Inqilab Logo

শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ১৭ আষাঢ় ১৪২৯, ০১ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

ইউক্রেনে অভিযানের দিন রাশিয়া সফরে সমর্থন ইমরান খানের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১ জুন, ২০২২, ১২:০১ এএম

প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান জোর দিয়ে বলেছেন, তার মস্কোতে ভ্লাদিমির পুতিনের সাথে দেখা করার দিনই রাশিয়া ইউক্রেনে অভিযান চালাবে তা তিনি জানতেন না। স্কাই নিউজের সাথে কথা বলার সময় তিনি একথা বলেন। ইমরান খান ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে যুদ্ধ শুরু হওয়ার কয়েক ঘণ্টা পরেই রুশ প্রেসিডেন্টের সাথে মুখোমুখি আলোচনা ও করমর্দনের জন্য সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন।
পেশোয়ার থেকে একটি ভিডিও লিঙ্কে, পিটিআই প্রধান, যিনি ২৩ ফেব্রুয়ারি রাশিয়ায় দুই দিনের সফরে এসেছিলেন, বলেছেন: ‘আমি যেদিন মস্কোতে অবতরণ করি সেদিন পুতিন ইউক্রেনে যাচ্ছেন তা কীভাবে জানতাম।

‘আমি কখনই সামরিক সমাধানে বিশ্বাস করিনি, আমাদের বৈঠকটি দ্বিপাক্ষিক ছিল এবং এটি অনেক আগে থেকেই পরিকল্পনা করা হয়েছিল। আমরা বুঝতে পারিনি যে, আমি যখন সেখানে পৌঁছলাম, তখন পুতিন ইউক্রেনে যাবেন। আমার কীভাবে জানার কথা এবং কীভাবে হতে পারে’। তুমি কি এর জন্য শাস্তি পাবে’?
ক্ষমতাচ্যুত প্রধানমন্ত্রী যোগ করেছেন যে, তিনি ইউক্রেনের সামরিক সমাধানের বিরুদ্ধে ছিলেন এবং ক্রেমলিনে তার সফরের উদ্দেশ্য ছিল দ্বিপাক্ষিক চুক্তি নিয়ে আলোচনা করা।
চীন এবং রাশিয়ার সাথে তার সরকারের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক নিয়েও তাকে প্রশ্ন করা হয়। ইমরান বলেন যে, তিনি পাকিস্তানি জনগণের সেবা করার জন্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। ‘পাকিস্তানে ৫ কোটি মানুষ দারিদ্র্য সীমার নিচে আছে এবং আমি তাদের কাছে বিশ্বে যেসব অন্যায় চলছে তা সংশোধন করার জন্য নির্বাচিত হইনি’।

তিনি যোগ করেছেন, ‘এটি আমার দেশের প্রতি আমার দায়িত্ব ছিল এবং তাই আমার সব সম্পর্ক, তা চীন বা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বা রাশিয়ার সাথেই হোক না কেন, আমাদের জনগণের সুবিধার জন্য ছিল’।
কাশ্মীরে ভারতীয় নৃশংসতা : ইমরান ভারতকে কাশ্মীরে জাতিসংঘের প্রস্তাব লঙ্ঘনের জন্যও অভিযুক্ত করে বলেছেন, নয়াদিল্লি ‘অবৈধভাবে কাশ্মীরি জনগণের অধিকার কেড়ে নিয়েছে’। ‘কেউ কি এর বিরুদ্ধে কথা বলেছে? কাশ্মীরে নৃশংসতা চলছে, কাশ্মীরে ১ লাখ মানুষ মারা গেছে। কেউ কি এর জন্য ভারতের নিন্দা করেছে? না, কারণ ভারত মিত্র, আমাদেরও নিরপেক্ষ হতে দিন যাতে আমরা আমাদের জনগণের যত্ন নিতে পারি’।
তালেবানদের কোনো সমর্থন নেই : আফগানিস্তানের সাথে পাকিস্তানের একটি বড় সীমান্ত রয়েছে এবং ইমরানকে গত বছর তালেবানদের দেশটি দখল করার বিষয়ে জিজ্ঞাসা করা হয়। তিনি বলেন, আফগানিস্তানে কখনোই সামরিক সমাধান হবে না।

‘আমি তালেবানের কর্মকর্তা বা মুখপাত্র নই, যদি ২০ বছরের যুদ্ধের পরে অন্য কোনো সমাধান থাকে তবে আপনার কিছু সমাধান পাওয়া উচিত ছিল’ তিনি বলেন, পাকিস্তান কখনও তালেবানকে সমর্থন করেনি। ‘পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের ক্ষতি সমান্তরাল’। সূত্র : এক্সপ্রেস ট্রিবিউন।



 

Show all comments
  • Nipa Nipun ১ জুন, ২০২২, ১০:৩৬ এএম says : 0
    ইমরান খান একজন স্পষ্ট বক্তা এবং একজন দেশপ্রেমিক। তার কাছ থেকে অনেকের অনেক কিছু শিখা উচিত।।
    Total Reply(0) Reply
  • মোহাম্মদ রাজু হোসাইন ১ জুন, ২০২২, ১০:৩৭ এএম says : 0
    গণতান্ত্রিক বিশ্বে ক্ষমতার পা একটু হলেও বুঝে শুনে ফেলতে হয়
    Total Reply(0) Reply
  • Faruk Hossain ১ জুন, ২০২২, ১০:৩৮ এএম says : 0
    পাকিস্তানের বিরোধীদল তাহলে শেষ পর্যন্ত আমেরিকার কছে বিক্রি হয়ে গেল...পাকিস্তানের মানুষ দেশপ্রেমিক রাজনৈতিক ব্যাক্তিত্ব চিনলো না...
    Total Reply(0) Reply
  • Md Abu Tahar ১ জুন, ২০২২, ১০:৩৭ এএম says : 0
    যুদ্ধে যেমন-অনেক অস্ত্র ব্যবহার করতে হয়। ক্ষমতা টিকিয়ে রাখতে। বা ক্ষমতা থেকে পদচ্যুতি করতে অনেক পথ অবলম্বন করতে হয়। উপমহাদেশে যে কোন রাজনৈতিক দলের ক্ষমতা হারানোর পর গণতন্ত্রের কথা মনে পড়ে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রাশিয়া


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ