Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ১৪ আষাঢ় ১৪২৯, ২৭ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

ছাত্রদল হামলা-মামলাকে ভয় করে না: শ্রাবণ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৫ মে, ২০২২, ৯:৪৫ পিএম

ছাত্রদল হামলা-মামলায় ভয় পায় না বলে জানিয়েন সংগঠনটির সভাপতি কাজী রওনকুল ইসলাম শ্রাবণ। তিনি বলেন, যেকোন মূল্যে ছাত্রদল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে স্বাভাবিক কার্যক্রম পরিচালনা করতে চায়। এসময় তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের স্বাভাবিক সম্প্রীতির পরিবেশ বজায় রাখার জন্য ভিসির হস্তক্ষেপ কামনা করেন। বুধবার (২৫ মে) বিকেলে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

ছাত্রদল সভাপতি বলেন, গতকালের ঘটনা সম্পর্কে সবাই অবগত আছেন। কি হয়েছে সেটা সবাই জানেন। কিন্তু আমরা আজকেও সকাল থেকে প্রত্যক্ষ করছি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের ইন্ধনে বহিরাগত ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীরা লাটিসোটা, চাপাতি, হকিস্টিক এবং বিভিন্ন অস্ত্র সস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় পাহারা দেয়ার নামে, পুরো বিশ্ববিদ্যালয়তো বটেই শহরের ওই অংশে একটি ভীতিকর পরিস্থিতির সৃষ্টি করছে। তারা গুন্ডা বাহিনীর মতো মোটরসাইকেল মহড়া দিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে মহড়া দিচ্ছে এবং ক্যাম্পাস জুড়ে ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছে। দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় ছাত্র সংগঠন হিসেবে স্বাভাবিকভাবেই সাধারণ ছাত্র ছাত্রীরা আমাদের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দের কাছে অভিযোগ করে জানিয়েছে, তারা সেখানে মোটেও নিরাপদ অনুভব করছে না।

শ্রাবণ অভিযোগ করে বলেন, 'ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বহিরাগত সন্ত্রাসীদের অভয়ারণ্যের পরিবেশ দীর্ঘদিন থেকে চলে আসছে। তবে সেটা এখন সকল সীমা অতিক্রম করেছে। আর এজন্যই আমরা উদ্ভূত এই পরিস্থিতি জাতির সামনে তুলে ধরার জন্য; আজ কেন্দ্রীয় সংসদের পরামর্শে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদল ক্যাম্পাসে তাদের স্বাভাবিক রাজনৈতিক কার্যক্রম পরিচালনা থেকে বিরত থেকেছে।

তিনি বলেন, ছাত্রদল দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বের অতন্দ্র প্রহরী হিসেবে প্রতিষ্ঠার পর থেকে কাজ করে যাচ্ছে। ছাত্রদল মনে করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস বাংলাদেশের গণতন্ত্রের প্রতীক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মাধ্যমে বাংলাদেশ তার মুখের ভাষার স্বীকৃতি পেয়েছে, বাংলাদেশ পেয়েছে একটি স্বাধীন পতাকা এবং স্বাধীন মাতৃভূমি। এই বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গন সংগঠনের মুক্ত চিন্তা ও স্বাধীন মতামত প্রকাশের জায়গা। কিন্তু যখন দেখি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হলে হলে, বিভিন্ন জায়গায় সাধারণ ছাত্র-ছাত্রীরা মার খাচ্ছে, বিশ্ববিদ্যালয় পরিবেশ পরিষদ কর্তৃক অনুমোদিত অন্যান্য ক্রিয়াশীল ছাত্র সংগঠনের নেতাকর্মীরা মার খাচ্ছে। তখন দেশের সাধারণ ছাত্র-ছাত্রীদের প্রতিনিধিত্বকারী ছাত্র সংগঠন হিসেবে এর পরিবেশ সুষ্ঠু রাখার দায় আমাদের উপরও বর্তায়। আমরা দৃঢ় প্রতিজ্ঞ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বাভাবিক পরিবেশ বজায় রাখার জন্য।

কাজী রওনকুল ইসলাম বলেন, 'আমরা ভিসির কাছে আবারও বিনীত অনুরোধ কররো, আপনি পুরো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল ছাত্র-ছাত্রীদের অভিভাবক। আপনার অভিভাবক সুলভ আচরণের মাধ্যেমে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের স্বাভাবিক সম্প্রীতির পরিবেশ বজায় রাখা সম্ভব। আপনার কাছে অনুরোধ, আপনি সকল ছাত্র-ছাত্রীদের কোন সংগঠনের পরিচয়ে মূল্যায়ন না করে আপনার বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রী হিসাবে মূল্যায়ন করুন। তাহলে আপনি হতে পারবেন ক্যাম্পাসের সত্যিকারের একজন অভিভাবক। আর তা আপনার কর্তব্যও বটে। শুধুমাত্র ছাত্রদল নয়; সকল ক্রিয়াশীল ছাত্র সংগঠন এবং সকল ছাত্র ছাত্রীরা আপনাকে একজন নির্দলীয় অভিভাবকের ভূমিকায় দেখতে চায়। আমরা বিশ্বাস করি আপনার দৃঢ় ভূমিকা এই ক্যাম্পাসকে সন্ত্রাস মুক্ত করতে অনন্য ভূমিকা রাখবে। অন্যথায় আপনি ও আপনার কর্মকান্ড জাতির কাছে প্রশ্নবিদ্ধ হবে।

সংবাদ সম্মেলনে ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ জুয়েল, সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম রাকিব, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত আহবায়ক আকতার হোসেন, সদস্য সচিব আমান উল্লাহ আমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ