Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ১৪ আষাঢ় ১৪২৯, ২৭ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

ইমরানের মুখে ফের ভারতের প্রশংসা, শাহবাজ সরকারের কড়া নিন্দা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ মে, ২০২২, ৬:৪০ পিএম

পেট্রল ও ডিজেলের দাম বাড়ানোয় পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফের নিন্দা করেছেন দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। একই সঙ্গে তিনি ভারতের প্রশংসা করেছেন। বার্তা সংস্থা এএফপি এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।
সম্প্রতি পাকিস্তান সরকার পেট্রল ও ডিজেলের দাম লিটারে ৩০ রুপি বাড়িয়েছে। এই সিদ্ধান্তের নিন্দা করে ইমরান খান বলেন, ‘এই সরকার একটি বোধবুদ্ধিহীন সরকার। রাশিয়ার কাছ থেকে ৩০ শতাংশ কম মূল্যে তেল কেনার জন্য পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) যে চুক্তি করেছিল, তা বর্তমান সরকার অনুসরণ করেনি।’ একই সঙ্গে তিনি ভারতের প্রশংসা করে বলেন, ‘ভারত রাশিয়ার কাছ থেকে সস্তায় জ্বালানি তেল কিনে এনে নিজ দেশে তেলের দাম লিটারে ২৫ রুপি কমাতে সক্ষম হয়েছে।’
ইমরান খান এক টুইটার পোস্টে বলেন, ‘জাতি এখন বিদেশি প্রভুদের আমদানি করা সরকারের আনুগত্যের মূল্য দিতে শুরু করেছে। ডিজেলের দাম লিটারে ২০ থেকে ৩০ শতাংশ বেড়ে গেছে। এটি আমাদের ইতিহাসে সর্বোচ্চ মূল্যবৃদ্ধি। এই অযোগ্য ও বোধবুদ্ধিহীন সরকার রাশিয়ার সঙ্গে আমাদের চুক্তি অনুসরণ করেনি। আমরা ৩০ শতাংশ সস্তায় তেল কেনার চুক্তি করেছিলাম।’
অন্য এক টুইটে ইমরান খান বলেছেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের কৌশলগত মিত্র ভারত ঠিকই রাশিয়ার কাছে থেকে কম মূল্যে কিনে জ্বালানি তেলের দাম লিটারে ২৫ রুপি কমাতে পেরেছে। এখন আমাদের জাতি এই বদমাশদের হাতে আরেকটি বড় ধরনের মুদ্রাস্ফীতির শিকার হবে।’
গতকাল বৃহস্পতিবার পাকিস্তান পেট্রোলিয়াম পণ্যের দাম প্রতি লিটারে ৩০ রুপি বাড়িয়েছে। দেশটির সরকার জানিয়েছে, আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) সঙ্গে তাদের যে প্রোগ্রাম রয়েছে, তা পুনরুজ্জীবিত করতেই এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।
পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম ডন জানিয়েছে, পাকিস্তানে বর্তমানে পেট্রলের দাম ১৭৯ দশমিক ৮৬ রুপি, ডিজেলের দাম ১৭৪ দশমিক ১৫ রুপি, কেরোসিন তেল ১৫৫ দশমিক ৫৬ রুপি এবং হালকা ডিজেলের দাম ১৪৮ দশমিক ৩১ রুপি।
পাকিস্তানের অর্থমন্ত্রী মিফতাহ ইসমাইল গতকাল ইসলামাবাদে একটি সংবাদ সম্মেলনে তেলের দাম বাড়ানোর ঘোষণা দিয়ে বলেন, ‘দাম বাড়ানো ছাড়া সরকারের কাছে আর কোনো উপায় নেই। আমরা এখনো (দাম বাড়ানোর পরেও) ডিজেলে প্রতি লিটারে ৫৬ রুপি লসের মধ্যে আছি।’ সূত্র : এএফপি



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: নিন্দা


আরও
আরও পড়ুন