Inqilab Logo

সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ১৩ আষাঢ় ১৪২৯, ২৬ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

তিতাসে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে দুই দফা সংঘর্ষ : আহত ২

তিতাস (কুমিল্লা)উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৯ মে, ২০২২, ১২:০৩ এএম

কুমিল্লার তিতাস উপজেলায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে দুই দফা সংঘর্ষে ঘটনায় উভয় পক্ষের ২ জন আহত হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে গত শুক্রবার রাতে উপজেলার কলাকান্দি ইউনিয়ন মাছিমপুর বাজারে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বড় মাছিমপুর গ্রামের চম্পা বেগমের ছেলে জয়কে পুলিশ গ্রেফতার করাকে কেন্দ্র করে একই গ্রামের মনির হোসেন ওরফে মাস্টারের ছেলে আবুল কালামের সাথে বিরোধ চলে আসছে তারই জের ধরে প্রথম দফায় গত শুক্রবার রাত সাড়ে ৮ টায় পরে রাত ১১টায় সংঘর্ষের ঘটনা সংঘটিত হয়। উক্ত ঘটনায় ২জন আহত হয়। আহতরা হলো- মাছিমপুর গ্রামের হানিফ মিয়ার ছেলে মো. ডালিম মিয়া (৩৪), একই গ্রামের হাফিজ মিয়ার ছেলে মো. ফারুক মিয়া (২৭)। তার মধ্যে ফারুক মিয়া তিতাস উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি রয়েছে ও ডালিম প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছে। আবুল কালাম বলেন, গত রমজান মাসে জয়কে কি মামলায় তিতাস থানা পুলিশ ধরে নিয়েছে তা আমি জানিনা। তখন থেকে জয়ের পরিবার আমাকে দোষারপ করে আসছে, আমি নাকী জয়কে ধরিয়ে দিয়েছি, তার পর থেকে আমাকে ও আমার পরিবারের সদস্যদের বিভিন্নভাবে খোঁজাখুঁজি করে, না পেয়ে আমার বন্ধু ডালিম কে গত শুক্রবার রাতে চম্পা বেগমের বাড়ির সামনে রাস্তায় পেয়ে জয়, ফারুকসহ আরো কয়েকজনে মারধর করে আহত করে। তখন আমরা সিএনজিযোগে থানায় অভিযোগ করতে যাওয়ার সময় মাছিমপুর বাজারে গিয়ে দেখি আমার ছোট ভাই হাসানকে জয়, ফারুকসহ আরো কয়েকজন অটোরিকশায় ভরে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে, তখন আমরা সিএনজি থেকে নামলে জয় দৌড়ে পালিয়ে যায় এবং ফারুকের হাত থেকে আমার ছোট ভাইকে রক্ষা করে থানায় চলে যাই।
আহত ফারুক মিয়া জানান, গত শুক্রবার রাত ১১টায় আমি শশুর বাড়ি দাউদকান্দি উপজেলার খোসকান্দি গ্রাম থেকে আমার নিজ বাড়ি মছিমপুর যাওয়ার সময় মাছিমপুর বাজারে পৌছলে আমাকে আবুল কালাম, হাসান, ডালিমসহ আরো কয়েকজন মারধর করে দুই লাখ টাকা, ১টি মোবাইল সেট ও ১টি হাতের ঘড়ি নিয়ে যায়। তিতাস থানার ওসি সুধীন চন্দ্র দাস জানান, উক্ত ঘটনায় উভয় পক্ষ লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন