Inqilab Logo

রোববার, ২৬ জুন ২০২২, ১২ আষাঢ় ১৪২৯, ২৫ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

শেষ ম্যাচ জিতেও অপেক্ষায় বসুন্ধরা কিংস

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৪ মে, ২০২২, ৯:৩৬ পিএম

এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশন (এএফসি) কাপের ‘ডি’ গ্রুপে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে ভারতের মোহনবাগানের কাছে বড় ব্যবধানে না হারলে হয়তো সমীকরণটা এতো কঠিন হতো না বসুন্ধরা কিংসের জন্য। কারণ তিন ম্যাচের মধ্যে দু’টিতে জিতেছে তারা। প্রথম ম্যাচে মালদ্বীপের ক্লাব মাজিয়া স্পোর্টস এন্ড রিক্রিয়েশনকে হারানোর পর মঙ্গলবার নিজেদের শেষ ম্যাচে ইন্ডিয়ান সুপার লিগের (আইএসএল) চ্যাম্পিয়ন গোকুলাম কেরালাকে হারিয়েছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের চ্যাম্পিয়নরা। এদিন কলকাতার বিশ্ব যুব ভারতী স্টেডিয়ামে বসুন্ধরা ২-১ গোলে হারায় কেরালাকে। এই ফলাফলের পর ভারতের গোকুলাম কেরালা ও মালদ্বীপের মাজিয়া স্পোর্টসের বিদায় নিশ্চিত হয়েছে। তবে গ্রুপ সেরা হওয়ার দৌড়টা এখন বাংলাদেশের বসুন্ধরা কিংস ও ভারতের মোহনবাগানের মধ্যেই রয়েছে।

এই জয়ে তিন ম্যাচ শেষে বসুন্ধরার পয়েন্ট ৬। এখন মাজিয়ার বিপক্ষে পয়েন্ট হারালেই কেবল বাংলাদেশের ক্লাবটি এএফসি কাপের আঞ্চলিক পর্বের প্লে-অফ খেলতে পারবে। মোহনবাগান যদি মালদ্বীপের মাজিয়াকে হারিয়ে দেয়। সেক্ষেত্রে বসুন্ধরা কিংস ও মোহনবাগানের পয়েন্ট সমান ৬ হবে তখন হেড টু হেডে মোহনবাগান পরের পর্বে খেলবে। অন্যদিকে মোহনবাগের বিপক্ষে মাজিয়া জয় পেলে তাদেরও ৬ পয়েন্ট হবে। কিন্তু এক্ষেত্রে মাজিয়াকে হারানোয় হেড টু হেডে পরবর্তী রাউন্ডে খেলতে পারবে বসুন্ধরা। আর মোহনবাগান-মাজিয়া ম্যাচটি ড্র হলে বসুন্ধরা অনায়াসেই গ্রুপ সেরা হিসেবে পৌঁছে যাবে পরের রাউন্ডে। এএফসি কাপের আঞ্চলিক পর্বের প্লে-অফ খেলার জন্য মোহনবাগান-মাজিয়া ম্যাচের দিকে চেয়ে থাকতে হচ্ছে বসুন্ধরা কিংসকে। কলকাতার বিশ্ব যুব ভারতী স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার বাংলাদেশ সময় রাত ৯টায় শুরু হয়েছে ম্যাচটি। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত (রাত ৯টা ৩০ মিনিট) মোহনবাগান ১-০ গোলে এগিয়ে রয়েছে।

আগের ম্যাচে মোহনবাগানের কাছে ০-৪ গোলে হেরে বিধ্বস্ত হওয়া বসুন্ধরা কিংস মঙ্গলবার স্বাভাবিক ছন্দেই ছিল। একাদশে তিনটি পরিবর্তন আনেন তাদের স্প্যানিশ কোচ অস্কার ব্রুজোন। প্রথম ম্যাচের জয়সূচক গোলদাতা নুহা মারংকে একাদশে নেন তিনি। এ ম্যাচেও গোল করে কোচের আস্থার প্রতিদান দিয়েছেন নুহা মারং। আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলে ম্যাচের ৩৬ মিনিটে বক্সের মধ্যে দুর্দান্ত এক কোণাকুনি শটে গোল করে দলকে এগিয়ে নেন বসুন্ধরার ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড রবসন দ্য সিলভা রবিনহো (১-০)। এগিয়ে থেকে বিরতিতে গিয়ে দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে ব্যবধান বাড়ায় কিংসরা। ম্যাচের ৫৪ মিনিটে ডানপ্রান্ত দিয়ে প্রতিপক্ষের একজনকে পিছনে ফেলে রবিনহো নিখুঁত ক্রস করলে দারুণ হেডে গোল করেন নুহা মারং (২-০)। মোহনবাগানকে হারিয়ে চমক সৃষ্টি করা গোকুলাম কেরালা ম্যাচে ফেরার চেষ্টা করেছে প্রায়ই। ম্যাচের ৭৫ মিনিটে সংঘবদ্ধ একটি আক্রমণ থেকে গোল করে সমতা আনে দলটি। এসময় ডানপ্রান্ত দিয়ে বদলী ডিফেন্ডার জসিমের ক্রসে দৌড়ে এসে ডান পায়ের শটে গোল করেন কেরালার জ্যামাইকান ফরোয়ার্ড ফ্লেচার (১-২)। তবে শেষ পর্যন্ত হার নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় কেরালাকে। আর ২-১ ব্যবধানের জয় পেয়ে অপেক্ষার প্রহর গুনছে বসুন্ধরা কিংস।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন