Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ১৪ আষাঢ় ১৪২৯, ২৭ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

ডেপ-হার্ড দুজনের প্রতি শুভকামনা জানালেন ইলন মাস্ক

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৯ মে, ২০২২, ৪:৪৯ পিএম

কিছুদিন ধরেই হলিউড অভিনেতা জনি ডেপ ও অভিনেত্রী অ্যাম্বার হার্ড মানহানি মামলার লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন। এই মামলায় ডেপ-হার্ডের মধ্যে তৃতীয় ব্যক্তি হিসেবে মাস্কেরও যে ভূমিকা আছে, তা ইতোমধ্যেই জেনে গেছে বিশ্ব। তবুও এতদিন যাবত এই হাই-প্রোফাইল মামলার ব্যাপারে টুঁ শব্দটি করেননি বিশ্বের শীর্ষ ধনী ব্যক্তি।

সম্প্রতি এই মানহানি মামলায় পক্ষ-বিপক্ষের লড়াই তুঙ্গে পৌছেছে এবং আগামী সপ্তাহেই রায় আসতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। আর তারই মধ্যে নীরবতা ভঙ্গ করলেন ইলন মাস্ক। টুইটারে এই দুজনের মামলা নিয়ে এমআইটির গবেষক বিজ্ঞানী লেক্স ফ্রিডম্যানের করা একটি টুইটের জবাব দিয়েছেন তিনি।

লেক্স ফ্রিডম্যানের টুইটের জবাবে টেসলা আর স্পেসএক্স কর্ণধার ইলন মাস্ক লিখেছেন, “আমি আশা করছি, তারা দুজনই সামনে এগিয়ে যাবে। তাদের প্রতি শুভকামনা রইল। তারা দুজনই অসাধারণ!”

প্রসঙ্গত, জনি ডেপের সাথে বিচ্ছেদের পর বছরখানেক একসাথে ডেটিং করেছিলেন ইলন মাস্ক ও অ্যাম্বার হার্ড। যদিও এক বছর পরেই ২০১৭ সালে তারা আলাদা হয়ে যান। কিন্তু ২০১৮ সালে আবারও দুজন একসাথে হন এবং কয়েক মাস পরে আবার তাদের সম্পর্কের অবসান ঘটে।

আলোচিত এই মানহানি মামলায় জনি ডেডের একটি টেক্সট মেসেজ প্রকাশ্য হয়, যাতে তিনি বলেছিলেন, “সে আমার সামনে আসুক, তাকে এমন শিক্ষা দেব যে জীবনে তেমনটি আগে কখনও দেখেনি।” বলা হচ্ছে, স্ত্রী হার্ডের সঙ্গে ইলন মাস্কের প্রেমের খবর শুনে এই মেসেজটি আরেকজনকে পাঠিয়েছিলেন ডেপ।

উল্লেখ্য, ‘পাইরেট’ ডেপ এবং ‘অ্যাকুয়াম্যান’ তারকা হার্ড ২০১৫ সালে ঘর বাঁধলেও দুই বছরের মধ্যে তাদের বিচ্ছেদ ঘটে। এরপর ১৯১৮ সালে ওয়াশিংটন পোস্টে এক কলামে নিজেকে পারিবারিক সহিংসতার শিকার হিসেবে তুলে ধরেন অ্যাম্বার হার্ড। তাতে ক্ষুব্ধ হয়ে সাবেক স্ত্রীর বিরুদ্ধে ৫ কোটি ডলার ক্ষতিপূরণ চেয়ে মানহানির মামলা করেন ডেপ। তার পাল্টায় ১০ কোটি ডলার ক্ষতিপূরণ চেয়ে পাল্টা মামলা করেন হার্ড।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন