েছে ছোট। তাছাড়া, ঝড়ের আশংকায় এবার আমচাষিরা আতংকিত হয়ে নির্দিষ্ট সময়ের আগেই আম পেড়ে বাজারজাত করেছেন। একারণে আমের প্রকৃত স্বাদ থেকে অনেকেই বঞ্চিত হয়েছেন। ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন বহু আম চাষি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন