Inqilab Logo

রোববার, ০৩ জুলাই ২০২২, ১৯ আষাঢ় ১৪২৯, ০৩ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

মার্কিন স্কুলে বন্দুকবাজের হামলায় ১৯ শিশু, ২ শিক্ষক নিহত

চলতি বছর ২১২ বন্দুক হামলা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৬ মে, ২০২২, ১২:০০ এএম

আমেরিকার টেক্সাসের একটি প্রাথমিক স্কুলে বন্দুকবাজের গুলিচালনায় নিহত ১৮ শিক্ষার্থী-সহ কমপক্ষে ২১ জন। আহত বহু। টেক্সাসের স্থানীয় সময় অনুযায়ী মঙ্গলবার এই ঘটনা ঘটে। হামলায় পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয়েছে অভিযুক্ত কিশোর বন্দুকবাজের। একটি বিবৃতি জারি করে এ তথ্য জানিয়েছেন ওই রাজ্যের গভর্নর গ্রেগ অ্যাবট। এটিসহ যুক্তরাষ্ট্রে এ বছর এখন পর্যন্ত নির্বিচারে গুলি চালানোর অন্তত ২১২টি ঘটনা ঘটেছে। বেসরকারি সংস্থা গান ভায়োলেন্স আর্কাইভের (জিভিএ) বরাত দিয়ে সিএনএন এ তথ্য জানিয়েছে।

টেক্সাস প্রশাসন সূত্রে খবর, ইউভালডে কাউন্টির প্রাথমিক স্কুলে গুলিচালনার ঘটনায় অভিযুক্ত কিশোরের নাম সালভাদর র‌্যামোস (১৮)। মঙ্গলবার একটি হ্যান্ডগান এবং রাইফেল নিয়ে স্কুলে ঢুকে পড়ে এলোপাথাড়ি গুলি চালাতে শুরু করে সে। ঘটনাস্থলেই গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হন ২১ জন। তাদের মধ্যে ১৮ জন শিশুও রয়েছে। এ ছাড়াও অনেকে আহত হয়েছেন। আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে। বন্দুকবাজের সঙ্গে গুলির লড়াইয়ে হতাহতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা প্রশাসনের। তবে আহতদের মধ্যে দু’জন পুলিশ আধিকারিকের অবস্থা স্থিতিশীল বলে সংবাদ সংস্থা এএফপি সূত্রে খবর।

আমেরিকার সংবাদমাধ্যমের দাবি, টেক্সাসের ইতিহাসে এ ধরনের হামলা আগে কখনও হয়নি। এমনকি, গত এক দশকের মধ্যে আমেরিকার ইতিহাসে এটিই অন্যতম বড় হামলা। ঘটনার পর টুইট করে শোকবার্তা জানান টেক্সাস গভর্নর। এই পরিস্থিতিতে রাজ্যবাসীকে একজোট হয়ে থাকারও আর্জি জানিয়েছেন তিনি। হোয়াইট হাউসের তরফে জানানো হয়েছে, মঙ্গলবারের হামলার নিহতদের পরিবারের প্রতি শোক ব্যক্ত করতে ২৮ মে অবধি সূর্যাস্ত পর্যন্ত জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখার নির্দেশ দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডো বাইডেন।

এটিসহ যুক্তরাষ্ট্রে এ বছর এখন পর্যন্ত নির্বিচারে গুলি চালানোর অন্তত ২১২টি ঘটনা ঘটেছে। বেসরকারি সংস্থা গান ভায়োলেন্স আর্কাইভের (জিভিএ) বরাত দিয়ে সিএনএন এ তথ্য জানিয়েছে। যেসব গুলিবর্ষণের ঘটনায় হামলাকারী ছাড়া চার বা ততোধিক ব্যক্তি আহত বা নিহত হয়, সেগুলোকে নির্বিচারে গুলিবর্ষণ হিসেবে সংজ্ঞায়িত করেছে সিএনএন এবং গান ভায়োলেন্স আর্কাইভ। ২০১২ সালে কানেকটিকাটে একটি স্কুলে হামলা হয়েছিল। ওই ঘটনায় ২০ শিশুসহ ২৬ জন নিহত হয়। ঘটনার পর যুক্তরাষ্ট্রে এটিকেই সবচেয়ে বড় বন্দুক হামলা বলা হচ্ছিল।
এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। এক বিবৃতিতে তিনি বলেছেন, ভয় নয় বরং একটি বন্দুক লবি এবং একটি রাজনৈতিক দলের দ্বারা যুক্তরাষ্ট্র পঙ্গু হয়ে গেছে। বারাক ওবামা আরো বলেন, সারা দেশের বাবা-মা তাদের সন্তানদের বিছানায় শুইয়ে দিচ্ছেন, গল্প শোনাচ্ছেন, গান গাইছেন। তবে পরের দিন সন্তানদের স্কুলে নামিয়ে দেওয়ার পর কিংবা তাদের নিয়ে মুদি দোকান বা অন্য কোনো জনপরিসরে যাওয়ার পর কী ঘটতে পারে, তা নিয়ে অভিভাবকরা চিন্তিত। তিনি আরো বলেন, টেক্সাসের পরিবারগুলোর সঙ্গে মিশেল এবং আমি শোকাহত। তারা এমন এক ধরনের যন্ত্রণা সহ্য করছে, যে পরিস্থিতিতে কারোই পড়া উচিত নয়। সূত্র : সিএনএন, এপি।



 

Show all comments
  • Faruk Ahamed ২৬ মে, ২০২২, ৭:২৪ এএম says : 0
    মুসলমান কারো দ্বারা কোন খুন সংগঠিত হলে সাথে সাথে জংগী তকমা লাগিয়ে দেয়া হয়, এখন ঐই যে নৃশংস খুন সংগঠিত হলো,দেখুন সরকার,মিডিয়া কেউই জংগী বলছে না।
    Total Reply(0) Reply
  • Faruk Ahamed ২৬ মে, ২০২২, ৭:২৫ এএম says : 0
    মুসলমান কারো দ্বারা কোন খুন সংগঠিত হলে সাথে সাথে জংগী তকমা লাগিয়ে দেয়া হয়, এখন ঐই যে নৃশংস খুন সংগঠিত হলো,দেখুন সরকার,মিডিয়া কেউই জংগী বলছে না।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মার্কিন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ