Inqilab Logo

শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ১১ আষাঢ় ১৪২৯, ২৪ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

শরণখোলায় হরিণের চামড়া ও সিং রেখে প্রতিপক্ষকে ফাঁসানোর চেষ্টা

শরণখোলা (বাগেরহাট) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৬ মে, ২০২২, ১:২৫ পিএম

শরণখোলায় দুইটি হরিণের চামড়া ও দুইটি সিং উদ্ধার করেছে বাগেরহাটের গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। বৃহস্পতিবার ভোররাতে উপজেলার উত্তর রাজাপুর গ্রামের সৌদি প্রবাসি আবুল বাশার খানের একটি নির্মানাধীন বাড়ি থেকে ওই চামড়া ও সিং উদ্ধার করা হয়। প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে একটি চক্র ওই চামড়া ও সিং রেখেছে বলে এলাকাবাসীর অভিযোগ।
বাগেরহাট গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক সুরেশ হালদার জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাদের একটি দল শরণখোলার উত্তর রাজাপুরের নির্মানাধীন ওই বাড়ি থেকে দুটি চামড়া ও দুটি সিং উদ্ধার করা হয়। তবে উদ্ধারের সময় মনে হয়েছে প্রতিপক্ষকে ফাঁসানোর জন্য এটি একটি ষড়যন্ত্র। একারনে ওই সোর্সকে আটকের চেষ্টা করা হচ্ছে।
আবুল বাশার খানের ভাই রহিম খান জানান, তারা তিন ভাই সৌদি প্রবাসি। তাদের প্রতিবেশী সুলতান মাষ্টারের ছেলে মিরাজ খানকে আমরা সৌদি নিয়ে যাই। সৌদি নেয়ার পরে আকামা নিয়ে তাদের সাথে বিরোধ সৃষ্টি হয়। এরই জের হিসেবে আমাদের ফাঁসাতে এ কাজ করা হয়েছে।
সংশ্লিষ্ট ইউপি সদস্য হেলাল সর্দার জানান, দুই পক্ষের বিরোধ নিয়ে তিনি সালিস বৈঠক করেছেন। তবে হরিণের চামড়া রাখার বিষয়টি সন্দেহজনক। ইউপি চেয়ারম্যান আজমল হোসেন মুক্ত জানান, এটি একটি ষড়যন্ত্র। আবুল বাশারকে ফাঁসাতে প্রতিপক্ষরা হরিণের চামড়া ও সিং রেখেছে।
উত্তর রাজাপুর ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি আঃ ছত্তার বয়াতী, সাধারণ সম্পাদক মোঃ রুস্তুম আলী, মোঃ আলম হাওলাদার, মোঃ মহিম হাওলাদার, জাকির খান, রুহুল আমিন হাওরাদার, মেঃি ছিদ্দিক হাওলাদারসহ গ্রামবাসী জানান, সুলতান মাষ্টারের ছেলে আবু তৈয়ব ও তার আত্মীয় কচি মুন্সি সন্ত্রসী প্রকৃতির। তারা মাদক, হরিণ শিকারসহ নানা অপরাধের সাথে জরিত। এরা আবুল বাশারকে ফাঁসাতে তার বাড়িতে হরিণের চামড়া ও সিং রেখে ডিবি পুলিশের সাথে থেকে তা উদ্ধার করিয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ