Inqilab Logo

বুধবার, ১৭ আগস্ট ২০২২, ০২ ভাদ্র ১৪২৯, ১৮ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

রাশিয়া থেকে দুই-তৃতীয়াংশ তেল আমদানিতে ইইউর নিষেধাজ্ঞা

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩১ মে, ২০২২, ১১:২৮ এএম

রাশিয়ার কাছ থেকে তেল আমদানি দুই-তৃতীয়াংশের বেশি বন্ধে সম্মত হয়েছেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) নেতারা।

হাঙ্গেরির বিরোধিতার কারণে তাদেরকে তেল আমদানিতে পুরোপুরি নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে আপস করতে হয়েছে; এর ফলে পাইপলাইনে তেল আমদানিতে আপাতত ছাড় মিলেছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

ইউরোপিয়ান কাউন্সিলের প্রধান চার্লস মিশেল বলেছেন, নতুন এ চুক্তি রাশিয়ার যুদ্ধ ‘অর্থায়নের বিশাল একটি উৎস’ বন্ধ করে দেবে।

ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) রাশিয়ার সবচেয়ে বড় ব্যাংক সবেরব্যাংক ও রাষ্ট্র-মালিকানাধীন তিনটি সম্প্রচারমাধ্যমের ওপরও কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার ব্যাপারে একমত হয়েছে, বলেছেন তিনি।

রাশিয়ার তেল আমদানিতে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া নিয়ে মতপার্থক্য নিরসনে ইইউ সদস্য দেশগুলো গত কয়েক সপ্তাহ ধরে চেষ্টা চালিয়ে গেলেও প্রধানত হাঙ্গেরিই তেল আমদানি পুরোপুরি বন্ধের সিদ্ধান্তে আপত্তি জানিয়ে আসছে।

শেষ পর্যন্ত ‘পাইপলাইনের মাধ্যমে ইইউতে আসা তেলের ক্ষেত্রে সাময়িক ছাড়’ দিয়ে এ আপস করতে হয়েছে বলে সাংবাদিকদের জানান মিশেল।

এ কারণে নিষেধাজ্ঞা এখন মূলত সমুদ্রপথ দিয়ে যাওয়া তেলের ক্ষেত্রেই কার্যকর হচ্ছে। ইইউ রাশিয়া থেকে যত তেল আমদানি করে তার দুই তৃতীয়াংশই সমুদ্র দিয়ে যায়।

তবে, ইউরোপিয়ান কমিশনের প্রেসিডেন্ট উরসুলা ভন ডার লিয়েন বলেছেন, রাশিয়া থেকে আমদানি দুই-তৃতীয়াংশের বেশিই বন্ধ হওয়ার সুযোগ রয়েছে। কেননা, জার্মানি ও পোল্যান্ড স্বেচ্ছায় এ বছরের মধ্যে তাদের পাইপলাইনের মাধ্যমে আমদানি কমিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

বাকি যে ১০ থেকে ১১ শতাংশ থাকবে, তা মূল হাঙ্গেরি, স্লোভাকিয়া ও চেক রিপাবলিকে যাবে।

ছাড়ের বিষয়টি ‘যত দ্রুত সম্ভব’ পুনর্বিবেচনা করবে ইউরোপিয়ান কাউন্সিল, বলেছেন তিনি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ