Inqilab Logo

শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ১১ আষাঢ় ১৪২৯, ২৪ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

বিয়ের আসরে বরের ‘চিচিং ফাঁক!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৯ মে, ২০২২, ১২:০১ এএম

ভারতের উত্তরপ্রদেশের উন্নাওতে সম্প্রতি বিয়ে বাড়িতে ঘটেছে এক আজব কাণ্ড। ঘটনা প্রকাশ্যে আসার পর রীতিমতো হতবাক হয়ে গিয়েছেন সকলে। জানা গেছে, বিয়েতে উপস্থিত বরের মাথায় টাক থাকায় কনে বিয়ে করতে অস্বীকার করেন। এমনকি, ওই কনে বিয়ের মঞ্চ ছেড়েও উঠে যান।
উভয়পক্ষের লোকজনই কনেকে অনেক বোঝানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু তিনি বিয়ে করতে মোটেও রাজি ছিলেন না। ওই কনে পাত্রের বাবা অশোক কুমারের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ এনে বিয়ে করতে অস্বীকার করেন। এরপরই সেই বিয়ে বাড়িতে এমন অবস্থার সৃষ্টি হয়, যে পুলিশকে খবর দিতে হয়।

এই নজিরবিহীন ঘটনাটি ঘটেছে উন্নাওয়ের সফিপুরে। বিয়ের জন্য কনে এবং বর মন্ডপে ওঠেন। সেখানে তারা দু’জনেই একে অপরকে মালা পরিয়ে দেন। এরপর তারা মঞ্চ থেকে নামতে শুরু করতেই পাত্র পঙ্কজ হঠাৎই অজ্ঞান হয়ে যান। পাত্রের এই অবস্থায় উপস্থিত হতবাক হয়ে পড়েন।

জানা গেছে যে, ওই পাত্রের মৃগীরোগ রয়েছে, তার জন্যই অজ্ঞান হয়ে যান তিনি। এদিকে, তৎক্ষণাৎ লোকজন তাকে তুলে সোফায় শুইয়ে দিয়ে চোখ-মুখে পানি দিতে থাকেন। ঠিক সেই মুহূর্তে ঘটে চমকে দেওয়া ঘটনা।
বরের মাথায় হাত দিতেই খুলে যায় তার পরচুলা। এর ফলে সকলেই পাত্রের সেই অবস্থা দেখে কার্যত হতবাক হয়ে যান। একই সঙ্গে আকাশ থেকে পড়েন কনে। এরপরই টাক বরকে বিয়ে করতে অস্বীকার করেন তিনি। এরপরই সেই বিয়েবাড়িতে তুলকালাম কাণ্ড বেঁধে যায়।

পাত্র পঙ্কজ গোলমাল ছাড়াই বরযাত্রী নিয়ে ফিরে যান। তিনি দিল্লিতে চাকরি করেন, পাশাপাশি পাত্রী একটি বেসরকারি কলেজের শিক্ষিকা। সূত্র : ডিএনএ ইন্ডিয়া, টাইমস নাউ।



 

Show all comments
  • Monjur Rashed ২৯ মে, ২০২২, ১১:৪৭ এএম says : 0
    The Bride was lucky enough to skip from fraudulent life partner.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ