Inqilab Logo

সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ১৩ আষাঢ় ১৪২৯, ২৬ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

সরকারের পতন ঘটিয়ে দেশে নতুন নির্বাচন হবে

চাঁদপুরে বিএনপির প্রতিবাদ সমাবেশে সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল

চাঁদপুর থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৮ মে, ২০২২, ৮:১৪ পিএম

বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বলেছেন, আওয়ামী লীগের বিদায়ের সময় ঘনিয়ে এসেছে। এই কারণে এখন তারা আবোল-তাবোল বলা শুরু করেছে। আপনারা পদ্মা সেতু প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য শুনেছেন । একজন সাবেক প্রধানমন্ত্রী সম্পর্কে তারা কিভাবে কথা বলে এখানেই তাদের সাথে আমাদের তফাৎ। তাদের সাথে আমাদের সৃষ্টির চেতনা বোধের পার্থক্য। কারণ দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া আমাদেরকে বেয়াদবী শিখায় নি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক বিএনপি চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াাকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে চাঁদপুর জেলা বিএনপির আয়োজনে বিশাল প্রতিবাদ সমাবেশে সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল এসব কথা বলেন। ২৮ মে শনিবার বিকালে জেলা বিএনপি কার্যালয় প্রাঙ্গণে খোলা ট্রাকে মঞ্চ বানিয়ে প্রতিবাদ সমাবেশ করা হয়।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল আরো বলেন, এদেশে প্রথম গুম খুন ও ক্রসফায়ারের ইতিহাস সৃষ্টি করেছে আওয়ামী লীগ। এ দেশে বাকশাল কায়েম করেছিল আওয়ামী লীগ। অথচ এই আওয়ামী লীগেকে পুনর্জীবন দিছে শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান।

তিনি আরো বলেন, এক পদ্মা সেতুর নাম করে সারা দেশের মানুষকে উন্মাদ করে ফেলেছে। পদ্মা সেতুর বাজেট ছিল ১০ হাজার কোটি টাকা এখন সেই বাজেট এসে দাঁড়িয়েছে ৪০ হাজার কোটি টাকা। বাকি টাকা গেল কোথায়। আজকে আপনাদের চাঁদপুরের ডিসিকে কেন বদলি হতে হলো? কারণ তিনি প্রকৃত দুর্নীতিবাজদের মুখোশ উন্মোচন করে দেখিয়ে দিয়েছেন। মনে রাখবেন গণতন্ত্রের বিপক্ষে যারা অবস্থান করে তাদের পক্ষে ন্যায়ের লড়াই কখনোই সম্ভব নয়। আমরা মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি।

তিনি বলেন, আজকে দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতির ফলে সাধারণ মানুষ অতিষ্ঠ। কিন্তু সরকারের দমন-পীড়নের ভয়ে কেউ মুখ খোলে কিছু বলেনি। এই সরকারের সময় দেশের সবচেয়ে খারাপ অবস্থায় আছে।

দেশের জনগণ গুম খুন নির্যাতনের ভয়ে মুখ খুলছে না। তারা এখন বিএনপির দিকে তাকিয়ে আছে। এ জন্য এ সরকারকে পদত্যাগে বাধ্য করতে হবে। খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের নেতৃত্বে এ দেশের গণতন্ত্র আবার ফিরে আসবে।

প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন কুমিল্লা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মোস্তাক মিয়া। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক মোঃ কামরুজ্জামান রতন। চাঁদপুর জেলা বিএনপি সভাপতি ও কেন্দ্রীয় নেতা শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক এর সভাপতিত্বে ও জেলা বিএনপিসাধারণ সম্পাদক অ্যাডঃ সলিমুল্লাহ সেলিম ও পৌর বিএনপির সভাপতি আক্তার হোসেন মাঝির যৌথ পরিচালনায় সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপি নেতা খলিলুর রহমান গাজী, শরীফ মোঃ ইউনুছ, এম এ শুক্কুর পাটওয়ারী, পৌর বিএনপিসাধারণ সম্পাদক অ্যাডঃ হারুনুর রশিদ, সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি শাহ জালাল মিশন, সাধারন সম্পাদক অ্যাডঃ জাহাঙ্গীর হোসেন খান, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডঃ তাফাজ্জল হোসেন, জেলা মহিলা দলের সভানেত্রী অ্যাডঃ মনিরা চৌধুরী, জেলা যুবদল সাধারন সম্পাদক অ্যাডঃ নুরুল আমিন খান আকাশ, জেলা ছাত্রদলের সাধারন সম্পাদক ইসমাইল হোসেন পাটওয়ারী প্রমুখ।

সভাপতির বক্তব্যে জেলা বিএনপিসাধারণ সম্পাদক শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক আগামী আন্দোলন-সংগ্রামে সকল নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানিয়ে চাঁদপুর কারাগারে আটক জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের ৯ নেতার মুক্তি দাবি করেন।

প্রতিবাদ সমাবেশের আগে বিএনপি ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা খন্ড খন্ড মিছিল নিয়ে জেলা বিএনপি কার্যালয়ের সামনে উপস্থিত হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ